আন্ডাররেটেড, তবে ‘মাস্ট ওয়াচ’

সিনেমার উদ্দেশ্য কি? অবশ্যই প্রথম ও প্রধান উদ্দেশ্যটা হল দর্শকদের বিনোদন দেওয়া। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সিনেমা জীবনের কিছু শিক্ষাও দেয়। এ ধারায় সিনেমাকে একালে বলে কনটেন্টবহুল সিনেমা।  এ ধারার সিনেমাগুলো ভাল, কিন্তু এর মধ্যে সব বক্স অফিসে সাফল্য পায় না।

প্রচার-প্রচারণার অভাবে কিছু কিছু সিনেমার ব্যাপারে তাই কখনো দর্শকের জানাই হয় না। আর এমন কিছু সিনেমাও আছে যেগুলো আসলে সমালোচক ও এক শ্রেণির দর্শকের কাছে খুবই প্রশংসিত হলেও দিন শেষে আমজনতার দুয়ারে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়।

এই ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটে সম্ভবত পশ্চিমবঙ্গের বাংলা সিনেমার ক্ষেত্রে। সেখানে বিকল্পধারার কনটেন্টবহুল সিনেমাগুলো আক্ষরিক অর্থেই ভিন্নধাঁচের। মূলধারার বানিজ্যিক ছবি ও বিকল্পধারার বানিজ্যিক ছবির সাথে সব সময় এই সুন্দর সিনেমাগুলো পাল্লা দিয়ে টিকে থাকতে পারে না।

আসলে ওরকম বাজেটও সব সময় থাকে না। সিনেমাগুলো তাই আন্ডাররেটেড, তবে অবশ্যই ‘মাস্ট ওয়াচ’। ২০১৮ সালেও টালিউডে এসেছে এমন বেশ কিছু কাজ। বড় কোনো তারকা, বিশাল কোনো বাজেট না থাকলেও সিনেমাগুলো দেখতে ভালই লাগবে। এমনই কিছু সিনেমা নিয়ে আমাদের এবারের আয়োজন। নি:সন্দেহে বলা যায়, সিনেমাগুলো দেখে পস্তাবেন না।

আহারে মন
আলিফা
আলিনগরের গোলকধাঁধা
ক্রিসক্রস
জেনারেশন আমি
ঘরে অ্যান্ড বাইরে
জোজো
মাটি
মাইকেল
পর্ণমোচী
রেইনবো জেলি
রিউনিউয়ন
রঙ বেরঙের কড়ি
সোনার পাহাড়
উড়নচণ্ডী

 

https://www.mega888cuci.com