ধুম সিরিজের বিবর্তন

‘ধুম’ সিরিজের প্রথম কিস্তি ছিল বলিউডের ইতিহাসে বৈপ্লবিক এক সিনেমা। দেখতে দেখতে অভিষেক বচ্চন, উদয় চোপড়া ও জন আব্রাহাম অভিনীত সিনেমাটি মুক্তির ১৪ বছর কেটে গেছে। হলিউডকে আদর্শ মেনে নির্মিত এমন স্টান্টবহুল অ্যাকশন-থ্রিলার এর আগে দর্শক দেখেনি বললেই চলে।

এই অর্থেই সিনেমাটি বৈপ্লবিক। বক্স অফিসের বিবেচনাতেও সুপার হিটের তকমা পেয়েছিল ‘ধুম’। ভারত থেকে আয় ছিল ৩২ কোটি। ২০০৪ সালের সবচেয়ে বড় হিট সিনেমার তকমা পাওয়া ধুমই কালক্রমে বলিউডের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সবচেয়ে সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি বলে বিবেচিত হয়।

দু’বছর বাদে আসে ‘ধুম ২’। অ্যান্টি হিরোর চরিত্রে জন আব্রাহামের জায়গায় আসেন হৃত্বিক রোশন। সাথে যোগ হন ঐশ্বরিয়া রায় ও বিপাশা বসু। হৃত্বিক-ঐশ্বরিয়ার স্টারডমের সুবাদে ধুম একটি পাওয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজিতে পরিণত হয়।

সেটা কেবল ২০০৬ সালের সবচেয়ে বেশি ব্যবসাসফল ছবিই ছিল না, সিনেমাটি ভেঙে ফেলে বক্স অফিস কালেকশন এর আগে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে থাকা ‘গাদার’ সিনেমার রেকর্ডও। অনবদ্য অ্যাকশন, টপ চার্টে জায়গা করে নেওয়া সব গান আর হৃত্বিকের নিখুঁত পারফরম্যান্সের জন্য ধুম ২-কে অনেকেই ধুম সিরিজের সেরা ছবি বলে রায় দিয়ে থাকেন। কেবল ভারত থেকেই সিনেমাটির আয় ছিল ৮২ কোটি রুপি।

এরপর সাত বছরের লম্বা বিরতি দিয়ে ২০১৩ সালে আসে ধুমের তৃতীয় কিস্তি। এবার অ্যান্টি হিরোর ভূমিকায় আমির খান। এবার গল্প নিয়ে কিছুটা সমালোচনা ছিল, কয়েকটি হলিউড সিনেমার প্রভাব দেখতে পান অনেকেই। তবে, আমির খানের স্টারডম-অভিনয় নৈপুন্য, আর ক্যাটরিনা কাইফের মোহনীয়তা ফ্র্যাঞ্চাইজিটিকে আরো এক ধাপ ওপরে নিয়ে যায়।

এটা ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ইতিহাসে প্রথম সিনেমা হিসেবে ২৫০ কোটির ল্যান্ডমার্ক ছাড়িয়ে যায়। বক্ত অফিস ইন্ডিয়া থেকে শেষ অবধি সিনেমায় আয় ২৮০ কোটি রুপিতে গিয়ে শেষ হয়। বলা হয়, এটা বলিউডের ইতিহাসেরই সবচয়ে বড় ব্লকবাস্টার সিনেমাগুলোর একটি।

বোঝাই যাচ্ছে, ধুম সিরিজের তিনটি বলিউডের  ইতিহাসে আলাদা আলাদা ভাবে ইতিহাস গড়েছে। সে কারণেই এখন ‘ধুম ৪’ নিয়ে চলছে হাজারো জল্পনা-কল্পনা। যদিও, এখন অবধি প্রোডাকশন হাউজ যশ রাজ ফিল্মসের পক্ষ থেকে কিছুই বলা হয়নি।

তবে, মিডিয়া রিপোর্ট বলছে এবারও থাকছে বড় রকমের চমক। সম্ভবত, এবার অ্যান্টি হিরোর জায়গাটা নেবেন দুই খানের একজন। সালমান খান নাকি শাহরুখ খান? – ধুমের রেসটা কে জিতবেন? – উত্তর পেতে সময়ের অপেক্ষা করা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই!

– কইমই অবলম্বনে

https://www.mega888cuci.com