‘অপরাধী’র ইতিহাস ও বাংলাদেশের সিক্রেট সুপারস্টার

‘অপরাধী’ গানটা শোনেননি, এমন লোক হয়তো এই সময়ে বাংলাদেশে খুঁজেই পাওয়া যাবে না। ইউটিউবের কল্যানে গানটা বর্তমান সময়ে বেশ আলোচিত হয়েছে। শাকিব খানের ‘বসগিরি’ ছবিতে ইমরানের গাওয়া ‘দিয়েছি তোকে দিল দিল’ গানের ৩৪ মিলিয়ন ভিউকে পিছনে ফেলে মাত্র এক মাসের মধ্যেই ইউটিউবে বাংলাদেশের হয়ে বেশি ভিউ পাওয়া গানের খাতায় নাম লিখিয়েছে গায়ক আরমান আলিফের এই সৃষ্টি। ইউটিউব গ্লোবাল র‌্যাংকিংয়ে সেরা ১০০’র মধ্যেও জায়গা করে নিয়েছে এই গান।

গানটি এক মাস আগে ঈগল মিউজিক এর ব্যানারে মিউজিক ভিডিও আকারে বের হওয়ার পরেই এই তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। গানটির জনপ্রিয়তা এত আকাশসমান উচ্চতায় পৌছেছে যে বাংলাদেশে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও সবাই একসাথে মিলে ড্রেসিংরুমে গানটি গেয়েছে। ফেসবুকের সুবাদে ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও।

এখন, প্রশ্ন হল কে এই আরমান আলিফ?

সময়টা ২০১৭ সাল। আলিফ তখন রঙ ব্যান্ডের চ্যানেলে প্রথম গানটা রিলিজ দেয়। সেই দফায় গানটা খুব একটা সারা ফেলেনি। পরে তাদের সাথে বিভিন্ন সমস্যার কারণে সেই ব্যান্ড ছেড়ে দেয় আলিফ। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে নিজের চ্যানেল ‘চন্দ্রবিন্দু’তে গানটি আপলোড করে।

সেটা দেখার পরেই ছাড়পোকা ব্যান্ড থেকে আলিফের এই গানটা কভার করার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়। সাত-পাঁচ না ভেবে আলিফও অনুমতি দিয়ে দেয়। এটাই হয়তো তাঁর জীবনের অন্যতম বড় ভুল। গানটি ছয় মিলিয়নের ওপর ভিউ পায়, নানা রকম ফেসবুক পেজ ও গ্রুপে শেয়ার হতে চায়। সাধারণ শ্রোতাদের কাছে পরিচিত হয় ছাড়পোকা, হারিয়ে যায় আলিফের নাম। কারণ, ছাড়পোকা অনেক জায়গাতেই গানটাকে নিজেদের বলে দাবী করে বসে।

যদিও, আরমান পরে ‘ফানুস’ নামের আলাদা একটি চ্যানেল খুলে নিজের দাবী-দাওয়া ছেড়ে দেন। মাস খানেক আগে ‘ঈগল মিউজিক’-এর ব্যানারে আরমান আলিফের কন্ঠে গাওয়া এই গানটি রিলিজের পর সারা বাংলাদেশ জুড়ে গানটার ব্যাপ্তি ছড়িয়ে যায় গার্মেন্টস কর্মী থেকে শুরু করে বাংলাদেশ দলের ড্রেসিংরুম পর্যন্ত চলে গেছে। আর এরই মধ্যে কপি-রাইটের আবেদন করায় গানটি সরে গেছে ছাড়পোকার চ্যানেল থেকেও।

এবার আলোচনা হল, গানটি কি করে এতটা জনপ্রিয় হল। উত্তর সহজ, মানুষ প্রেমে পড়ে, প্রেমে ব্যর্থ হওয়ার হারটাও কম নয়। সেই ব্যর্থতার কষ্ট ভুলতেই ‘অপরাধী’ গানের আবির্ভাব হয় তাদের জীবনে। সাথে আছে গানটির শ্রুতিমধুরতা।

গানটার একটা লাইন ‘টিফিনের সব টাকা জমায় আবেগ কিনিতাম।’ – লাইনটার সাথে সবাই কম বেশি নিজেদের জীবনের সংযোগ ঘঠাতে পারেন। সাম্প্রতিকালে বাংলা গানে এতো সুন্দর আর অর্থবহ লাইন আগে শুনেছি কিনা মনে পড়েনা। সারা বাংলার ধনী-গরিব থেকে ছোট-বড় সবার কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাওয়ার কারণেই ‘অপরাধী’ গানটা আজকে এই অবস্থানে আসতে পেরেছে।

বাংলা ছবিতে বর্তমানে ভালো প্লে-ব্যাক শিল্পীর অনেক সংকট। কিন্ত আরমান আলিফরা এই দুঃসময়ে আশার আলো। খুব শীঘ্রই হয়ত তাকে প্লেব্যাকেও দেখতে পাব কোন ছবিতে। হয়তোবা, একসময় শাকিব-শুভদের ছবিতেও কন্ঠ দিবে আলিফ। আলিফকে তাই বাংলাদেশের ‘সিক্রেট সুপারস্টার’ বলাই যায়।

https://www.mega888cuci.com