ফুটবল কোচিং করানোর চেয়ে তরমুজ বেঁচা ভাল!

ডিয়েগো সিমিওনে বরাবরই বেশ আত্মবিশ্বাসী মানুষ। ফুটবল কোচ হিসেবে ইউরোপে তিনি বেশ প্রশংসিতও বটে। তাঁরই জাদুর কাঠির স্পর্শে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোল’র প্রথম লেগে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ হারিয়ে দিয়েছিল জুভেন্টাসকে। ব্যবধান ছিল ২-০।

এই অবস্থায় যে কেউই আসলে নিজেদেরকে পরের পর্বেই দেখতে পাবেন। আর ডিয়েগো সিমিওনের আশাবাদটা বাকিদের চেয়ে একটু বেশিই ছিল। মাঠের মধ্যেই ভিষণ অশ্লীল এক উদযাপন করলেন। উয়েফার কাছে ৩৮ হাজার ইউরো জরিমানা গুণলো অ্যাটলেটিকো।

তারপরও ডিয়েগো সিমিওনের পা মাটিতেই নামছিল না। সেটা ক’দিন আগেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আয়াক্স অ্যামস্টারডামের দু’টি অতিমানবীয় প্রত্যাবর্তন দেখার পরও নয়। এই অবধি ঠিকই ছিল, তবে বড় বিপদ হল যখন তিনি সংবাদ সম্মেলনে ‘উদ্ভট’ এক প্রতিশ্রুতি করে বসলেন।

ম্যাচের আগে এক সাংবাদিক এই আর্জেন্টাইন কোচের কাছে প্রশ্ন ছুড়েছিলেন, ‘জুভেন্টাস কি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বা আয়াক্সের মত প্রত্যাবর্তন করতে পারবে?’ অতি-আত্মবিশ্বাসী কোচ সিমিওনের সোজা-সাপটা জবাব ছিল, ‘সেটা যদি হয়েই যায় তাহলে আমি মাদ্রিদের রাস্তায় তরমুজ বিক্রি করতে নেমে যাবো।’

সিমিওনের এই আত্মবিশ্বাস ধোপে টেকেনি। কারণ তিনি হয়তো ভুলেই গিয়েছিলে জুভেন্টাসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো নামের এক ভদ্রলোক আছেন, যিনি অসম্ভবকে সম্ভব করার ব্যাপারে ওস্তাদ। এবার তিনি সেটাই করলেন। নিজেদের মাঠ তোরিনো-তে এই পর্তুগীজ জুভেন্টাসের হয়ে এযাবৎকালে নিজের সেরা পারফরম্যান্সটা উপহার দিলেন।

অবিস্মরণীয় এক হ্যাটট্রিক করলেন। আর অ্যাটলেটিকো দল অ্যাওয়ে ম্যাচে কোনো গোলই না পাওয়ায় দুই লেগ শেষে ফলাফল দাঁড়ালো ‘৩-২’। মানে মাদ্রিদের ক্লাবটিকে টপকে শেষ আটে পৌঁছে গেছে জুভেন্টাস। এজন্যই তো উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নাম পাল্টে রোনালদো ভক্তরা একে অনেক সময়ই উয়েফা ক্রিশ্চিয়ানো লিগ নামে ডাকেন।

এবার ব্যাপার হল, সিমিওনে কি এবার নিজের করা প্রতিশ্রুতি মেনে মাদ্রিদের রাস্তায় তরমুজ বিক্রি করতে নেমে যাবেন! কে জানে, হয়তো এখন এই বিস্বাদময় পরিস্থিতিতে তাঁর সত্যিই মনে হচ্ছে – ‘ফুটবল কোচিং করানোর চেয়ে তরমুজ বেঁচা ভাল!’

সিমিওনে নিজের ভবিষ্যতের জন্য কেমন ক্যারিয়ার প্ল্যান করছেন, সেই ব্যাপারে জানা না গেলেও তিনি যে রোনালদোর শ্রেষ্ঠত্ব মেনে নিয়েছেন, সেটা জানা গেছে। ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘রোনালদো নি:সন্দেহে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। এই রাতে ও দেখিয়েছে কিভাবে বড় ম্যাচগুলো জিততে হয়!’

https://www.mega888cuci.com