সুন্দর সম্পর্কের চার সূত্র

সম্পর্ক ছাড়া মানব জীবন ভাই যায় না। আর এই ব্যক্তিগত সম্পর্কগুলো দারুণ হওয়াটাই নির্ভেজাল জীবনের মূল সূত্র। সম্পর্কগুলো যত ভাল হবে, ততই জীবন সহজ হবে। আর সহজ সম্পর্কের জন্য কিছু নীতি মেনে চলার কোনো বিকল্প নেই।

কাউকে জোর করে ভালবাসা হয় না

যাকে আপনার পছন্দই নয়, তাকে কি করে ভালবাসবেন! সেই বৃথা চেষ্টায় যাবেন না, বা অপরকেই চেষ্টা করতে বলবেন না। সম্পর্ক গড়ে ওঠে একে অপরের ওপর শ্রদ্ধাবোধ থেকে। নিজেকে শ্রদ্ধার জায়গায় নিয়ে যেতে চেষ্টা করুন। অপর জনকেই যাচাই করতে দিন, আদৌ আপনি তার যোগ্য কি না।

কেউ আপনাকে ভালবাসলে সেটা আপনা-আপনিই অনুভব করতে পারবেন

ভাল ও খারাপ আচরণের পার্থক্যটা আমরা সবাই। কেউ আপনাকে নিয়ে কি ভাবে, আপনার ব্যাপারে আরেকজন মানুষ কি ভাবে সেটা আপনি তার আচরণ দেখেই বুঝে নিতে পারবেন। যে আপনাকে ভালবাসে সে আপনার সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করবে, আপনাকে সম্মান করবে, যাই হোক না কেন সে আপনার অনুভূতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন। যে আপনাকে সব সময়ই নানা রকম অজুহাত দেয়, কখনোই আপনাকে সময় দেওয়ার চেষ্টা করে না, তার আপনার প্রতি ভালবাসা নি:সন্দেহে কম।

অন্যকে ভালবাসার জন্যই আগে নিজেকে ভালবাসুন

নিজেকে ভালবাসা মানে স্বার্থপরতা নয়, বা নিজেকে অনেক বড় কিছু মনে করা হয়। এটা হল নিজের ইচ্ছা ও অনুভূতিকে গুরুত্ব দেওয়ার গুণ। এর অর্থ হল, আপনি অন্যের অনুভূতি ও ইচ্ছার ব্যাপারেও সহানুভূতিশীল। অন্যের ওপর জোর করে কোনো কিছু নিশ্চয়ই আপনি চাপিয়ে দিতে পারেন না। নিজেকে ভালবাসলে, যেকোনো সময় আপনি নিজের সম্মান ও যাকে ভালবাসেন তার সম্মান বাঁচিয়ে চলতে বুঝবেন।

যে আপনার প্রতি ভালবাসা হারিয়ে ফেলেছে তাকে ধরে রাখতে চেষ্টাও করবেন না

এটা খুবই পরিচিত একটা ভুল। শুনতে খুব খারাপ শোনালেও এটাই সত্যি যে, কেউ আপনাকে আজীবন ভালবাসতে বাধ্য নয়। সেটা জীবনের যেকোনো পর্যায়ে, এমনকি তিন বাচ্চার বাবা-মা হয়ে গেলেও সত্যি। মানুষের ভাবনায়, তার অনুভূতিতে পরিবর্তন আসতেই পারে। তাই, কেউ চলে যেতে চাইলে তাকে জোর করে ধরে রাখতে চাইবেন না, তাহলে নিজেই তার জীবনে বোঝা হয়ে যাবেন। বোঝা হওয়ার চেয়ে নতুন করে শুরু করাটাই কি ভাল নয়!

– ব্রাইট সাইড অবলম্বনে;

ছবি কৃতজ্ঞতা: শামীম শরীফ সুষম, নাজমি খান ও সাদিয়া শেফা।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।