সিনেমা হলে গ্যারেজ ভাড়া!

সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাওয়াটা বাংলাদেশে নতুন কোনো ব্যাপার নয়। সিনেমাহল ভেঙে মাল্টিপ্লেক্স শপিং কমপ্লেক্স, বা অন্য কোনো বানিজ্যিক বহুতল ভবনও গড়ে উঠতে দেখা যায়। তবে, সিনেমাহলকে গোডাউন, কোনো পণ্যের শো-রুম, বা গ্যারেজ হিসেবে ভাড়া দেওর নিদর্শন আগে সম্ভবত দেখা যায়নি।

এবার সেটাও হল। এই ঘটনা ঘটেছে নারায়নগঞ্জে। সেখানকার রংধনু সিনেমাহলে ব্যানার লাগিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই হলটা ভাড়া দিতে আগ্রহ হল কর্তৃপক্ষ। হলটি নারায়ণগঞ্জ-শিমরাইল সড়কের আটি এলাকায় অবস্থিত

যদিও, হলটিকে ঘিরে দীর্ঘদিনের কিছু অভিযোগ ছিল। দীর্ঘদিন সিনেমাহলটিতে চলেছে অশ্লীল সিনেমা। অভিযোগ আছে, হলটিতে অসামাজিক কার্যক্রমও চলতো। জমজমাট দেহ ব্যবসা হয় বলে গণমাধ্যমগুলোতে খবরও বের হয়েছিল।

পরবর্তীতে স্থানীয়দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ফেব্রুয়ারিতেও সপ্তাখানেকের জন্য বন্ধ ছিল সিনেমাহলটি। আর এই অবৈধ ব্যবসায় খোদ হল কর্তৃপক্ষ জড়িত বলেও অভিযোগ ছিল।

দেশের সিনেমাহল ব্যবসা অনেক আগে থেকেই হুমকির সম্মুখীন। আর এখন এসব খবরগুলো প্রমাণ করছে, এই ব্যবসাটির মৃত্যু ঘোষণা করে দেওয়ার সময় চলে এসেছে।এর জন্য কিছুটা কি আমাদের সিনেমা শিল্পেরও নয়?

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।