শচিনের ঐতিহ্যের ধারক

ব্যাট উঁচিয়ে ধরা, মুষ্টিবদ্ধ হাতে বাহুর পেশি দেখানো – সেঞ্চুরির পর বিরাট কোহলির এই উদ্‌যাপন আর নতুন কী! ‘রান মেশিন’ তকমা পাওয়া ভারতীয় অধিনায়কের কাছে সেঞ্চুরি জিনিসটা এতটাই নিয়মিত, উদ্‌যাপনে আর কতই নতুনত্ব আনবেন!

গত সেপ্টেম্বরে সেঞ্চুরি করে ছুঁয়ে ছিলেন দুইয়ে থাকা পন্টিংকে। একদিন আগে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ১২৫বলে ৯চার আর দুই ছয়ে তিন (১২১) অঙ্কে ছুঁয়ে ছাড়িয়ে গেছেন রিকি পন্টিংকে।

ক্রিকেটে সব ব্যাটসম্যানের জন্য এখন এভারেস্টটির নাম শচিন টেন্ডুলকার। অন্তত রেকর্ড বিচারে সেই শৃঙ্গ কি ছুঁতে পারবেন কোহলি? নাকি নিজেকে নিয়ে যাবেন আরও উচ্চতায়? সময়ের মুঠোয় যে প্রশ্নে উত্তর লুকানো, সেটা কেইবা জানতে পারে। তবে এখন যে গতিতে ছুটছেন, সেই ধারা ধরে রাখতে পারলে অন্তত রঙিন পোশাকে টেন্ডুলকারকে ছোঁয়ার যে সম্ভাবনা আছে, ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তিরই উঠানে সেঞ্চুরি করে আরেকবার জানালেন কোহলি!

৩৭৫ ম্যাচের ৩৬৫ ইনিংসের ক্যারিয়ারে ৩০ সেঞ্চুরি পন্টিংয়ের, সেটি কোহলি ২০০ ম্যাচে ১৯২ ইনিংসে ৩১ সেঞ্চুরির মালিকের সাথে তার অবস্থান এখন দুইয়ে, সামনে শুধুই শচিন ৪৯। টেন্ডুলকার ৩১তম সেঞ্চুরি করেছিলেন ২৭৯ ম্যাচের ২৭১ ইনিংসে যা কোহলি ৭৯ ম্যাচ কম খেলেই করে ফেললেন। ব্যক্তিগত ২০০তম ম্যাচে সেঞ্চুরি আর একজনই ডি ভিলিয়ার্স করেন।

২০০ ওয়ানডে শেষে রান,সেঞ্চুরি,ব্যাটিং গড় তিনটি আসনেই বর্তমানে নিজের করে রাখলেন কোহলি। ১৯৯৮সালে ২০০তম ওয়ানডে মাষ্টার ব্লাস্টারের রান ৭৩০৩ গড় ৪১.৯৭, ব্রায়ান লারা রান- ৭৩৭০ গড় ৪২.৬০, পন্টিংয়ের ২০০৪ সালে ২০০তম ওয়ানডে রান ৭২৪৫ গড় ৪২.৬১ছিল।

শচীন সময়কার স্লেজিং কেমন ছিলো সেটা সবার জানা কথা, কখনো সেটা শরীরের অঙ্গ-ভঙ্গি দিয়ে নয় বরং বরাবরই ব্যাটেই জবাব দিতে পছন্দ করতেন লিটল মাষ্টার। সময়ও পাল্টেছে। আধুনিক ক্রিকেট আর আগের মত নেই।

আর তাতে নতুন সংযোজন হলেন কোহলি। ব্যাটের সাথে ঠোঁট আর শরীর মাঠে প্রচুর স্লেজিংয়ে কাজে লাগান যা বিপক্ষীয় দলের খেলোয়াড়দের মানসিকভাবে মন ভেঙে দেয়। ম্যাচের রেজাল্ট নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে ঔষধ হিসেবে কাজে লাগান। এটাই হয়তো ক্রিকেটপ্রেমিদের অনেকসময় ক্ষোভের কারণ হয়।

বিরাট-শচিন, দু’জনকে এক পাল্লাতে মাপাটাও বোকামি বটে। দু’জন দু’টি ভিন্ন সময়ের ক্রিকেটার। নিজেদের সময়ের সেরাও বলতে হবে, তবে ভিন্ন মাত্রায়। মজার ব্যাপার হচ্ছে লিটল মাষ্টার অবসরে মাঠ ছেড়েছেন এই কোহলির কাঁধে চেপেই, তবে বিরাট কি আঁচ করতে পেরেছেন শেষবেলায় রুপক অর্থে দায়িত্বটা তার কাছেই অর্পণ করেছেন। বিরাট কি পারবেন শচিন হয়ে শেষ করতে?

https://www.mega888cuci.com