বিশ্বাসটা ছিল সবার ভেতরেই: মুমিনুল হক

তাঁর ক্যারিয়ারটা খুব বড় নয়। অথচ, এরই মধ্যে পেয়ে গেছেন ছয়টি টেস্ট সেঞ্চুরি। এবার তো মুমিনুল হক করে ফেললেন এক টেস্টের দুই ইনিংসে সেঞ্চুরির করার অনন্য কীর্তি। বলা যায়, তাঁর ব্যাটেই ড্র করলো বাংলাদেশ।

দুই সেঞ্চুরির কোনটা এগিয়ে?

আমি দ্বিতীয় ইনিংসেরটা এগিয়ে রাখব। কারণ ওটা ম্যাচ বাঁচানো ইনিংস ছিলো।

তাহলে প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরির পর বেশি উদযাপন করলেন কেন?

আসলে ওইরকম ভাবে চিন্তা ভাবনা করিনি… সেকেন্ড ইনিংসটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আসলে আপনি যে প্রশ্ন করলেন এর উত্তর আমার কাছে নাই…(হাসি)

ব্যাপারটা কি এমন ব্যাটেই জবাব?

ওইরকম কোন চিন্তা ভাবনা ছিল না। কোন প্লেয়ারের পক্ষেই এরকম চিন্তা ভাবনা করা সম্ভব না যে টার্গেট করে এটা ওটা করব।

টিম টক কি ছিল?

আমরা যেটা করেছি যে এই পরিস্থিতিতে এর আগেও আমরা পড়েছিলাম। এসব পরিস্থিতিতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো মানসিক দৃঢ়তা। নিজের কাছে বিশ্বাস রাখা। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে, টিম বয় এমনকি আপনারা যা সাংবাদিক আছে তারাও। পুরো দেশের মানুষের বিশ্বাস ছিল সত্যি কথা। সবাই বিশ্বাস করেন তাহলে জিনিসটা আসবে। রিয়াদ ভাইয়ের সঙ্গে আলাপ করেছি, রিয়াদ ভাইও একই কথা বলছে। এইটা নিয়ে কারো মধ্যে ডাউট যেন না থাকে যে আমরা এই ম্যাচটা সেইভ করতে পারব না। আমরা টিমের মধ্যে যেভাবে কথা বলছি, জিনিসটা এমন যে ডাউট যেন না থাকে। আমরা যেন বিশ্বাস করি। বিশ্বাসটা ছিল সবার ভেতরে।

চাপের মধ্যে ভাল করা কতটা ইতিবাচক?

চাপের মধ্যে খেলার…আপনি যদি চিন্তা করেন পুরো দিনটা খেলবেন তাহলে কিন্তু কঠিন। আমি আর লিটন যেটা করছিলাম প্রথম সেশন থেকে। সেশন বাই সেশন, এক ঘন্টা, এক ঘন্টা করে প্ল্যান করেছি।

এখন কি এটা নতুন করে শুরু হল আপনার?

আমার কাছে মনে হয় আমার জীবনের জন্য ওই জিনিসটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আপনারা কীভাবে ভাবেন জানি না তবে আমার কাছে মনে হয় এটা আমার জীবণে গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আমার মানসিকতার একটা বদল এসেছে, পরিশ্রমটা আরও বাড়ছে।

উইকেটটা কি একটু সারপ্রাইজিং?

প্রত্যাশা করছিলাম যে আরও টার্ন করবে। টার্ন হলেও যাতে আমরা সারপ্রাইজ না হই এরকম চিত্না ভাবনা ছিল। আমি যদি চিন্তা করি টার্ন হবে না, পরে যদি টার্ন হয় তাহলে সারপ্রাইজ হয়। টার্ন হলেও যেন খেলে দিতে পারি এমন সংকল্প ছিল।

এই মাঠে পাঁচ সেঞ্চুরি…

না আমার কাছে মনে হয় না যে বিশেষ কোন কারণ আছে। আর ওইভাবে চিন্তা করে নামি না যে এই মাঠে রান করি। গত দুই, তিন টেস্টে এই মাঠে কিন্তু আমার রান হয়নি। যাই হোক এখানে আসলে হয়ত রান হয়ে যায় আল্লাহর রহমতে।

এই ড্র কেমন প্রভাব ঢাকা টেস্টে?

ওই চিন্তা বাইরে ছিল। আপনি বলার মনে পড়ল। আজকেরটা আজকে। ঢাকা টেস্ট এলে তখন সেটা ভাবা যাবে।

https://www.mega888cuci.com