বাংলাদেশের স্পিনত্রয়ী

টেস্ট ক্রিকেটে নয়টি দেশের বিপক্ষে পাঁচ উইকেট নেওয়ার অনন্য কীর্তির কারণেই মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে বারবার উচ্চারিত হয়েছে সাকিব আল হাসানের নাম। তবে, অস্ট্রেলিয়াকে মাত্র ২১৭ রানে আটকে ফেলার পেছনে বাকি স্পিনারদের অবদানও কম নয়।

বিশেষ করে আলাদা করে বলতে হয় মেহেদী হাসান মিরাজের কথা। মাত্র ১৯ বছর বয়সী এই ডান-হাতি অফ স্পিনার নিয়েছেন তিন উইকেট। এর মধ্যে ছিল অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটিং অর্ডারের দুই তুরুপের তাস স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট।

আরেক বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম নিয়েছেন এক উইকেট। আর একটি উইকেট নিতে পারলেই টেস্ট ক্যারিয়ারে ৫০ টি উইকেটের মাইলফলকে পৌঁছে যেতেন তিনি। সেটার জন্য এবার অন্তত চলতি টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নয়টি উইকেটই নিয়েছেন স্পিনাররা। একটা ছিল রান আউট। দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত শেষ তিনটি টেস্টে বাংলাদেশের বোলাররা নিতে পেরেছেন ৪৮ টি উইকেট। এর ৪৭ টি ঢুকেছে স্পিনারদের পকেটে।

বোঝাই যাচ্ছে, দেশের মাটিতে বাংলাদেশের স্পিনাররা সত্যি বাঘ। ৪৭ টির মধ্যে সর্বোচ্চ ২২ টি উইকেট নিয়েছেন মিরাজ। ১৭ টি সাকিব ও আটটি তাইজুল ইসলাম। আর বাকি একটা উইকেট নিয়েছেন পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি।

https://www.mega888cuci.com