পার্টি ইজ ওভার!

দৌড় শেষ করেই জাস্টিন গ্যাটলিন বুঝে ফেললেন, প্রথম হয়ে গেছেন তিনি। নিজেকে ধরে রাখতে পারলেন না। মুখ চেপে চোখের জল আটকানোর চেষ্টা করলেন। পারলেন না।

এগিয়ে গিয়ে তৃতীয় হওয়া এক জ্যামাইকানের সামনে এসে দাঁড়ালেন। পুরো লন্ডন স্টেডিয়ামের সবাইকে অবাক করে দিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে অভিবাদন জানালেন। যেন, বলে দিতে চাইলেন – ‘এই দৌঁড়টা আমি জিতলেও আপনিই সর্বকালের সেরা, আপনিই কিংবদন্তি!’

তৃতীয় হওয়ার পরও ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের ইতিহাসে খুব কম লোকই পেয়েছেন এমন সম্মান। তবে, তৃতীয় হওয়ার লোকটার নাম যখন উসাইন বোল্ট, তখন নির্দ্বিধায় বলে দেওয়া যায় যে, এর মধ্যে কোনো বাড়াবাড়ি নেই।

শনিবার রাতে শেষ বারের মত বোল্ট নেমেছিলেন ১০০ মিটার দৌঁড়ে। বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে ১০০ মিটারেই শেষ বারের মত একক কোনো দৌঁড়ে অংশ নিতে দেখা গেল বোল্টকে।

আর এই দিয়েই বর্ণ্যাঢ্য এক অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটলো। বোল্ট নিজেই বলে দিলেন, ‘পার্টি ইজ ওভার।’ ২০০৮, ২০১২ ও ২০১৬ টানা তিনটি অলিম্পিকের ১০০ ও ২০০ মিটারে সোনা জিতেছিলেন বোল্ট। টানা তিন অলিম্পিকে এই কীর্তি আর কারো নেই। সত্যিকার অর্থেই বোল্ট এক স্বর্ণবালক।

বরাবরের মতই সংবাদ সম্মেলনে বোল্ট কোনো ভণীতা করলেন না। শনিবার রাতে দৌঁড় শেষে বলে দিলেন, ‘জয় দিয়ে শেষ করতে পারলাম না। আমি দু:খিত। তবে, সত্যি এটা দারুণ একটা যাত্রা ছিল।’

৯.৯২ সেকেন্ডে সবার আগে দৌড় শেষ করেন গ্যাটলিন। ৯.৯৪ সেকেন্ডে রূপা জিতেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিস্টিয়ান কোলম্যান। আর ৯.৯৫ সেকেন্ডে তৃতীয় হন বোল্ট। আর এরই মধ্য দিয়ে পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী পার্টির সমাপ্তি হল!

https://www.mega888cuci.com