কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ‘অধিনায়ক সংকট’

অল্প কয়েক ওভার খেলা দেখেছি।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স তখন বোলিং করছে। পঞ্চম ওভারে আল-আমিন হোসেনের প্রথম তিন বলে ফ্লেচার দুটি চার ও একটি ছক্কা মেরেছেন। চতুর্থ বলের আগে রানআপে দাঁড়িয়ে আল-আমিন, অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী এসে কি যেন বলছিলেন। দৃশ্যত, আল-আমিন কথাগুলো ‍শুনলেন বটে।

কিন্তু যেভাবে নবীর উদ্দেশ্যে (না তাকিয়ে) হাত নেড়েছেন, তাতে তার অবয়ব বলছিল, হইছে …বুঝছি (কল্পিত)।

বিপিএলের পঞ্চম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খুব কাছাকাছি গিয়ে সিলেট সিক্সার্সের কাছে হেরে গেছে সাবেক চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

আজ কুমিল্লা জিতলেও কথাগুলো বলতাম।

কুমিল্লার লাইনআপ দেখেই চমকে গেছি। আফগান ক্রিকেটার নবী কুমিল্লার অধিনায়ক!

সন্দেহ নেই, আফগানিস্তানের সাবেক অধিনায়ক অলরাউন্ডার হিসেবে টি-২০’র মারকাটারি খেলার জন্য খুব উপযোগী ক্রিকেটার।

নবীকে অধিনায়ক করার একটা অর্থ আমার মনে এসেছে (একান্তই নিজস্ব মতামত)।

দলটার দায়িত্ব কেউ নিতে চায় না!

এবার দলের নিয়মিত অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ইনজুরির কারণে তিনি খেলতে পারছেন না।

তার বাইরেও দলে ইমরুল কায়েস, অলক কাপালির মতো সিনিয়র ক্রিকেটার ছিল। এদের কেউ কেউ কুমিল্লা থেকে অর্ধ কোটির বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন (আমার জানা মতে)। অথচ এদের কেউ এগিয়ে আসলেন না।

টিম ম্যানেজমেন্ট, মালিকপক্ষ থেকে নবীকে অধিনায়ক করার সিদ্ধান্ত আসলেও তো তাদের কথা বলা উচিত ছিল। অলক কাপালি ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত অধিনায়ক। ইমরুলও অধিনায়কত্ব করেছেন টুকটাক। তাছাড়া তামিমের বদলে তো ইমরুলের অধিনায়কত্ব করার কথাই শুনছিলাম।

নবীর অধিনায়কত্বের অভিজ্ঞতা আছে ঠিক আছে, কিন্তু আরাফাত সানি, আল-আমিনদের কীভাবে উজ্জীবিত করতে হবে, তাদের শক্তির জায়গা জানেন না নবী।তাই তো আরাফাত সানি ১ ওভারে নয় রান, সাইফউ্দ্দিন ২ ওভারে নয় রান দেয়ার পর আল বোলিং করেনি (আমি জানি না ওরা ইনজুরিতে পড়েছিল কিনা)।

বিগ বাজেটের দল, দারুণ সব ক্রিকেটার আছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে। কাকে বসিয়ে কাকে খেলাবে এমন অবস্থা। এসবই অলংকার হয়ে পড়ে থাকবে যদি দলটা মাঠে ঠিকমতো উদ্দীপ্ত না হয়, পরিচালিত না হয়। সেজন্য সঠিক নেতা নির্বাচনও অত্যাবশ্যাক।

কারণ একবার সুর কেটে গেলে তা খুঁজে পাওয়া কঠিন।গত আসরের অভিজ্ঞতা তো কুমিল্লার জন্য তরতাজাই বলতে হবে।

মাত্র তো প্রথম ম্যাচ গেল। মনে হতে পারে, এক ম্যাচ বিবেচনায় অনেক কথা হয়ে গেল।

আমিও এমনটা ভাবতে চাই। দ্বিতীয় ম্যাচ থেকে জয়ের ছন্দে ফিরুক কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দলটা গুছিয়ে উঠুক। সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করুক নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলে।

– ফেসবুক থেকে

https://www.mega888cuci.com