মান-অভিমান শেষে শান্তির সুবাতাস

বলিউড হল স্বপ্ন গড়ার মঞ্চ। সেজন্যই  কি না, এখানে দূর আকাশের তারকাদের মধ্যেও বাস্তবের মানুষদের মত মান-অভিমান হয়। আবার সেই মান অভিমান ভেঙে তাঁরা এক সাথে কাজও করেন।

বলিউডে এমন বিস্তর নজীর পাওয়া যায় যেখানে একজন আরেকজনের ব্যাপারে বেফাঁস মন্তব্য করে চক্ষুশ্যূলে পরিণত হয়ে থেকেছেন লম্বা সময়। লম্বা সময়ের শীতল যুদ্ধের অবশ্য অবশ্য সেসব খুব ভালভাবেই চুকেবুকে গেছে। তেমনই কিছু ঘটনা নিয়ে আমাদের এবারের আয়োজন।

  • অভিষেক বচ্চন ও অনুরাগ কাশ্যপ

২০১৪ সালের কথা। তখন মুক্তির অপেক্ষায় ছিল ‘বোম্বে ভেলভেট’। তখন ‘কফি উইদ করণ’ অনুষ্ঠানে আনুশকা শর্মার সাথে এসে অনুরাগ কাশ্যপ বলেছিলেন, নিজের ঘরানা ভেঙে চ্যালেঞ্জিং কিছু করতে হবে অভিষেক বচ্চনকে। তাঁর এই মন্তব্য বচ্চন পরিবার সহজ ভাবে নেয়নি। সেই ঠাণ্ডা যুদ্ধ লম্বা সময় চলে।

চার বছর বাদে ২০১৮ সালে তিন বছর বাদে আবারো সিনেমায় ফিরেছেন অভিষেক। ‘মানমার্জিয়া’ সিনেমার পরিচালক আবার সেই অনুরাগ কাশ্যপই। দু’জনই বলেছেন, নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির অবসান করে ফেলেছেন তাঁরা।

  • বিধু বিনোদ চোপড়া ও মনিষা কৈরালা

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বিধু বিনোদ চোপড়া জানান, ১৯৪২: আ লাভ স্টোরির অডিশন চলাকালে তিনি ভেবেছিলেন মনিষা কৈরালার অভিনয়ের মান খুবেই বাচে। যদিও, মনিষা সেই দফায় এই ভাবনাকে ভুল প্রমাণ করেন। প্রযোজক বিধুও নিজের ভুল বুঝতে পারেন। পরে ‘সাঞ্জু’ সিনেমায় স্বয়ং নার্গিস দত্তর চরিত্র করেন মনিষা। এই সিনেমার প্রযোজকও ছিলেন বিধু বিনোদ চোপড়া।

  • শহীদ কাপুর ও সোনাক্ষী সিনহা

২০১১ সালে সোনাক্ষী সিনহার বিপরীতে একটা সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হতে গিয়েও ‘না’ বলে দেন শহীদ কাপুর। কারণ, তিনি দাবী করেন, পর্দায় নাকি শহীদের চেয়ে সোনাক্ষীকে বয়স্ক বলে মনে হবে। সোনাক্ষীও এমন কথায় ক্ষেপে গিয়েছিলেন। যদিও, পরে ২০১৩ সালে ‘আর… রাজকুমার’ সিনেমায় দু’জন জুটিবদ্ধ হন। তাদের রোমান্স বেশ প্রশংসা কুড়ায়। ওই সময়ই ‘কফি উইদ করণ’-এ এক সাথে এসেছিলেন দু’জন। বিবাদের কোনো আভাসও তখন পাওয়া যায়নি।

  • ঋষি কাপুর ও অমিতাভ বচ্চন

অমিতাভ বচ্চনকে নিয়ে একটা কঠিন সত্য খোলাসা করেছিলেন ঋষি কাপুর। তিনি বলেছিলেন ৭০-৮০’র দশকের পরিচালকরা অমিতাভের প্রতি পক্ষপাতিত্ব করতেন। কেবল অমিতাভকেই অ্যাকশ হিরো মনে করা হত। ফলে, ওই সময় নাকি অনেকেই পর্যাপ্ত সুযোগ পাননি। এই দুই কিংবদন্তি এরপর ২৭ বছর এক সাথে কাজ করেননি। ২০১৮ সালে সব জটিলতার অবসান করে ‘১০২ নট আউট’ সিনেমায় এই দুই কিংবদন্তি  এক সাথে কাজ করেন, এবং যথারীতি বাজিমাৎ করেন।

দেশিমার্টিনি অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।