ইতালি যাবেন? এই বিচিত্র আইনগুলোর ব্যাপারে সাবধান!

এমন দেশটি কোথাও খুঁজে পাবো নাকো তুমি, যেখানে অন্তত নির্দিষ্ট বিষয়ের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা নেই। তবে, সেদিক থেকে একটু বেশিই এগিয়ে আছে ইউরোপের দেশ ইতালি। দেশটিতে এমন সব ভুতুড়ে আইন আছে, যেগুলো জানা না থাকলে আসলে দেশটিতে বেড়াতে গিয়ে যে কেউ বিপদে পড়তে বাধ্য।

  • সর্বদা হাস্যোজ্জ্বল

মিলানে জরিমানা এড়াতে হলে সর্বদা মুখে হাসি ধরে রাখতে হবে। ওই এলাকায় আপনি কোনো গোমড়ামুখের মানুষ খুঁজে পাবেন না। ব্যতিক্রম হয় কেবল দুই জায়গায়, হাসপাতাল ও শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে।

  • গাড়ীতে ভালবাসার বিনিময় চলবে না

ইতালির ইবোলি শহরে আছেন। ইচ্ছে হল গাড়ীতে নিজের প্রেমিক বা প্রেমিকাকে একটু চুমু খেতে। পারবেন না। আপনাকে গুণতে হবে ৫০০ ইউরো জরিমানা। ২০০৮ সালে প্রদত্ত আইনে গাড়ীতে চুমু খাওয়াকে জননিরাপত্তার জন্য হুমকি হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

  • পোষা কুকুর নিয়ে সাবধান

তুরিনে পোষা কুকুরকে দিনে কমপক্ষ তিনবার বাড়ির বাইরে নিয়ে ঘুরিয়ে আনতে হবে। না হয়, ৫০০ ইউরো অবধি জরিমানা হয়ে যেতে পারে। পশুদের প্রতি নৃশংসতা রোধে ২০০৫ সালে এই আইন প্রনয়ন করা হয়।

  • অ্যাকুরিয়ামে মাছ রাখবেন না

আপনি কি গোল্ডফিশ ভালবাসেন? অ্যাকুরিয়ামে গোল্ডফিশ আছে? তাহলে, তাকে নিয়ে নিয়ে আপনি রোমে যেতে পারবেন না। ২০০৫ সালে আইন করে বলে দেওয়া হয়, অ্যাকুরিয়ামে কোনো মাছকে আটকে রাখা যাবে না।

  • সৈকতে প্রাসাদ নয়

এরাকলিয়া সৈকতে বালি দিয়ে প্রাসাদ বানানো যাবে না। ওখানকার কর্তৃপক্ষ মনে করে, বালির প্রাসাদ জনগণের চলাচলে বাঁধার সৃষ্টি করে। এই ভুতুড়ে আইনটি ২০০৮ সাল থেকে চালু আছে।

  • ঝর্ণায় গোসল নয়

ইতালিতে জনপরিসরে ঝর্ণার কোনো অভাব নেই। তবে, চাইলেই কেউ সেখানে গিয়ে সাঁতার কাটতে বা গোসল করতে পারবেন না। করলে, ৯০০ ইউরো জরিমানা হয়ে যেতে পারে।

  • তিনজন মানেই ভিড়

রোমের রাতের জীবন নাকি খুব আকর্ষণীয়। তবে, শহরের একটু বাইরে গেলেই আপনাকে সচেতন থাকতে হবে। তিন কিংবা তার অধিক মানুষকে যদি এক সাথে গোসল করতে দেখা যায়, তাহলে ৫০০ ইউরো অবধি জরিমানা হয়ে যেতে পারে সেখানে।

  • নকল থেকে সাবধান

আপনার কি লুইস ভুইটনের হ্যান্ডব্যাগ পছন্দ? তাহলে, আসলটা কিনুন। ভেনিস সৈকতে পাওয়া যাওয়া নকল স্বস্তা গুলো কিনবেন না। একবার ধরা পড়লে আপনাকে হাজার ইউরো জরিমানা গুণতে হতে পারে।

  • সৈকতে পিকনিক নয়

ইতালি গিয়ে যদি, আপনি সৈকতে সুন্দর-রোম্যান্টিক কোনো পিকনিক করতে চান তাহলে ক্যাপরি, পোসিত্যানো ও র‌্যাভেলো জায়গাগুলো পরিহার করুন। কারণ, সেখানে টাওয়েল বিছিয়ে নিজেদের জন্য জায়গা বানানো নিষেধ।

  • সৈকতে জুতো পরবেন না

এমনকি, ক্যাপরি সৈকতে পায়ে কোনো রকম শব্দ করে এমন জুতো পরে যাওয়া নিষেধ। কারণ, ক্যাপরি খুবই শান্তি ও নীরব জায়গা।

  • কবুতরদের খাবার দেবেন না

২০০৮ সাল থেকে ভেনিসের সেন্ট মার্কস স্কয়ারের কবুতরদের খাবার দেওয়া বেআইনি বলে ঘোষণা করা হয়েছে। কারণ, তারা ঐতিহাসিক স্থাপনা ও ভবন ও স্মৃতিচিহ্ন ধ্বংস করে। এমনকি, মনে করা হয় তারা বিভিন্ন ক্ষতিকারক রোগের জীবানু বহন করে।

– লিভিটালি ও ব্রাইট সাইড অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।