দক্ষিণী ভিলেন: এর চেয়ে ভীতিকর আর কিছু নেই!

ভিলেন ছাড়া কি ছবি জমে নাকি – এই ধারণায় আজো দক্ষিণ ভারতীয় অ্যাকশন বা ড্রামা ঘরাণার ছবিগুলোর নির্মাতারা বিশ্বাস করেন। তাই তো, সেখানে নায়ক-নায়িকা ও কেন্দ্রীয় চরিত্রের মতই গুরুত্ব পায় ভিলেন চরিত্রগুলো। তাই, দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কিংবদন্তিতুল্য ভিলেনদের কথা না স্মরণ করলেই নয়।

  • প্রকাশ রাজ

ভিলেন হিসেবে তো বটেই, দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমা জগতের এখন অবধি সবচেয়ে বড় আবিস্কারই সম্ভবত এই প্রকাশ রাজ। সেখানে তিনি সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া ভিলেন। তামিল, মালায়ালাম, তেলেগু ও কান্নাড়া – চারটি ভাষার ছবিতেই তিনি নিয়মিত মুখ। আর সাথে বলিউড তো আছেই।

  • আশীষ বিদ্যার্থী

প্রায় দুই যুগ ধরে ভারতীয় সিনেমার নিয়মিত মুখ তিনি। আশীষ বিদ্যার্থী ভারতের প্রায় সবগুলো ভাষার ছবিতে কাজ করেছেন। বাদ যায়নি বাংলা বা পাঞ্জাবী ভাষার ছবিও। নব্বই দশকে চুটিয়ে বলিউডে ভিলেন ও চরিত্রাভিনেতা হিসেবে কাজ করেছেন। যদিও, তিনি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবির ভিলেন হিসেবে।

  • সনু সুদ

বলিউডের ছবিতে শুরুটা ভিলেন হিসেবে করেননি তিনি। বরং, নায়ক হিসেবেই ক্যারিয়ার গড়ার চেষ্টা করেছিলেন মূল ধারায়। যদিও, তেলেগু ও কান্নাড়া ভাষার ছবিতে তিনি সময়ের সেরা ভিলেনদের একজন। এখন বলিউডের ছবিতেও নিয়মিত ভিলেন হয়েই আসেন।

  • সায়াজি শিনডে

তামিল ও তেলেগু ছবির জনপ্রিয় ভিলেন তিনি। বলিউডের ছবিতেও নিয়মিত দেখা যায় তাঁকে।

  • রাঘুভারান

নেতিবাচক ধর্মী চরিত্রের জন্য তিনি শতভাগ ফিট। ১০০ টিরও বেশি তামিল, তেলেগু, মালায়ালাম ও কান্নাড়া ভাষার ছবিতে কাজ করেছেন তিনি।

  • সুমান

তিনি দক্ষিণ ভারতের প্রায় সবগুলো ইন্ডাস্ট্রিতেই ছবি করেন ভিলেন হিসেবে। মনে রাখার মত পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন রজনীকান্তের সাথে ‘শিবাজি’ ছবিতে।

  • জাগাপাথি বাবু

মূলত তেলেগু ছবিতেই বেশি দেখা মিলে তাঁর। এর বাইরে কিছু তামিল ও মালায়ালাম ছবিতে কাজ করেছেন। ২৫ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে ১২০টিরও বেশি ছবি করেন তিনি।

  • সাই কুমার 

সাই ‍কুমার অবশ্য নায়কই ছিলেন। যদিও, ভিলেন হিসেবেই এখন বেশি পরিচিত তিনি। ‘থিরুনামগালাম’, ‘ইরুমবু কোট্টাই মুরাট্টু সিঙ্গাম’, ‘আদি’, ‘সামানিডু’ – সাম্প্রতিক সময়ে তাঁর করা এসব ছবিতে ভিলেন রূপেই হাজির হয়েছেন তিনি।

  • রাহুল দেব

রাহুল দেব প্রায় সব ভাষার ছবিতেই অভিনয় করেন। তিনি দক্ষিণী ছবির আধুনিক অ্যাকশন ও বানিজ্যিক ঘরানার ভিলেন।

  • কোটা শ্রীনিবাস রাও

প্রবীন অভিনেতা কোটা তেলেগু, তামিল ও কান্নাড়া ছবিতে ভিলেনের চরিত্র করেন। এটাই তাঁর বিশেষত্ব ও শক্তির জায়গা।

  • মুকেশ ঋষি

তেলেগু ছবির ইতিহাসে অন্যতম সেরা একজন ভিলেন। নেতিবাচক চরিত্র করতে তাঁর কোনো জুড়ি নেই। বলিউডেও তিনি সমান জনপ্রিয়।

  • নাসার

তিনি প্রতিভাবান অভিনেতা। তেলেগু, তামিল ও কান্নাড়া ছবিতে কাজ করেন। ভিলেন ছাড়াও চরিত্রাভিনেতা হিসেবেও জনপ্রিয়।

  • প্রদীপ রাওয়াত

তামিল, তেলেগু ও কান্নাড়া ছবি’র জনপ্রিয় ভিলেন তিনি। কাজ করেন বলিউডেও। বিশেষ করে বলতে হয় ‘গজনি’র কথা। ছবিটির দক্ষিণী ও বলিউড – দুই সংস্করণেই ভিলেন ছিলেন তিনি।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।