সাইফ আলী খান: এখন না জাগলে আর কবে!

তাঁর সবচেয়ে বড় ভক্তটিও নির্দ্বিধায় স্বীকার করে নেবেন যে, নামের প্রতি কখনোই খুব বেশি সুবিচার করতে পারেননি সাইফ আলী খান। সিনেমা বাছাই করতে আরেকটু সচেতন হলেই হয়তো বাকি তিন খানের সাথে তাঁর নামটিও উচ্চারিত হত।

২০১৩ সালের পর থেকে তাঁর ব্যবসাসফল কোনো ছবি নেই। তবে, ‘কাল হো না হো’, ‘ওমকারা’, ‘লাভ আজ কাল’ বা ‘রেস’-এ অনবদ্য কাজ করা সাইফ ২০১৮ সালে লাইম লাইটে ফিরেছেন ওয়েব সিরিজ ‘স্যাকরেড গেমস’ দিয়ে। একই বছর ‘বাজার’ ছবিটি বানিজ্যিক সফলতা না পেলেও, অভিনেতা হিসেবে নিজের জাত চিনিয়েছেন সাইফ।

সব মিলিয়ে সাইফ তাঁর ক্যারিয়ারের একটা ‘ভীতিকর’ সময়ে দাঁড়িয়ে আছেন। এই অবস্থা থেকে যেকোনো কিছুই ঘটতে পারে। হয় তিনি একেবারেই হারিয়ে যাবেন, কিংবা চূড়ান্ত সাফল্য পাবেন। ইতিবাচক দৃষ্টিকোণ থেকে চিন্তা করলে সফল হওয়ার রাস্তাটা খোলাই আছে তাঁর সামনে। কারণ, সামনে বড় কয়েকটা আলোচিত ছবি নিয়ে আসছেন তিনি।

  • আঁখে ২

অমিতাভ বচ্চন ও জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের সাথে ছবিটিতে আছেন সাইফও। আনিস বাজমি ইন্ডাস্ট্রিতে অনেককেই চরিত্রটির জন্য প্রস্তাব করেছিলেন। কিন্তু, চ্যালেঞ্জ নিতে রাজি হয়েছেন কেবল সাইফ। ছবিটির প্রথম কিস্তিতে অক্ষয় কুমার যেমন চরিত্র করেছিলেন, এবার সাইফ কাছাকাছি ঘরানার কিছু একটা করবেন বলেই অনুমান করা যাচ্ছে।

  • তানাজি: দ্য আনসাঙ হিরো

পিরিয়ডিকাল এই ছবিটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে থাকা অজয় দেবগন একজন মারাঠা যোদ্ধার চরিত্রে থাকবেন। সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে ১৬৭০ সালের প্রেক্ষাপটে। অজয়ের বিপরীতে থাকবেন কাজল। ছবিটিতে নেতিবাচক চরিত্রে থাকছেন সাইফ। যতদূর বোঝা যাচ্ছে তাতে মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেবের সেনাপতি উদয়বান রাঠোড়ের ভূমিকায় থাকবেন ‘ছোট নবাব’। ২০১৯ সালের নভেম্বরে থিয়েটারে উঠবে ছবিটি।

  • অনুরাগ বসুর ছবি

অনুরাগ বসু তারকাবহুল একটা ছবি নির্মানে হাত দিয়েছেন। এখানে সাইফ ছাড়াও আছেন অভিষেক বচ্চন। আছেন সময়ের অন্যতম প্রতিভাধর অভিনেতা রাজকুমার রাও। ছবিটির এখনো কাস্টিংয়ের কাজ চলছে। প্রোডাকশন হাউজের পক্ষ থেকে এখনো কোনো চূড়ান্ত ঘোষণা আসেনি। শোনা যাচ্ছে, সিনেমাটিতে সোনাক্ষি সিনহা ও ইশান খাত্তারের থাকার সম্ভাবনাও প্রবল।

  • জাওয়ানি জানেমান

ছবিটির ঘোষণা স্বয়ং সাইফই দিয়েছেন। এটা পারিবারিক বিনোদনমূলক একটা ছবি হতে যাচ্ছে। সাইফের নতুন প্রোডাকশন হাউজ ব্ল্যাক নাইট ফিল্মসের ব্যানারে নির্মাতার রূপে থাকছেন নিতিন কাক্কার। সাইফের মেয়ের চরিত্রে কোনো নবাগত নায়িকার থাকার সম্ভাবনাও কথা শোনা যাচ্ছে। ২০১৯ সালের শেষ নাগাদ ছবিটি মুক্তি পেয়ে যাবে।

দেশিমার্টিনি অবলম্বনে

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।