বাংলা ছবি: আসছে সোনালি দিন, ঘুরে দাড়ানোর সময়

চলচ্চিত্রের সোনালী দিন গত হয়েছে অনেক আগেই, মাঝে মাঝে বছরে দুয়েকটি সিনেমা সাড়া ফেললেও নিয়মিত না হওয়ায় প্রভাব ফেলেনি। এই বছর অর্থাৎ ২০১৯ সাল পর্যন্ত বলতে গেলে হতাশার বছর, যদিও সামনের দুই মাসে ‘ন ডরাই’, ‘বিশ্বসুন্দরী’র মত অপেক্ষমান সিনেমা আছে যেগুলো সিনেমার ব্যবসার গতি বাড়িয়ে দিতে পারে। ‘ইতি তোমারই ঢাকা’, ‘কাঠবিড়ালী’ চলচ্চিত্রগুলোও নিশ্চয় প্রশংসিত হবে।

২০১৯ এর তুলনামূলক ব্যর্থতা পেরিয়ে ২০২০ সালে আসছে আশায় বুক বাঁধা অতি প্রতিক্ষীত সিনেমা। যেইগুলি সাফল্য পেলে আমাদের প্রিয় সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবে। তেমনি কিছু আগ্রহ জাগানিয়া সিনেমা নিয়ে এই বিশেষ আয়োজন।

  • মিশন এক্সট্রিম

ঢাকা অ্যাটাকের বিশাল সাফল্যের পর একই প্রযোজনা সংস্থাই আনছে ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি। সিনেমাটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ বেশ তুঙ্গে। আগের সিনেমার মতো এই সিনেমাতেও আছেন আরেফিন শুভ, তাসকিন আহমেদ, শতাব্দী ওয়াদুদেরা। সঙ্গে আছে ঐশী, মনোজ কুমার, ইরেশ যাকের, সৈয়দ নাজমুস সাকিব-সহ আরো অনেকে। তবে পরিচালক পরিবর্তিত হয়ে এই সিনেমার পরিচালক হিসেবে অভিষিক্ত হচ্ছেন ফয়সাল আহমেদ। যার জন্য এই সিনেমাটি উপভোগ্য করে তোলার জন্য সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আশা করছি সফল হবেন। সিনেমাটির মুক্তির তারিখ এখনো জানানো হয়নি।

 

  • অপারেশন সুন্দরবন

সুন্দরবনের জলদস্যু নির্মূল নিয়ে র‍্যাবের সার্বিক সহযোগিতায় নির্মিত হচ্ছে দীপঙ্কর দীপন পরিচালিত ‘অপারেশন সুন্দরবন’। বেশ প্রচারনা করেই সিনেমাটি দর্শকদের সামনে পরিচিত করা হয়েছে, আশা করছি সিনেমা নির্মানে কোনো কার্পণ্য বোধ করবেন না কলাকুশলীরা। তারকাবহুল এই সিনেমার মধ্য দিয়ে অনেকদিন বাদে সিনেমায় ফিরেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক রিয়াজ। সঙ্গে আছেন চলতি সময়ের সবচেয়ে আস্থাভাজন নায়ক সিয়াম আহমেদ। সাথে আছেন নুসরাত ফারিয়া, রোশান,তাসকিন, মনোজ কুমার-সহ আরো অনেকে। সিনেমাটি আগামী বছরের ঈদ উল আযহায় মুক্তি পাবে।

  • পাপ পূন্য

মনপুরা, স্বপ্নজালের পর গিয়াসউদ্দিন সেলিমের লাভ থ্রিলজি ‘পাপ পূন্য’ মুক্তি পাবে আসছে ভালোবাসা দিবসে। মফস্বল অঞ্চলের ভালোবাসাকে কেন্দ্র করে নির্মিত এই সিনেমা দিয়ে অনেক বছর পর অভিনয়ে ফিরছেন সবার প্রিয় আফসানা মিমি, আরো আছেন চঞ্চল চৌধুরী, সিয়াম, ফজলুর রহমান বাবু।

  • হাওয়া

নন্দিত টিভি নাটক ও বিজ্ঞাপন নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমন প্রথমবারের মত নির্মাণ করছেন সিনেমা ‘হাওয়া’। সমুদ্রের মাঝে দু:সাহসিক যাত্রা নিয়ে এই সিনেমায় প্রধান চরিত্রে আছেন চঞ্চল চৌধুরী, শরিফুল রাজ-সহ আরো অনেকে। বর্তমানে সব গোপনীয়তা রক্ষা করে সমুদ্রে শূটিং করছে এই সিনেমার ইউনিট।

  • শান

মুক্তির তারিখ ঠিক করে সিনেমা শুরু করা আমাদের দেশে ঠিক প্রচলিত নয়,তবে এই ধারনাকে পাশ কাটিয়ে আগামী ঈদ উল ফিতরে মুক্তি দেবার লক্ষ্যে পুলিশ থ্রিলার ‘শান’। পরিচালনায় আছেন নবীন নির্মাতা এম রহিম। সিয়াম,পূজা ও তাসকিন অভিনীত সিনেমাটি নিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ দর্শকালোচিত।

  • পরাণ

এই মুহুর্তের সবচেয়ে আলোচিত পরিচালক রায়হান রাফি আসছে ভালোবাসা দিবসেই ত্রিভুজ প্রেমের গল্প নিয়ে আসছেন ‘পরাণ’ সিনেমাটি। সিনেমাটিতে ইতোমধ্যেই শরিফুল রাজের লুক বেশ সাড়া ফেলেছে সঙ্গে আছেন বিদ্যা সিনহা মীম ও ইয়াশ রোহান। দর্শকরা অধীর আগ্রহে আছে সিনেমাটির জন্য।

  • ঢাকা ২০৪০

সিনেমার নায়ক বাপ্পী চৌধুরী – এইটুকুই শুধু হতাশার। তবে নির্মাতা যখন দীপঙ্কর দীপন তখন আশা রাখাই যায়। সঙ্গে আছে তিশা ও নুসরাত ফারিয়া।

  • বিউটি সার্কাস

অনেকদিন ধরেই আটকে আছে মাহমুদ দিদারের ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমাটি, তবে দর্শকরা মুক্তির অপেক্ষায় আছেন। জয়া আহসান অভিনীত এই সিনেমার টিজার সবাই পছন্দ করেছিল। এই সিনেমার ব্যবসায়িক ফলাফল কি হবে সেটা সময় হলেই জানা যাবে, তবে যারা দেখবেন সবাই মুগ্ধ হবেন এই আস্থা রাখাই যায়।

এছাড়া রায়হান রাফীর নাম ঘোষণা হওয়া স্বপ্নবাজি, ইত্তেফাক সিনেমা আসতে পারে আগামী বছর। শাকিব খান ও নিশ্চয়ই তাঁর দর্শকভক্তদের জন্য বিশেষ কিছু নিয়ে সিনেমা নিয়ে হাজির হবেন প্রেক্ষাগৃহে।

সিনেমাগুলো যদি ঠিকঠাক ভাবে প্রচারনা করে দর্শকদের মাঝে আগ্রহ বাড়ানো যায় তবে নিশ্চিত ভাবেই সিনেমাগুলো প্রেক্ষাগৃহে সাড়া ফেলবে। এই সিনেমাগুলোর সাফল্যে আমাদের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে ফিরে আসবে সোনালী দিন সেই অপেক্ষায় আছি। তবে, হ্যাঁ সিনেমার কলাকুশলীদের ও সিনেমাটিকে দর্শকদের কাছে উপভোগ্য করে তুলতে যথাসাধ্য সচেষ্ট থাকবেন,এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। দর্শকদের আশাভঙ্গ না হলে সিনেমা দেখতে বারবার প্রেক্ষাগৃহে থাকবেন।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।