সিনেমাগুলো আদৌ আর মুক্তি পাবে না!

বলিউডে প্রতি বছর অসংখ্য ছবি মুক্ত পায়। কোনোটা ব্যবসা করতে পারে, অধিকাংশই পারে না। আবার বলিউডে এমন অনেক আলোচিত ছবিও আছে যেগুলো কখনো আলোর মুখ দেখেনি। সিনেমাগুলোর কাস্টিং হয়েছিল, আনুষ্ঠানিক পোস্টার বের হয়েছিল, অনেক ক্ষেত্রে মুক্তির দিনক্ষণও আগাম জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, কাজের কাজ হয়নি। ভবিষ্যতেও এই ছবি গুলো মুক্তি কোনো সম্ভাবনাই নেই। এমন কিছু ছবি নিয়েই আমাদের এবারের আয়োজন।

  • পানি

আগামী সময়ের পৃথিবীতে পানির সংকটের কারণে যে বিপর্যয়ের মধ্যে পড়তে হবে – এমন এক প্লট নিয়ে পরিচালক শেখর কাপুর একটি সাইন্স ফিকশন ছবি তৈরি করতে চেয়েছিলেন। প্রথমে সিনেমাটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে ছিলেন হৃত্বিক রোশক। পরে তাঁকে সরিয়ে নেওয়া হয় সুশান্ত সিং রাজপুতকে। কিন্তু প্রোডাকশনজনিত সমস্যা ও বিভিন্ন ডিলের কারণে ছবিটি বন্ধ হয়ে যায়। সিনেমাটির প্রযোজনা ও সঙ্গীতের দায়িত্বে ছিলেন যথাক্রমে আদিত্য চোপড়া ও এ আর রহমান।

  • সন্স অফ সর্দার

১৮৯৭ সালে ব্রিটিশদের বিপক্ষে বিখ্যাত ‘ব্যাটেল অফ সারাগ্রহী’ নিয়ে এটা ছিল অজয় দেবগনের বিশাল বাজেটের এক ড্রিম প্রোজেক্ট। কিন্তু অজয় ‘তানাজি’ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে যাওয়ায় অজানা কারণে এই ছবিটির কাজ আর শুরুও করা হয়নি। তবে, ব্যাটল অব সারাগ্রহী নিয়ে আরো দু’টি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এই বছরই মুক্তি পাবে রণদ্বীপ হুডা ও ড্যানি ডেনজোঙপা অভিনীতি ‘ব্যাটেল অব সারগ্রহী’। আর আসছে বছরের হোলিতে এক ঘটনা অবলম্বনে অক্ষয় কুমার অভিনীত সিনেমাটির নাম ‘কেসারি’।

  • ক্যাপ্টেন নাওয়াব

ইমরান হাশমীর নিজস্ব প্রযোজনায় এটা একটি পলিটিকাল থ্রিলার সিনেমা হওয়ার কথা ছিল। সিনেমাটি একজন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তার ওপর নির্মিত যিনি ভারত ও পাকিস্তান দুই সেনাবাহিনীর হয়ে কাজ করেন। অ্যান্থনীয় ডি’সৌজার পরিচালনায় ছবির শ্যুটিংও শুরু হয়। তবে, ভারতীয় সেনাবাহিনী ছাড়পত্র দিতে অস্বীকার জানায়। তাঁদের মতে এটা পাক-ভারত সম্পর্কে আরো জটিলতা সৃষ্টি করবে। ২০১৭ সালের নভেম্বরে সিনেমা মুক্তির সম্ভাব্য তারিখ ছিল। সিনেমাটির প্লটই ছাড়পত্র না আসায় কাজ বন্ধ হয়ে যায়। ইমরানও ‘চিট ইন্ডিয়া’ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন।

  • ক্র্যাক

নীরাজ পান্ডে পরিচালিত ও অক্ষয় কুমার অভিনীত এই ছবিটি গত বছরের ১৫ আগস্ট, মানে ভারতের স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্ক্রিপ্ট নিয়ে ক্রুদের মধ্যে ঝামেলা হওয়ায় ছবিটির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে, সিনেমটির কাজ মাধপথেই বন্ধ হয়ে যায়।

  • মুন্না ভাই চালে আমেরিকা

সঞ্জয় দত্ত অভিনীত ও রাজকুমার হিরানী পরিচালিত জনপ্রিয় মুন্না ভাই সিরিজের তৃতীয় কিস্তি এটি। মজার বিষয় এই ছবিটির একটি টিজারও মুক্তি পেয়েছিল। কিন্তু স্ক্রিপ্ট রেডি না থাকায় ও সঞ্জয়ের কারাবাসের কারণে ছবিটি আর আলোর মুখ দেখেনি। পরিচালক হিরানীও ব্যস্ত হয়ে যান ‘থ্রি ইডিয়টস’ নির্মানে। এখন আবার নতুন করে মুন্না ভাইয়ের তৃতীয় কিস্তি নির্মানের আলোচনা চলছে। তবে, এবারো ‘মুন্না ভাই চালে আমেরিকা’ নির্মানের কোনো পরিকল্পনা নেই। বলা যায়, এই সিনেমাটা ভেস্তেই গেল।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।