আমাদের তো তামিম ইকবাল নেই!

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান খেলোয়াড় আমিনুল। চমৎকার লেগ স্পিন করে ছেলেটা। এইতো কিছুদিন আগে’ই সবাইকে বিমোহিত করে রেখছিল মায়াবী স্পিনে! ভারত সফরে গিয়ে বেশ প্রশংসাও পেয়েছিল।

জাতীয় দলের এই ক্রিকেটারের বাবা’র প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট শুরু হবার পর সে হাসপাতালে হাসপাতলে ঘুরে কোথাও তার বাবা’কে ভর্তি করাতে পারে নাই। শেষমেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের সহায়তায় একটা হাসপাতালে ভর্তি করানো গিয়েছে।

তাহলে আমার-আপনার বাবা-চাচারা কিভাবে চিকিৎসা পাবে?

আমরা তো জাতীয় দলে খেলি না। কেউ তো আমাদের চেনে না। আমাদের তো তামিম ইকবাল নেই!

আমরা কি তাহলে বেঘোরে মারা যাবো?

আজ’ই না পত্রিকায় পড়লাম সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী’কে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাবার ব্যবস্থা হচ্ছে তার চিকিৎসার জন্য?

পরশু’ই না জানতে পারলাম এক মন্ত্রী এবং এক সাবেক মেয়রকে বিশেষ বিমানে করে ঢাকায় এনে সিএমএইচে ভর্তি করানো হয়েছে?

চিকিৎসা কি কেবল মন্ত্রী-এমপিরাই পাবে?

এখন প্রশ্ন হচ্ছে- এদের চিকিৎসার খরচ কে দিচ্ছে? সরকার? যদি সরকার দিয়ে থাকে, তাহলে সরকার সেই টাকা কই থেকে পেয়েছে?

আমার-আপনার ট্যাক্সের টাকা নিশ্চয়। চিন্তা করে দেখুন, আমার আপনার ট্যাক্সের টাকায় এরা চিকিৎসা পায়, আর আমাদের বাপ-চাচারা বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে।

হয়ত বলবেন – এরা নিজেদের টাকায় চিকিৎসা করাচ্ছে।

এতো টাকা এরা কোথায় পায় যে প্রাইভেট বিমান ভাড়া করে বিদেশে চিকিৎসা করানোও সম্ভব?

উত্তর খুব সোজা! কয়দিন আগে সিকদার ভাইদের কথা নিশ্চয় ভুলে যাননি। কিভাবে ব্যাংকের এমডিকে হুমকি দিয়েছিল- টাকা না দিলে আজীবনের মতো খোঁড়া করে দিবে!

কষ্ট করে মানুষ গুলোকে খোঁড়া বানিয়ে আর লাভ কি! আপনারা তো পুরো দেশটাকেই খোঁড়া বানিয়ে রেখেছেন।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।