পাঠভ্যাস বাড়ানোর অভিনব উদ্যোগ

সতেরো কোটি মানুষের দেশে পাঠ্যবইয়ের বাহিরের পাঠক মাত্র পৌনে তিন কোটির কাছাকাছি। যেখানে সঠিক জ্ঞান চর্চা এবং সাহিত্য ক্ষুধার মূল উপাদান বই সেখানে পাঠক সংখ্যা যদি হয় পৌনে তিন কোটি তাহলে সতেরো কোটি ভালো মানুষের আশা কি করে করা যায়। মূলত সাহিত্য অঙ্গনে সুস্থধারার একটি নতুন পথ সৃষ্টির লক্ষ্যেই নতুন প্রকাশনী ‘উপন্যাস প্রকাশন’ ভিন্নধর্মী এক লেখক পাঠক খোঁজার আয়োজন করেছে।

‘সেরা পাঠক খুঁজছি, সেরা লেখক খুঁজছি’  শিরোনামের এই আয়োজনের মাধ্যমে তারা খুঁজে বের করে নিতে চান সেরা পাঠককে, সেরা লেখককে। কেবল তাই নয়! লেখক, পাঠকের পাশাপাশি প্রচ্ছদশিল্পীও যেন কাজের সঠিক মূল্যায়ন পান সেটিই তারা চান। এ ব্যাপারে উপন্যাস প্রকাশনের কর্ণধার সৈয়দ মোঃ রিয়াজ মাহমুদ বলেন, ‘আমরা ঠিক করেছি আমরা একটি পথের সৃষ্টি করবো , যেই পথে পাঠক, লেখক, প্রকাশক সমান অধিকার নিয়ে হাঁটতে পারবেন। যেখানে একজন প্রচ্ছদ শিল্পী বুক ফুলিয়ে হাঁটতে পারবে। কারো কোন অভিযোগ থাকবে না। কারো কোন অজুহাত থাকবে না। সবাই একই পথের পথিক হয়ে হাঁটবে।’

ইতোমধ্যে উপন্যাস প্রকাশনের পক্ষ থেকে ফেসবুকে আয়োজনের ইভেন্ট শেয়ার করা হয়েছে। পাঠকরা নিজ পছন্দের বাঙালি সাহিত্যের যেকোনো উপন্যাস নিয়ে সমালোচনা/রিভিউ করে পাঠাতে পারবেন। পাঠকদের পাঠানো সমালোচনা/ রিভিউ থেকে প্রাথমিক যাচাই বাছাই শেষে ছয়টি ধাপে সেরা ছয় পাঠক নির্বাচন করা হবে। নির্বাচিত সেরা ছয় পাঠক থেকে আরো তিনটি ধাপে সর্বশেষে সেরা তিন পাঠক নির্বাচন করা হবে।

‘সেরা পাঠক নির্বাচন’ আয়োজন হবে ২৬ মার্চ শীতলক্ষ্যা নদীতে সাজসজ্জীত ডিঙ্গি নৌকায়। এই আয়োজনের অতিথি হিসেবে কারা থাকবেন তা আপাতত চমক হিসেবেই রেখেছেন তারা।

বই পড়ায় উৎসাহ প্রদান স্বরূপ সেরা ষষ্ঠ, পঞ্চম এবং চতুর্থ স্থান নির্বাচিত হওয়া পাঠকরা ‘উপন্যাস প্রকাশন’ এর সৌজন্যে রকমারি.কম এর মাধ্যমে পাবেন আগামী তিন বছর মাসিক কিস্তিতে নিজ পছন্দের একটি করে উপন্যাস এবং সেরা তিন পাঠক ‘উপন্যাস প্রকাশন’ এর সৌজন্যে রকমারি.কম এর মাধ্যমে পাবেন আগামী তিন বছর মাসিক কিস্তিতে নিজ পছন্দের দুটি করে উপন্যাস।

লেখক নির্বাচনের ক্ষেত্রে তরুণ লেখকদের পাঠানো পান্ডুলিপি থেকে প্রাথমিক তিনটি ধাপে পান্ডুলিপি বাছাই পর্ব শেষে, সেরা তিন পাঠক সেরা তিন করে সেরা নয় পাণ্ডুলিপি নির্বাচন করবেন। তারপর আরো তিনটি ধাপে প্রত্যেকে সেরা এক করে সেরা তিন পাণ্ডুলিপি নির্বাচন করবেন। সর্বশেষ আরো তিনটি ধাপে তারা সম্মিলিতভাবে সেরা এক পাণ্ডুলিপি নির্বাচন করবেন। সেরা পাণ্ডুলিপিই হবে সেরা উপন্যাস। সেরা উপন্যাস এর লেখকই হবেন সেরা লেখক। সেরা লেখক ঘোষণা করা হবে ৩০ এপ্রিল।

নির্বাচিত সেরা উপন্যাসের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান হবে আগামি ২৫ মে, বুড়িগঙ্গা নদীতে সাজসজ্জীত ডিঙ্গী নৌকায়। নির্বাচিত সেরা উপন্যাস প্রকাশিত হবে ২৭ মে। নিজেদের কাজের স্বচ্ছ অবস্থান সম্পর্কে উপন্যাস প্রকাশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় থাকা নূরে নিশীতা মিতু বলেন, ‘যারা নির্দিষ্ট কোন সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে কাজ করে তাদেরকে বলা হয় উদ্যোক্তা। আর যারা প্রতি একশো টাকায় বিশ টাকা লাভের চিন্তা করে তাদেরকে বলা হয় ব্যবসায়ী। দয়াকরে আমাদের ভিন্ন ধারার এই উদ্যোগকে সম্পূর্ণ ব্যবসায়ীক চিন্তার মনে না করার অনুরোধ রইলো।’

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।