ভিন্ন পরিচয়ে কতটা সফল তাঁরা?

রুপালি জগতের তারকারা আমাদের অনেকভাবেই অনুপ্রাণিত করেন। পর্দায় তাঁদের তুখোড় সব চরিত্র দেখে যেমন দর্শক মুগ্ধ হয়, অনুপ্রেরণা পায় আবার পর্দার বাইরের কাজটাও প্রশংসনীয়।

কয়েকটা বলি। আমির খান ভাল দাবা খেলতে জানেন। সাইফ আলী খান পেশাদারদের মত গিটার বাজান। কঙ্গনা রনৌতের রান্নার হাত খুব ভাল। টুইঙ্কল খান্না অভিনয় ছেড়ে রীতিমত সাহিত্যিক বনে গেছেন। শিল্পা শেঠির রান্না নিয়ে বই আছে। সালমান খানের পেইন্টিংয়ের প্রদর্শণী পর্যন্ত হয়।

তবে, উল্টো চিত্রও আছে। কারো কারো ক্ষেত্রে পর্দার বাইরে ভিন্ন কিছু না করাই ভাল। যাদের কথা বলছি, তাঁরা ভিন্ন কিছু করতে গিয়েই ‘ধরা’ খেয়েছেন।

  • সালমান খান

২০১৫ সালে ‘হিরো’ সিনেমায়সালমান খানের নিজের কণ্ঠে গাওয়া ‘ম্যায় হু হিরো তেরা’ গানটা বেশ জনপ্রিয়তা পায়। যদিও, ২০১৮ সালে ‘রেস থ্রি’ সিনেমায় সালমানের লেখা ‘সেলফিশ’ গানটা দর্শক প্রত্যাখ্যান করেছে। সালমানের বাবা সেলিম খান হলেন বলিউডের সবচেয়ে বড় হিট গুলোর একটি ‘শোলে’র স্ক্রিপ্ট লেখক। বোঝাই যাচ্ছে, সালমান বাবার গুন সামান্যই পেয়েছেন।

  • সোনাক্ষী সিনহা

পর্দায় তিনি মন্দ নন। তবে, বিপত্তি বাঁধে গান গাইতে গেলেই। সোনাক্ষী সিনহার ‘আজ মুড ইশাকাহোলিক হ্যায়’ গানটা শ্রোতারা গ্রহণ করেনি। বোঝাই যাচ্ছে এই স্টার কিডের ক্যারিয়ারের প্ল্যান ‘বি’ টা মোটেও মজবুত নয়।

  • ববি দেওল

ক্যারিয়ারে অনেক উত্থান-পতন দেখা ববি দেওল একবার দিল্লীর একটা নাইট ক্লাবে ডিজে হিসেবে হাজির হলেন। সেখান থেকে তাঁর ফিরতে হল লজ্জা নিয়ে। কারণ, আগত অতিথিরা খরচের অর্থ রিফান্ড চেয়ে বসেছিল। পর্দায় ‘থ্যাঙ্ক ইউ’, ‘শাকা লাকা বুম বুম’ বা ‘চামকু’ সিনেমার ক্ষেত্রেও অবশ্য ববির একই অভিজ্ঞতা হয়েছিল।

  • অর্জুন রামপাল

অর্জুন রামপাল একজন ‘কনফিউজিং’ অভিনেতা। ‘রক অন’ বা ‘রাজনীতি’র মত সিনেমায় তাঁর কাজে দর্শকরা মুগ্ধ হয়েছেন। আবার এই অর্জুন রামপালই অরুণ গাওলির বায়োপিক ‘ড্যাডি’-তে চূড়ান্ত ব্যর্থ। অনেকে অবশ্য বলে অর্জুন নিজে এই ছবির স্ক্রিপ্ট লিখতে গিয়েই বিপদটা ডেকেছেন। প্রতিষ্ঠিত কেউ লিখলে হয়তো চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো।

  • মুকুল দেব

অভিনেতা হিসেবে তিনি বিখ্যাত কেউ না হলেও বেশ পরিচিত। এক কালে ‘দস্তক’ সিনেমায় তিনি রোম্যান্স করেন স্বয়ং সুস্মিতা সেনের সাথে। একালে তিনি ‘আর… রাজকুমা ‘, ‘সন অব সর্দার’-এর মত সিনেমা করেছেন। টেলিভিশনেও কাজ করেন নিয়মিত।  তবে, ‘ওমের্তা’র স্ক্রিপ্ট লিখতে যাওয়াটা তাঁর ঠিক হয়নি। সেজন্যই রাজকুমার রাওয়ের অনবদ্য অভিনয় ও হানসাল মেহতার এত গবেষণার পরও সিনেমাটি ভাল স্ক্রিপ্টের অভাবে বক্স অফিসে সাফল্য পায়নি।

আরো পড়ুন

দেশিমার্টিনি অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।