শুধুই বিচ্ছেদ, বিবাদ নয়!

তারকাদের রোমান্সের সম্পর্কটাই স্বপ্নময়। যখন, এক সাথে থাকেন ভক্তরা তাঁদের ভালবাসার গল্পটা জানতে চায়। সময়টাতে তাঁদের যেন কোনো ভাবেই আলাদা করা যায় না। তবে, জীবন তো আর রূপকথা নয়। তাই তাঁদেরও মনোমালিন্য হয়। দু’টি পথ চলে যায় দু’দিকে বিচ্ছেদেই, শান্তি খুঁজে পান তারকারা। যদিও, তখনও সম্পর্ক একটা থাকেই। অনেক ক্ষেত্রেই তখন এমন হয় যে, একই ছাদের নিচে না থাকলেও বন্ধুত্বটা টিকে থাকে।

  • আমির খান ও রিনা দত্ত

দীর্ঘ ১৬ বছর এই দম্পতি সংসার করেছেন। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক-জননী তারা। আমির এখন কিরণ রাওকে বিয়ে করে সংসারী হলেও প্রথম স্ত্রীর সাথে সুসম্পর্ক রেখেছেন। এমনকি ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর প্রিমিয়ারেও এসেছিলেন রিনা। সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে বরাবরই থাকে রিনার সরব ‍উপস্থিতি। শুধু তাই নয়, কিরণের সাথেও রিনার বোঝাপড়া দারুণ।

  • মালাইকা অরোরা ও আরবাজ খান

১৮ বছরের লম্বা বৈবাহিক সম্পর্কের ইতি ঘটিয়ে বিচ্ছেদ নিয়েছেন মালাইকা ও আরবাজ। তবে, তাঁদের সম্পর্ক ছিন্ন হয়নি, বরং সেটা নতুন একটা রূপ পেয়েছে। এক সাথে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রায়ই দেখা যায় দু’জনকে। সন্তানকে সময় দেন, একে অন্যের পারিবারিক অনুষ্ঠানগুলোতে যাওয়া-আসা করেন।

  • ডিম্পল কাপাডিয়া ও রাজেশ খান্না

বলিউডের ডিভা ও সবচেয়ে বড় তারকা – ডিম্পল ও রাজেশের বিয়েটাই ছিল রূপকথার মত একটা গল্প। যদিও, ১০ বছর পর সেই সম্পর্কের শেষ হয়। যদিও, সন্তানদের মুখের দিকে তাঁকিয়ে দু’জন কখনোই নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক ছিন্ন করেননি। এমনকি রাজেশ খান্না যখন ২০১২ সালে মারা যান তখনও পাশে পেয়েছিলেন সাবেক স্ত্রী ডিম্পল কাপাডিয়াকে।

  • ফারহান আখতার ও অধুনা ভবানী

প্রতিভাবান তারকা ফারহান আখতার ২০১৬ সালে নিজের ১৬ বছরের বৈবাহিক সম্পর্কের ইতি টানেন। ডিভোর্স দেন স্ত্রী অধুনা ভবানীকে। যদিও, এক মাত্র মেয়ের জন্য নিজেদের মধ্যে আজো সুসম্পর্ক ধরে রেখেছেন দু’জন।

  • হৃতিক রোশন ও সুজান খান

দু’জন যখন আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সেটা ভক্তদের জন্য রীতিমত আকাশ থেকে পড়ার একটা ব্যাপার ছিল। যদিও, আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হলেও আজো তাঁরা ভাল বন্ধু। এক সাথে সন্তানকে সময় দেন, ছুটিতে বাইরে ‍ঘুরতে যান। স্যোশাল মিডিয়াতে হৃতিককে ট্যাগ করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান সুজান।

  • কঙ্কনা শেন শর্মা ও রণবীর শোরে

২০১৩ সালে বিয়ে করেছিলেন। একটা পুত্র সন্তানও হয়। কিন্তু, ২০১৫ সালে কঙ্কণা ও রণবীরের বিচ্ছেদ হয়। যদিও, বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে ছেলের প্রতি দায়িত্ব পালনে কোনো কমতি রাখছেন না তারা। এমনকি, বিচ্ছেদের পরই কঙ্কনার নির্মাতা হিসেবে প্রথম ছবি ‘ডেথ ইন দ্য গাঞ্জ’-এ কাজ করেন রণবীর।

  • অমৃতা সিং ও সাইফ আলী খান

কারিনা কাপুরকে বিয়ে করার পরও সাবেক স্ত্রী অমৃতা সিংয়ের সাথে বিদ্বেষপূর্ণ সম্পর্ক নেই সাইফের। দু’জনই নিজেদের মধ্যে আন্তরিকতার একটা সম্পর্ক ধরে রেখেছেন। তারা বেশ সফলতার সাথেই নিজেদের এক ছেলে ও এক মেয়েকে বড় করে তুলেছেন।

– দেশিমার্টিনি অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।