মিস নাইজেরিয়া ছাড়া বিয়েই করেন না এই ফুটবলার!

বীরেন্দ্র শেবাগ টুইটারে প্রচণ্ড বিরক্তিকর মাত্রায় রসিক একজন মানুষ। গেল মে মাসে তিনি টুইট করেছেন, ‘১৩ ভার্সন আন-ইন্সটল করে ১৪ ভার্সন ইন্সটল করলেন। মানে স্ত্রীকে আপনি ফোনের সফটওয়্যারের মত আপডেট করলেন। কিন্তু, এমানুয়েল বছর বছর এই আপডেট বন্ধ করেন। প্লিজ ১৫-ভার্সনটা আর আমরা দেখতে চাই না।’

এই টুইটের মর্মদ্ধার করা হল নাইজেরিয়ান এক ফুটবলারের বিয়ের খবরে। তিনি হলেন এমানুয়েল এমেনিকে। সেই মে মাসেই তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। পাত্রী হলেন ২৩ বছর বছর বয়সী ইহেওমা এননাদি। লম্বা সময় প্রেম করার পর নিজেদের সম্পর্কের পরিণতি টেনেছেন তারা।

এননাদির আরেকটি পরিচয় হল তিনি ২০১৪ সালে নির্বাচিত মিস নাইজেরিয়া। আর এখানে বড় ব্যাপার হল, নাইজেরিয়ার ৩১ বছর বয়সী স্ট্রাইকার এমেনিকের প্রথম স্ত্রী এজিনি আকুডো আনিয়াওহাও ছিলেন মিস নাইজেরিয়া।

২০১৪-এর ঠিক আগের বছর মানে ২০১৩ সালে তিনি এই খেতাব জয় করেন। সেজন্যই তো, উপমহাদেশের জন্য প্রায় অচেনা ফুটবলারকে নিয়ে এমন রসিকতা করলেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেবাগ।

এমেনিকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ২০১৬ সাল থেকে এননাদির সাথে খোলামেলা সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন। তখনই তাঁদের বাগদান হয়। অনেকের দাবী, ২০১৩-১৪ সাল থেকেই তাঁরা প্রেমের ভেলায় ভাসছেন। ২০১৭ সালে তাঁদের কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

যদিও বিষয়টাতে স্যোশাল মিডিয়ার ব্যবহারকারীরা বেশ ‘মজা নিচ্ছেন’। কেউ কেউ ওই শেবাগের সাথে সুর মিলিয়ে বলছেন, ‘সবাই ২০১৫ সালের মিস নাইজেরিয়াকে একটু সাবধানে থাকতে বলো!’

এমেনিকে কোনো কালেই বড় কোনো ফুটবলার ছিলেন না। ২০১১ সালে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হওয়ার পর ২০১৫ অবধি খেলেছেন ৩৭ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। গোল করেছেন নয়টি।

ইউরোপিয়ান ফুটবলেও খুব বেশি নামডাক নেই তাঁর। ২০১১ সালে তিনি যোগ দেন রাশিয়ান ক্লাব স্পার্টাক মস্কোতে। তিন মৌসুমে সেখানে ৪২ টি ম্যাচ খেলে করেন ২১ গোল। সেখান থেকে ২০১৩ থেকে চার মৌসুম কাটান তুরস্কের ক্লাব ফেনেরব্যাচে। ৬৯ ম্যাচে করেন ১৯ গোল।

২০১৬ সালে তিনি ধারে খেলতে যান ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডে। যদিও, দলটির হয়ে ১৩ ম্যাচে একবারও গোল করতে পারেননি তিনি।

২০১৭ সালে তিনি আসেন গ্রিসের ক্লাব অলিম্পিয়াকোসে। সেখান থেকে এই মৌসুমে তিনি ধারে খেলতে এসেছেন লা লিগার ক্লাব লাস পালমাসে। ক্যারিয়ারে কখনোই পারফরম্যান্সের জন্য খুব একটা লাইমলাইট না পেলেও এবার অন্তত বিয়ের সুবাদে তিনি আলোচিত হলেন!

– গোল.কম, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও ফুটবলিস্তা অবলম্বনে

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।