নেইমার কী তবে রিয়ালেই যাচ্ছেন!

প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনে (পিএসজি) তিনি মন্দ আছেন, এই কথাটা তিনি কখনোই বলেননি। তবে, ইউরোপিয়ান ফুটবলে অনেকদিন ধরেই গুঞ্জন আছে যে, ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার আবারো স্পেনে ফিরতে মরিয়া হয়ে আছেন। তার সম্ভাব্য গন্তব্য হবে সাবেক ক্লাব বার্সেলোনা কিংবা রিয়াল মাদ্রিদ।

এবার সেই সম্ভাবনার আগুনে নতুন করে ঘিঁ ঢাললেন নেইমার নিজেই। ‘প্রতিটি খেলোয়াড়েরই রিয়াল মাদ্রিদে খেলার স্বপ্ন থাকে’ – এমন এক মন্তব্য করে নতুন করে দলবদলের বাজারে উত্তেজনার সৃষ্টি করলেন নেইমার।

বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলার বর্তমানে পায়ের ইনজুরি থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার লক্ষ্যে ব্রাজিলে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে আছেন। গত ২৩ জানুয়ারি পায়ের মেটাটারসেল ইনজুরিতে আক্রান্ত হন এই পিএসজি তারকা। ২০১৭ সালে বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে যোগ দেবার পর আবারো লা লিগায় ফিরে আসার ইঙ্গিত দিলেন নেইমার।

ব্রাজিলিয়ান টেলিভিশন চ্যানেল গ্লোবোতে নেইমার বলেছেন, ‘ভবিষ্যতে সবকিছুই সম্ভব। তবে আমি এটা বলিনি যে আমি রিয়াল মাদ্রিদে যাচ্ছি। সবাই জানে যে ইতোমধ্যেই আমি বার্সেলোনায় খেলার স্বপ্ন পূরণ করেছি। রিয়াল মাদ্রিদ বিশ্বের অন্যতম বড় একটি ক্লাব। প্রতিটি খেলোয়াড়েরই এই ধরনের ক্লাবে খেলার স্বপ্ন থাকে। এই মুহূর্তে আমি প্যারিসে অনেক আনন্দে আছি।’

সাম্প্রতিক ইনজুরির পর বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসির শুভকামনা জানিয়ে বার্তা পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে নেইমার বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে সকলের সমর্থন ও সহযোগিতা আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় আমাকে শুভকামনা জানিয়ে বলেছেন আমাকে সহযোগিতা করার জন্য তিনি সবসময়ই আমার পাশে আছেন।’

২৭ বছর বয়সী পিএসজি সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপ্পে সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে নেইমার বলেছেন, ‘ফুটবলের ইতিহাসে অচিরেই সে এজন সেরা খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে প্রমান করবে। যতটা সম্ভব আমি তাকে সাহায্য করার চেষ্টা করি। লিও’র সাথে আমার যে ধরনের বন্ধুত্ব ছিল এমবাপ্পের সাথেও আমার একইধরনের সম্পর্ক রয়েছে। এমনকি আমরা ব্যালন ডি’অরের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও তা বন্ধুত্বের সম্পর্কে কোন প্রভাব ফেলবে না।’

ছয় সপ্তাহ আগে পায়ের মেটাটারসেল ইনজুরির কারণে বর্তমানে বিশ্রামে থাকা নেইমার বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে শেষ ১৬’র দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে খেলতে পারছেন না। গত মৌসুমে প্রায় একই ইনজুরির কারনে তিন মাস মাঠের বাইরে ছিলেন নেইমার। এপ্রিলে সম্ভাব্য ইউরোপীয়ান কোয়ার্টার ফাইনালের আগে নেইমারের দলে ফিরে আসার আশা করছে পিএসজি।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।