চুমু খেলেন তো বিতর্কে জড়ালেন!

বলিউড ও বিতর্ক – যেন মেলায় হারিয়ে যাওয়া দুই ভাই।  এখানে বড় কোনো ঘটনা গোপন করে ফেলার যেমন বিস্তর নজীর পাওয়া যায়, তেমনি তিলকে তাল করার লোকেরও অভাব নেই। কত-শত কারণে যে বি টাউনে বিতর্ক দানা বেঁধে ওঠে তাঁর কোনো শেষ নেই। এই যেমন স্রেফ ‘চুমু’ নিয়েই এই ইন্ডাস্ট্রিতে বেশ কিছু বিতর্ক আছে।

  • শিল্পা শেঠি ও রিচার্ড গিয়ার

২০০৭ সালের কথা। এইডস প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য জন্য একটা অনুষ্ঠান হচ্ছে দিল্লীতে। বলিউডের শিল্পা শেঠির সাথে উপস্থিত আছেন হলিউডের কিংবদন্তিতুল্য অভিনেতা রিচার্ড গিয়ার। সেই অনুষ্ঠানেই শিল্পার গালে চুমু খান রিচার্ড গিয়ার। সেই ঘটনায় ভারতের কিছু জায়গায় প্রতিবাদও হয়। ক্ষোভ প্রকাশকারীদের দাবী ছিল, শিল্পা ভারতের সংস্কৃতিকে অবমাননা করেছেন। শ্লিলতাহানির দায়ে রাজস্থান কোর্ট থেকে শিল্পার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানাও জারি হয়। যদিও, ভারতের সুপ্রিম কোর্ট পরে এই গ্রেফতারি পরোয়ানা বাতিল করে দেয়।

  • মহেশ ভাট ও পুজা ভাট

খ্যাতনামা স্টারডাস্ট ম্যাগাজিনের কভারে এক সাথে হাজির হয়েছিলেন নির্মাতা মহেশ ভাট ও তাঁর মেয়ে ও বলিউড তারকা পুজা ভাট। সমস্যা সেটা না, সমস্যা হল ছবিতে দু’জন দু’জনকে চুম্বন করছিলেন। এই ছবিটাকে ভক্তরা সহজ ভাবে নিতে পারেনি। মহেশ ভাট ছিলেন আরো এক কাঠি সরেস। আগুনে ঘিঁ ঢেলে তিনি বলেন, ‘পুজা যদি আমার মেয়ে না হত, তাহলে আমি ওকে বিয়ে করতাম।’

  • রেখা ও বিশ্বজিৎ

‘দো শিকারী’ সিনেমার একটি চুম্বনের দৃশ্য ছিল রেখা ও বিশ্বজিতের। এই দৃশ্যটা এতই সমালোচনার ঝড় তুলেছিল যে, সিনেমাটির মুক্তিই ১০ বছরের জন্য স্থগিত হয়ে যায়। এই দৃশ্যটা যখন ক্যামেরায় ধারণ করা হয় ১৯৬৯ সালে। তখন রেখার আরেকটি সিনেমা ‘আনজানা সাফার’ও সেন্সর বোর্ডে অনেক ঝামেলা পোহাচ্ছিল। পরে ১০ বছর পর ১৯৭৯ সালে ‘দো শিকারী’ সিনেমাটি মুক্তি পায়।

১৯৬৯ সালে লাইফ ম্যাগাজিনের এশিয়ান এডিশনের কভারে এই ছবিটি স্থান পায়। রেখার বয়স তখন ছিল ১৫, বিশ্বজিৎ ছিলেন ৩০-এর ওপরে। রেখা অবশ্য পরে দাবী করেছিলেন, দৃশ্যটি ধারণের সময় বিশ্বজিৎ তাঁকে জোর করে পাঁচ মিনিট ধরে চুমু খান।

  • রাখি সাওয়ান্ত ও মিকা সিং

২০০৬ সালের কথা। দিনটা ছিল পাঞ্জাবি গায়ক মিকা সিংয়ের জন্মদিন। জন্মদিনের অতি আনন্দেই কি না তিনি রাখি সাওয়ান্তকে জাপটে ধরে চুমু খেয়ে বসেন। রাখি ক্ষেপে গিয়ে মিকার নামে যৌন হয়রানীর মামলা করে বসেন। মিকা নিজের আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেছিলেন, রাখিই নাকি তাঁকে আগে চুমু খেয়েছেন।

  • বিপাশা বসু ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

কয়েক বছর আগে পর্তুগালের তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সাথে বিবিসি নাইট ক্লাবে দেখা যায় বিপাশা বসুকে। সেখানে দু’জনকে চুমু খেতেও দেখা যায়। ছবিটা ইন্টারনেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। গুজব ওঠে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক আছে। যদিও, আর কখনোই এই দু’জনকে এক সাথে দেখা যায়নি।

  • বিজয় মালিয়া ও দিপীকা পাড়ুকোন

শোনা যায়, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্থ আসর চলাকালে ২০১১ সালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর পরিচালক সিদ্ধার্থ মালিয়ার সাথে সম্পর্ক ছিল বলিউড তারকা দিপীকা পাড়ুকোনের। সেবার শাহরুখ খানের কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারিয়ে দেওয়ার পর দু’জনকে গ্যালারিতে চুম্বনে জড়াতে দেখা যায়। যদিও, কালক্রমে তাঁদের মধ্যে ছাড়াছাড়িও হয়ে যায়।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।