আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম!

প্রথম ব্রিটিশ এরপর পাকিস্তান – শাসন ও শোষণে বঙ্গভূমির ঐতিহ্যবাহী রূপটা বিলিন হয়ে গেছে অনেক আগেই। এর সামন্তবাদ, উপনিবেশবাদ কিংবা সাম্রাজ্যবাদের জাল কেটে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। স্বাধীন বাংলাদেশও কাটিয়ে ফেলেছে অনেকগুলো বছর।

এই সময়ে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থায় যেমন এসেছে পরিবর্তন, তেমনি কাঠামোগত দিক থেকেও এসেছে পরিবর্তন। বেড়েছে জনসংখ্যা, বদলেছে মানুষের চাহিদা, বদলে গেছে সংস্কৃতিও। তাই হঠাৎ করে অনেক কাল আগের ঢাকা কিং দেশের অন্য কোনো অংশের ছবি দেখলে আর চেনার উপায় থাকে না।

১৯৬৫ সালে আসাদ এভিনিউ-এর এই ভবনটিই এখন আনসার ভবন। রাস্তাটির চারপাশে নতুন ভবন আর জনচাঞ্চল্যও বেড়েছে।
১৯৭০ সালেও কত শান্ত-স্নিগ্ধ ছিল ধানমন্ডি লেক। আজ দুষণ আর দালানে গ্রাস করেছে।
১৯৭১ সালে জিপিও মোড়ের দৃশ্যটা আজ অনেকটাই পাল্টে গেছে।
১৯৬০ সালের গুলশান। পাশেরটি বর্তমানের। পার্থক্যটা তো ধরতেই পারছেন।
প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের নির্মানযজ্ঞ চলাকালীন ছবি। পাশেরটা বর্তমানের।
শাপলা চত্বর: প্রথম ছবিটা স্বাধীনতার আগের (দিনক্ষণ নিশ্চিত না)। দ্বিতীয়টা ১৯৮৪ সালের। আর সর্বশেষটা বর্তমানের।
ফার্মগেটের বিবর্তন
৬০-এর দশকের ঢাকা স্টেডিয়াম এখন অধ্যাধুনিক বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম।
১৯৮১ সালের বাইতুল মোকাররম মসজিদ বনাম বর্তমান
ধানমন্ডির রাস্তায় ১৯৬০ সালেও চলতো গরুর গাড়ী। অথচ আজ জ্যামে টেকাই মুশকিল।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।