গ্যাঙস্টার চরিত্র ও বলিউডের অনন্য নির্মান

খুব বেশি আগের কথা নয়, যখন মুম্বাইয়ে আন্ডারওয়ার্ল্ড গ্যাঙস্টারদের দাপট ছিল। নব্বই দশক কিংবা এর পরেও দাউদ ইব্রাহিম, ছোটা শাকিল কিংবা আবু সালেমদের রাজত্ব ছিল। তাঁদের মুখরোচক সব গল্প ছাপা হত পত্রিকার পাতায়। ফলে, স্বাভাবিক ভাবেই বড় পর্দায় সেই গল্পগুলোর প্রভাব থাকতোই। গ্যাঙস্টার ঘরানার ছবি বলিউডের খুব জনপ্রিয় আর ব্যবসাসফল এক জনরা।

বলাই বাহুল্য ছবিগুলোতে গ্যাঙস্টার চরিত্রগুলোই বেশি নজর করেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে চরিত্রগুলো নির্মিতও হয়েছে বাস্তবের কোনো গ্যাঙস্টারের চরিত্র থেকে প্রভাবিত হয়ে। তেমনই সেরা সব গ্যাঙস্টার চরিত্র নিয়ে আমাদের এবারের আয়োজন।

  • রাঘু (সঞ্জয় দত্ত)

এটি ১৯৯৯ সালের অন্যতম সফল গ্যাংস্টার-ড্রামা ছবি ‘বাস্তব’ এর একটি চরিত্র। করেছিলেন সঞ্জয় দত্ত! বাস্তবের গ্যাঙস্টার ‘ছোটা রাজন’ এর জীবন থেকেই অনুপ্রাণিত ছিল। সঞ্জয় দত্ত অনবদ্য অভিনয় করেন ছবিতে। তার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা পারফরম্যান্স ছিল এটা! সিনেমায় তার ডায়লগ ডেলেভারি, অভিনয়, অ্যাকশন সবই খুব ভাল ছিল! সঞ্জয় দত্ত এই ছবির জন্য প্রথম বার সেরা অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়া-সহ বিভিন্ন পুরস্কার পান।

  • মানিয়া সুরভে (জন আব্রাহাম)

এটি ২০১৩ সালের অন্যতম সফল একটি গ্যাংস্টার-ড্রামা ‘শুট আউট অ্যাট ওয়াদালা’র চরিত্র।  বাস্তবের গ্যাঙস্টার মানিয়া সুরভের জীবনের গল্প বলা ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে ছিলেন জন আব্রাহাম। জনের অভিনয় কখনোই খুব একটা প্রশংসিত না হলেও এখানে তিনি দারুণ মানিয়ে গেছেন। অবশ্যই, এটা জনের অন্যতম সেরা কাজগুলোর একটি।

  • শোয়েব খান (ইমরান হাশমি)

২০১০ সালের ছবি ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন মুম্বাই’। দাউদ ইব্রাহিমের চরিত্র করেন ইমরান হাশমি। এটা বলিউডের ইতিহাসেরই অন্যতম ‘সেরা দাউদ ইব্রাহিম’। ছবিতে অনবদ্য ছিল ইমরান হাশমির লুক। অভিনয় নিয়ে তো কখনোই তাঁর ব্যাপারে কোনো অভিযোগ নেই। ডায়লগ ডেলেভারিও ছিল দারুণ!

  • ভিকু মাহাত্রে (মনোজ বাজপেয়ী)

এটি ১৯৯৮ সালের অন্যতম সফল ছবি ‘সত্য’। মনোজ বাজপেয়ীর সিগনেচার কাজ। কোনো নির্দিষ্ট গ্যাঙস্টারের জীবনের গল্প এখানে বলা হয়নি। বাজপেয়ীর ডায়লগ ডেলেভারি, অভিনয় খুবই ভাল ছিল। ছবিটির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পন বাজপেয়ী। সাথে জুটে যায় ফিল্মফেয়ারও। চরিত্রটি করার পর তিনি বলিউডে নিজের আসন পাকাপোক্ত করেছেন। এটিই তার ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট ছিল!

  • ফাইজাল খান (নওয়াজুদ্দীন সিদ্দিকী)

‘গ্যাঙস অব ওয়াসিপুর’ বলিউডের ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা ছবি। ছবিটা নওয়াজুদ্দীনের ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট ছিল। তার চরিত্রটির এক্সপ্রেশন, অ্যাকশন, ডায়লগ ডেলিভারি – সবই ছিল অসাধারণ। ছবির জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার, আইফা পুরস্কার পান।

  • স্পেশাল মেনশন: মায়া (বিবেক ওবেরয়)

১৯৯১ সালের এক বাস্তব ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত ‘শুটআউট অ্যাট লোখান্ডওয়ালা’। ২০০৭ সালের এই ছবিটিতে ‘মায়া’ নামের চরিত্র করেন বিবেক ওবেরয়। বাস্তব ঘটনাতেও এই চরিত্রটি ছিল। ছবিতে বিবেকের সাথে সঞ্জয় দত্তর লড়াই বেশ জমে ওঠে।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।