চূড়ান্ত রায়টা দর্শকই দেয়

কাজ করার জন্য, নিজেকে প্রমাণ করার একটা জায়গা সবারই দরকার। সেই জায়গাটা আমিও চাই, কেনই বা চাইবো না? আমরা সবার জন্য সমান সুযোগ চাই। তবে, একজন কতটা নিজেকে বিকশিত করতে পারেন, সেটা নির্ভর করে তাঁর প্রতিভার ওপর। চূড়ান্ত রায়টা দর্শকরই দেয়। আর দর্শকদের কখনো বোকা বানানো যায় না।

স্টার কাস্টিং সব সময় কাজ করে না। তাই যদি হত, তাহলে তো আর ‘বাধাই হো’ এত সাফল্য পায় না। আমরা জানি, বড় তারকাদের ছবি ভাগ্য কি হয়েছে। ২০১৮ সালে ‘ঠাগস অব হিন্দোস্তান’ নিয়ে অনেক কথা হল, অনেক হৈচৈ হল। কত বড় বড় তারকা, কত অর্থকড়ি ঢালা হল। কিন্তু, মুক্তির পর কি হল, সেটা তো সবাই চোখের সামনেই দেখতে পেলেন। লোকে তিনদিনও ছবিটাকে মনে রাখলো না।

ইন্ডাস্ট্রির বাইরে থেকে এসে অনেক তারকাই বিরাট জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। দেখবেন, অনেক স্টারকিড কিন্তু খুব ভাল করতে পারেননি। কেউ কেউ আবার নিজেদের পূর্বপুরুষের খ্যাতিকেও ছাড়িয়ে গেছেন। যেমন হৃতিক রোশন। আবার এখনকার টাইগার শ্রফ যেমন ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের আলাদা একটা জায়গা করেছেন।

কোনো নির্দিষ্ট পরিবারে জন্ম নেওয়া তো আর কোনো অপরাধ নয়। তবে, বড় কিছু করতে হলে নিজের ভেতরে বড় কিছু থাকতে হয়। আমি বরং স্টারকিডদের প্রতি সমব্যাথী। কারণ, বিরাট চাপ সামলে তাঁদের নিজেদেরকে প্রমাণ করতে হয়। প্রায়শই তাঁদের বাবা-মায়েদের সাথে তাঁদের তুলনা হয়।

‘যদি আমি আগেই এই খ্যাতি পেতাম, তাহলে চিত্রটা ভিন্ন হত’ কিংবা ‘এখন যেমন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড আছে সেটা চলতে দাও’ – এসব কথা মাথায় রাখলে আসলে আমি কাজই করতে পারবো না। এটা আমাদের সবার সাথেই হবে। আমি জানি, এমন অনেক অভিনেতা আছেন, যারা আমার থেকে বিস্তর প্রতিভাবান, তাঁরা হয়তো এখনও নিজের প্রাপ্যটা বুঝে পাননি।

তবে, কোনো কিছুই এই জমকালো দুনিয়াতে চিরস্থায়ী নয়। কিছুদিন পর হয়তো আমি এমন সব চরিত্র পাবো যাকে পুরো ছবিতে সাত-আটটা দৃশ্য দেওয়া হবে। যেমনটা আমি ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’-তে করেছিলাম। অভিপ্রায় সবারই থাকে, তবে তাতে কিছু যায়-আসে না।

_______________

কথা গুলো বলেছেন অভিজ্ঞ বলিউড অভিনেতা গজরাজ রাও। ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘বাধাই হো’ ছবির জন্য তিনি ফিল্ম ফেয়ারের মঞ্চে সেরা সহ-অভিনেতার পুরস্কার জয় করেন।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।