ভারতীয় সিনেমার ‘প্রথম’ নারী

বলিউডের ইতিহাস নিয়ে যেমন গবেষণা হওয়া উচিৎ, সেটা হয় না বললেই জানে। এই প্রসঙ্গটা উঠলেই আমরা কেবল জানি দাদা সাহেব ফালকের হাত ধরে যাত্রা শুরু হয়েছে বলিউডের। এর বাকিটা অন্ধকার। এবার সেই অন্ধকার জগতেই আমরা একটু আলো ফেলতে চলেছি আমরা।

বলিউডের বা ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নারীর অবদানের কথা স্বীকার না করলেই নয়। কারণ, প্রথমবারের মত তারা কাজগুলো না করলে হয়তো অচলায়তনটা ভাঙা সম্ভব হত না। চলুন জেনে নেই তাঁদের কথা।

  • প্রথম নারী অভিনেত্রী

উপমহাদেশের প্রথম দিককার ছবিতে পুরুষরাই নারীর চরিত্র করতেন। ভারতের ইতিহাসের প্রথম হিন্দি ছবি ১৯১৩ সালের ‘রাজা হরিশচন্দ্র’তেও তাই হয়েছে। তবে, দ্বিতীয় হিন্দি ছবি ‘মোহিনী ভাসমাসুর’-এই নারী ছিলেন। কেন্দ্রীয় ‘মোহিনী’ চরিত্রটা করে কমলা বাই গোখালে। তাঁরই মা দূর্গা বাই গোখালে করেন ‘পার্বতী’ চরিত্রটি।

  • প্রথম নারী পরিচালক

ফাতিমা বেগম ১৯২৬ সালে ‘বুলবুল-ই-পারাস্থান’ নামের একটি ছবি পরিচালনা করেন। তখনই তিনি ফাতিমা ফিল্মস নামের একটি প্রোডাকশন হাউজেরও যাত্রা শুরু করেন। তিনিই ভারতের প্রথম নারী চলচ্চিত্র পরিচালক।

এরপর ১৯৩১ সালে বলিউডের প্রথম সবাক চলচ্চিত্র ‘আলম আরা’য় অভিনয় করেন তারই মেয়ে জুবেইদা। এই হিসেবে জুবেইদা হলেন ভারতীয় সিনেমার প্রথম নারী স্টারকিড।

এই জুবেইদার নাতনী হলেন রিয়া পিল্লাই। এই মডেল ও অভিনেত্রী ২০০৬ সালের ‘কর্পোরেট’ সিনেমাটিতে একটা ছোট চরিত্র করেন। তাঁর আরেকটি বড় পরিচয় হল তিনি সঞ্জয় দত্তর সাবেক স্ত্রী।

  • প্রথম অস্কারজয়ী নারী

প্রথম অস্কারজয়ী ভারতীয়ই হলেন একজন নারী। তাঁর নাম ভানু অথৈইয়া। তিনি ১৯৮৩ সালে হলিউডের ‘গান্ধী’ ছবিটির কস্টিউম ডিজাইনের জন্য সম্মানজনক অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড পান। তাঁর সাথে যৌথভাবে এই পুরস্কার নেন জন মোলো।

  • প্রথম নারী সিনেম্যাটোগ্রাফার

বি.আর. বিজয়ালক্ষ্মী। ছবির নাম ‘ছিন্না ভেড়ু’। এই তামিল ছবিটি ১৯৮৫ সালে মুক্তি পায়।

  • প্রথম নারী অ্যাকশন হিরোইন

ফিয়ারলেস নাদিয়া। ছবির নাম হান্টারওয়ালি। ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৩৫ সালে। পরিচালনা করেন হোমি ওয়াদিয়া।

  • প্রথম ড্যান্সিং কুইন

ভারতের প্রথম ক্যাবারে ড্যান্সার। তার হাত ধরেই বলিউডে আইটেম সংয়ের প্রচলন হয়। তাঁর আরেকটি পরিচয় হল তিনি সালমান খানের বাবা সেলিম খানের দ্বিতীয় স্ত্রী।

  • প্রথম নারী সঙ্গীত পরিচালক

১৯৩৫ সালে নির্মাতা চিমানলাল লুহার নির্মান করেন ‘তালাশে হক’। সেবার সঙ্গীত পরিচালক ছিলেন জাদ্দান বাই। তিনিই ভারতের প্রথম নারী সঙ্গীত পরিচালক। এই জাদ্দান বাই হলেন কিংবদন্তিতুল্য অভিনেত্রী নার্গিস দত্তর মা, মানে তিনি একই সাথে সঞ্জয় দত্তর নানী।

  • প্রথম নারী প্লে-ব্যাক সিঙ্গার

রাজকুমারী দুবে হলেন বলিউডের ইতিহাসের প্রথম নারী প্লে-ব্যাক সিঙ্গার। তিনি সর্বপ্রথম ত্রিশের দশকের শুরুতে ‘সান্সার মেরা নায়ি দুনিয়া’ ছবিতে প্লে-ব্যাক করেন।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।