creckett থেকে cricket

ক্রিকেটের সকল ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা সাজিয়ে লেখা শুধু কঠিনই নয়, প্রায় অসম্ভব একটি কাজ। আসলে এটা শুধু ক্রিকেটই নয়,মানব জীবনের যে কোন বিষয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। এত এত ঘটনা, গল্প, হাসি-কান্না, সাফল্য, ব্যর্থতা… তবে, কোন রকম ঝুঁকি না নিয়ে বলা যায় প্রথম যে কোন ঘটনাই গুরুত্বপূর্ণ। যেমন- প্রথম আনুষ্ঠানিক টেস্ট ম্যাচ। এটি নিঃসন্দেহে ক্রিকেটের অন্যতম স্মরণীয় ঘটনা। এরকম বলা যায়- ক্রিকেটের প্রথম কোন আইনের কথা, কিংবা কোন দেশে প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সূচনার কথা কিংবা কোন দেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ জয়ের কথা।

তবে, এই লেখায় আমরা অত ঝামেলার মধ্যে যাবো না। ইতিহাসের পাতায় উল্লেখ করা ক্রিকেট সংক্রান্ত উক্তি বা কথাগুলোই হবে আমাদের মূল উপজীব্য। সেগুলো লিখিত হতে পারে কিংবা হতে পারে মৌখিক। এখানে উল্লেখ করে রাখা ভাল যে, শুধুই ক্রিকেট বা ক্রিকেটের ইতিহাস নিয়ে লেখা এমন কিছু আমাদের আলোচনায় থাকবে না। বরং এমন কিছু রেফারেন্স উক্তি বা কথা থাকবে যেসবের ক্রিকেটের সাথে হয়ত সরাসরি কোন সম্পর্কই ছিল না। পরবর্তীতে নিজের অজান্তেই সেসব জিনিস ক্রিকেটের ইতিহাসের সাথে যুক্ত হয়ে গেছে…

চলুন, তাহলে আমাদের যাত্রা শুরু করি।

টাইম মেশিনে করে প্রথমেই ষোড়শ শতকে যাওয়া যাক। কেননা, গবেষণা করে দেখা গেছে ক্রিকেট (cricket) শব্দটির ব্যবহার সর্বপ্রথম শুরু হয়েছে এই শতকেই। তবে, আলোচনায় ঝাঁপিয়ে পড়ার আগে চলুন আরেকটু কষ্ট করি, টাইম মেশিনটাকে নিয়ে যাই আরও তিন শতক আগে। কেননা, তের শতকের একজন ‘এডওয়ার্ড ওয়ান’ (যিনি লংশ্যাংকস নামে পরিচিত ছিলেন) নামক ভদ্রলোকের জার্নাল থেকে ইন্টারেস্টিং কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। ভদ্রলোক থাকতেন বর্তমান ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট মিনিস্টার এবং নিউএন্ডেন এ। তিনি লিখেছিলেন যে তার ছেলে অবসর সময়ে “creag et alios ludos” (“creag and other games”) খেলত!

জার্নালের এন্ট্রি লেখা ছিল- মার্চ ১৩, ১৩০০। তবে, সে সময় জুলিয়ান ক্যালেন্ডার ব্যবহার করা হত। বর্তমান গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার (যা ব্যবহৃত হয়ে আসছে ১৫৮২ সাল থেকে) অনুসারে তারিখটি হবে ১৯ মার্চ, ১৩০১।

কিছু ঐতিহাসিকের মতে, হতে পারে ঐ লেখায় উল্লেখিত Creag বলতে আসলে cricket খেলাকে বোঝানো হয়েছে! অবশ্য, বেশিরভাগ ঐতিহাসিকই এই ব্যাখ্যা গ্রহণ করেন নি। ঐতিহাসিক ডেরেক বারলে তাঁর A Social History of English Cricket বইতে লিখেছেন creag বলতে এডওয়ার্ড সাহেব সম্ভবত craic বুঝিয়েছেন। যার অর্থ “enjoyable social time”। একইভাবে পিটার উইন-টমাসও ‘creag আসলে cricket’ থিওরিকে পাত্তা দেন নি। তাঁর মতে, এটা প্রমাণ করার মত যথেষ্ট তথ্য-উপাত্ত আমাদের হাতে নেই। তাঁর The History of Cricket from the Weald to the World বইতে তিনি এ ব্যাপারে বিষদ আলোচনা করেছেন।

তাহলে, ক্রিকেটের সবচেয়ে পুরনো রেফারেন্স কী?

এটা জানতে গেলে আমাদের আইনের আশ্রয় নিতে হবে। নাহ! আমি থানা-পুলিশ বা মামলা-মোকদ্দমা করার কথা বলছি না। অনেক পুরনো একটি মামলার কেস হিস্টরি ঘাঁটতে হবে আর কী!

সারে’র গিল্ডফোর্ড নামক শহরের কোর্টে জানুয়ারি ১৭, ১৫৯৭ (বর্তমান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ১৫৯৮) সালে জমি-জমা সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানি হয়েছিল। এক খণ্ড জমি নিয়ে বিবাদে জড়িয়েছিল একটি স্কুল এবং গিল্ডফোর্ড শহর (পৌরসভার মত)।

ঐতিহাসিক চার্লস বক্স তাঁর বইতে The theory and practice of cricket, from its origin to the present time লিখেছেন আলোচ্য জমিটি ছিল ‘শহর সংলগ্ন একটি বাগান’ যার পরিমাণ ছিল প্রায় ‘সোয়া এক একর’।

মামলায় উল্লেখ করা স্কুলটির নাম ‘ফ্রি স্কুল’। পরবর্তীতে যা ‘রয়্যাল গ্রামার স্কুল’ এ রূপান্তরিত হয়েছে। স্কুলটির প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ১৫০৯ সালে। নামকরণ দেখেই বোঝা যায় স্কুল কর্তৃপক্ষের লক্ষ্যই ছিল গিল্ডফোর্ড শহরের অধিবাসীদের জন্য অবৈতনিক শিক্ষা নিশ্চিত করা।

তৎকালীন সারে কাউন্টির সরকারী মর্গ-প্রধান এবং সেই ফ্রি স্কুলেরই সাবেক ছাত্র জন ডেরেক আলোচ্য মামলায় তাঁর সাক্ষ্যে উল্লেখ করেছিলেন “Being a scholler in the ffree schoole of Guldeford hee and diverse of his fellows did runne and play at creckett and other plaies,” পাঠক, মনে রাখবেন আমরা ষোড়শ শতকের কথা বলছি। তখনকার ইংরেজির ধরণ এবং বানান বেশ আলাদা ছিল। ডেরেকের পূর্ণ সাক্ষ্য গিলফোর্ডের Constitution Book এ পাওয়া যাবে।

বানান যাই হোক না কেন এটা মোটামুটি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত যে creckett শব্দটি cricket এর একটি আদিরূপ। সাক্ষ্য দেয়ার সময় ডেরেকের বয়স ছিল ৫৯ বছর। আমরা যদি তাঁর বাল্যকাল হিসেবে করি তাহলে দেখা যায় তিনি “creckett and other plaies” এর সাথে যুক্ত ছিলেন ১৫৫০ এর দিকে। ‘আদার প্লেস’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে সেটা এখন আন্দাজ করা ছাড়া নিশ্চিত হবার কোন উপায় নেই। হতে পারে তারা তীর-ধনুকের খেলা খেলতেন কিংবা ফেন্সিং (সরু তলোয়ারের খেলা)!

এই creckett বলতে যে ক্রিকেট বোঝানো হয়েছে সে ব্যাপারে কিছুটা সন্দেহ থাকতে পারে, কিন্তু একটি ব্যাপারে সবাই শতভাগ নিশ্চিত- সেটা হল ঐ খেলাটি ছোট কিশোরগণ মিলে খেলত এবং কোন প্রকার টাকা-পয়সার লেনদেন হত না।

কেননা, পেশাদার ক্রিকেট শুরু হয়েছে আরও পরে। বহু যুগ পরে…

_______________

ভারতের প্রখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক অভিষেক মুখার্জী ক্রিকেটসকার.কমে Cricket history in quotes নামক দারুণ একটি সিরিজ লিখেছেন। এই সিরিজে তিনি ইতিহাস খুঁড়ে তুলে এনেছেন সাধারণ মানুষের উক্তিতে বা লেখায় উল্লেখ করা ক্রিকেটের সব দারুণ রেফারেন্স। মজার ব্যাপার হচ্ছে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মূল ফোকাস ক্রিকেট ছিল না, অন্য কোন কিছুর সাথে উড়ে এসে জুড়ে বসেছে! আমি অসাধারণ সেই সিরিজটির ভাবানুবাদ করার চেষ্টা করছি।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।