কী হচ্ছে এবারের কান উৎসবে

শিল্প-সাহিত্যের দেশ হিসেবে ফ্রান্সের খ্যাতি দুনিয়া জোড়া। সেই দেশেই সাগরঘেসা ছোট্ট একটি শহর কান। আর সেখানেই বসে চলচ্চিত্র দুনিয়ার অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ চলচ্চিত্র উৎসব কান চলচ্চিত্র উৎসব। বিশ্বের সকল প্রান্তের সিনেমাপ্রেমী মানুষদের কাছে এই আসরের আলাদা একটি মর্যাদা আছে।

এবার আসরের ৭২ তম আসর। ১৯৪৬ সাল থেকে প্রতি বছর এই উৎসব পালিত হয়ে আসছে। দক্ষিন ফ্র‍্যান্সের রিজোর্ট শহর কানে প্রতি বছর সাধারণত মে মাসে এই উৎসব পালিত হয়। ‘পালে দে ফেস্তিভালস এ দে কোঁগ্র’ নামক ভবনটিতে মূল উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। মূলত কান উৎসবের জন্যই এই ভবন নির্মাণ করা হয়েছিল।

এবারের উৎসব চলবে আগামী ২৫ মে পর্যন্ত। কানে একদিকে ছবিগুলোর উদ্বোধনী প্রদর্শনী হবে, অন্যদিকে মুহূর্তেই বিশ্বজোড়া সিনেমাপ্রেমীদের কাছে সেগুলো হয়ে উঠবে আলোচনার মূল বিষয়বস্তু। বরাবরের মতো কানের জমকালো রেড কার্পেটে হলিউড এবং বলিউড সহ বিশ্বের নানা দেশের জনপ্রিয় এবং আলোচিত তারকাদের দেখা মিলবে।

জানা গেছে, আগামী ১৬ মে এই লাল কার্পেটে  হাজির হবেন বলিউড সুপারস্টার দীপিকা পাডুকোন। কানের লালগালিচায় বলিউড ফ্যাশন ডিভা সোনম কাপুর দ্যুতি ছড়াবেন ২০ ও ২১ মে। আগামী ১৯ মে’র পর কানে দেখা দেবেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন।

আরও অনেক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ে কান চলচ্চিত্র উৎসব অনেক ক্ষেত্রেই ভিন্ন। যেমন- আসরের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের জন্য প্রতিযোগী হিসেবে বিবেচিত হয় যেকোনো দেশের সিনেমা। শুধু চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও পুরস্কার প্রদানই নয়, এই উৎসবে যোগাযোগ সৃষ্টি হয় বিভিন্ন দেশের পরিচালক, প্রযোজক ও কলাকুশলীদের সঙ্গে। ১২ দিন ধরে চলে বিভিন্ন রকমের আয়োজন।

বাংলাদেশীদের জন্য খুশির খবর হচ্ছে এবারের কান উৎসবে বাংলাদেশের অংশগ্রহণও রয়েছে। তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতা মেহেদী হাসানের প্রকল্প ‘স্যান্ড সিটি’ স্থান করে নিয়েছে কান চলচ্চিত্র উৎসবের মর্যাদাপূর্ণ ‘লা ফ্যাব্রিক দ্য সিনেমা দ্যু মুন্দ’ বিভাগে। এই বিভাগে ২০১৪ সালে কামার আহমাদ সাইমনের প্রকল্প ‘শঙ্খধ্বনি’র পর দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে মেহেদী হাসান এ সম্মান বয়ে আনলেন।

৭২ তম কান উৎসবের শুরু হবে জোম্বি-কমেডি ঘরানার আমেরিকান সিনেমা ‘দ্য ডেড ডোন্ট ডাই’ ছবি প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে। লুমিয়া থিয়েটারে ১৪ মে প্রদর্শনের মাধ্যমে ‘ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার’ হবে ছবিটির। একই সঙ্গে ছবিটি লড়বে সেরা ছবির বিভাগে অর্থাৎ পাম ডি’ওর পুরস্কারের জন্য।

ছবিটি পরিচালনা করেছেন জিম জারমাশ। এই স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতা ১৯৮৪ সালে জিতে নিয়েছিলেন ক্যামেরা ডি’ওর পুরস্কার। মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে লড়াই করবে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ঘরানার ২২টি সিনেমা। এর মধ্যে ‘আন সার্টেইন রিগার্ড’-এ ১৮টি, আউট অব কম্পিটিশন-এ ৫টি, মিডনাইট স্ক্রিনিং-এ দু’টি এবং স্পেশাল স্ক্রিনিংস-এ ১০টি সিনেমা রয়েছে।

মূল প্রতিযোগিতায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা ছবিগুলো থেকে একটি ছবির নাম ঘোষণা করবে নয় সদস্য বিশিষ্ট জুরি বোর্ড। ফিচার ফিল্মের এই জুরিদের প্রধান আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেক্সিকান চলচ্চিত্র পরিচালক আলেখান্দ্র গঞ্জালেস ইনারিতু।

এই কমিটি যে ছবির নাম ঘোষণা করবেন, সেই ছবির হাতে উঠবে কানের সর্বোচ্চ পুরস্কার পাম ডি’ওর। আর এই ঘটনাটি ঘটবে ২৫ মে। এদিন রাতে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে এবং আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে উৎসবের সমাপনী। কিন্তু তারপরও বাকি থাকবে একটি ঘটনা। আর সেটা হলো ‘লাস্ট স্ক্রিনিং’।

এবার আর ‘ক্লোজিং ফিল্ম’ বলা হচ্ছে না। যে ছবির মাধ্যমে উৎসব শেষ হবে, সেই আয়োজন বা সেই ছবিকে এখন থেকে বলা হবে ‘লাস্ট স্ক্রিনিং’। কান চলচ্চিত্র উৎসবের পর্দা নামবে ‘দ্য স্পেশালস’ ছবি প্রদর্শনের মাধ্যমে। ছবিটি মূল প্রতিযোগিতায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করবে। এটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন অলিভিয়ে নাকাশ ও এরিক তোলেরান।

এবারের আয়োজনের অফিসিয়াল পোস্টার উৎসর্গ করা হয়েছে ফ্রান্সের নারী চলচ্চিত্রকার অ্যানিস ভার্দা-কে। তিনি চলতি বছরের ২৯ মার্চ ৯০ বছর বয়সে মারা যান।পোস্টারে দেখা যাচ্ছে টেকনিশিয়ানের কাঁধের ওপর দাঁড়িয়ে এক নারী চোখ রেখেছেন ক্যামেরায়। ক্যামেরায় তাকানো এই নারীই ভার্দা। তখন তার বয়স ছিল ২৬। ১৯৫৪ সালে ভার্দা পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘লা পোয়ান্ত কোর্ট’ ছবির শুটিংয়ের সময় ছবিটি তোলা। সে বছরই ছবিটি প্রদর্শিত হয় কান চলচ্চিত্র উৎসবে।

প্রতিবারের মতো এবারো এই ৭২ তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে বিশেষ পাম ডি’ওর দেওয়া হচ্ছে। এবার এই পুরস্কার পাচ্ছেন ফ্রান্সের অভিনেতা আলা দুরলো-কে। বিশ্ব সিনেমায় তার অবদানের জন্যই এ পুরস্কার। ১৯৬৩ সালে তিনি প্রথম অভিনয় করেন ‘দ্য লেপার্ড’ ছবিতে।

আনুষ্ঠানিক এমন অনেক আয়োজন ছাড়াও নানা রকম আয়োজন থাকে কান চলচ্চিত্র উৎসবে। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট হাজারো মানুষ এখানে মিলিত হন। সিনেমা প্রচারের কাজেও আসেন অনেকে। যেমন এবার সিনেমার প্রচারের কাজে কানে থাকছেন জনপ্রিয় হলিউড অভিনেতা সিলভেস্টার স্ট্যালন।

নিজের নতুন ছবি ‘র‌্যাম্বো ভি- লাস্ট ব্লাড’ ছবির প্রচারের জন্য উৎসবে অংশ নেবেন এই তারকা। কানের প্যালে ডি ফেস্টিভালে ২৪ মে সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে হবে ‘র‌্যাম্বো ভি- লাস্ট ব্লাড’ ছবির বিশেষ প্রদর্শনী। সব মিলিয়ে বলা যায় আগামী কিছুদিন সিনেমাপ্রেমীদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে কান চলচ্চিত্র উৎসব।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।