বেলজিয়ান বিপ্লবে ভাঙবে সেলেসাও সাম্রাজ্য?

রাশিয়া বিশ্বকাপে এরই মধ্যে নানা ঘটনার জন্ম দিয়েছে, গ্রুপ পর্বের পর যার কমতি ছিলো না শেষ ১৬ তেও। বিদায় নিয়েছে শিরোপা প্রত্যাশী অনেক বড় দলই।

এবার শুরু হচ্ছে শেষ আটের লড়াই, প্রথম দিনই মাঠে নামছে শিরোপা প্রত্যাশি চার দল, মুখোমুখি হচ্ছে দুই হট ফেবারিট ব্রাজিল ও  বেলজিয়াম।

এবারের বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের জালে সবচেয়ে বেশি গোল দিয়েছে হ্যাজার্ড, লুকাকুর বেলজিয়াম। লুকাকু ত একাই করেছে ৪ গোল, আছে গোল্ডেন বুট জেতার পথেও। অধিনায়কের বাহুবন্ধনী পরে মাঠে নামা ইডেন হ্যাজার্ড দুই গোলের পাশাপাশি তিন টা অ্যাসিস্ট।

বেলজিয়ামের মধ্যমাঠ সামলাতে দেখা যাবে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইনকে, থাকবে ক্যারাস্কো, উইটসেল, মিউনিয়ারদের।  ডিফেন্স সামলাতে থাকবে বয়োটা, ভিনসেন্ট কোম্পানি, ভারমিউলেন, জন দের। গোলবারের দায়িত্বটা কাধে নিয়ে মাঠে নামবেন অভিজ্ঞ থিবাউত কর্তোয়া।

আর আক্রমন ভাগের মাঝে থাকবেন লুকাকু, তার একপাশে মার্টিনেস তো আরেকপাশে থাকবেন অধিনায়কের বাহুবন্ধনী হাতে পরে মাঠে নামা ইডেন হ্যাজার্ড। ফরমেশন, ৩-৪-৩।

অন্যদিকে তিতের ব্রাজিল মাঠে নামবে তাদের অন্যতম বড় অস্ত্র ক্যাসিমারোকে ছাড়া। হলুদ কার্ডে আটকা পড়ে বেঞ্চেই কাটাতে হবে এই স্তম্ভকে। তার বদলে থাকবেন পরীক্ষিত ফার্নান্দিনহো, তার পাশে থাকবেন পাওলিনহো। ডিফেন্সে বরাবরের মতই চীনের প্রাচীর নামে খ্যাত সিলভার সাথে মিরান্ডা, ফাগনার। ফিলিপে লুইসের বদলে থাকতে পারে চোট থেকে ফেরা মার্সেলো ভিয়েরা। আর গোলবারে এলিসন বেকার।

আক্রমণ ভাগে সবার উপরে জেসাস, যদিও বিভিন্ন সূত্র মতে এই স্ট্রাইকারের বদলে প্রথম একাদশে চান্স পেতে পারে গতম্যাচে ৮৬ মিনিটে মাঠে নেমেই চার মিনিটের ভিতর গোল করা রবার্তো ফিরমিনো। একটু পিছনে থাকবে কোতিনহো, তার দুইপাশে থাকবে গতম্যাচে দুর্দান্ত খেলা চেলসি তারকা উইলিয়ান ও মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হওয়া ব্রাজিলের হেক্সা জয়ের মূল ভরসা নেইমার ডি সিলভা জুনিয়র।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আদনান জানুজাজের গোলের পর

এবারের বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত বিপক্ষের জালে ৭ গোল দিয়ে মাত্র ১ গোল খেয়েছে সেলেসাওরা। বরাবরের মতই তিতের ট্যাকটিস অনুযায়ী থাকছে এই ম্যাচেও অধিনায়ক পরিবর্তন, বেলজিয়ামের বিপক্ষে এই গুরু দায়িত্বটা কাধে নিচ্ছেন দুর্দান্ত মিরান্ডা। ফরমেশন,  ৪-২-৩-১.

১৯৭০ সালের পর প্রথমবারের মতো নক-আউট স্টেজে শুরুতে দুই গোল খেয়েও জয় পেয়েছে বেলজিয়াম, ৪৮ বছর আগে এই কীর্তি গড়েছিলো পশ্চিম জার্মানি।

প্রতিম্যাচেই উন্নতি করছে নেইমার, গত ম্যাচে ব্রাজিলের সেরা খেলোয়াড় তো তিনিই। কৌতিনহো তো শুরু থেকেই দুর্দান্ত, গত ম্যাচে চেনা রুপে ফিরেছে উইলিয়ানও।

এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম সেরা দল বেলজিয়াম, গ্রুপ পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নক-আউটে হারতে বসা ম্যাচেও শেষ মুহুর্তে দুর্দান্ত কাউন্টার অ্যাটাকে এশিয়ান পরাশক্তি কে বাড়ির পথ ধরিয়ে দিয়েছে বিশ্বকাপের কালো ঘোড়া ইডেন হ্যাজার্ড, লুকাকুরা।

একদিকে ব্রাজিলের জমাট ডিফেন্স তো আরেকদিকে ইউরোপিয়ান স্টাইলের দুর্দান্ত কাউন্টার অ্যাটাক, গতির বিপক্ষে চীনের প্রাচীর! লাতিন ছন্দের পরীক্ষা এবার ইউরোপিয়ান গতির বিপক্ষে।

একদিকে ব্রাজিলের মিশন হেক্সা, আরেকদিকে বেলজিয়ামের জন্য প্রথমবারের মতো আরাধ্যের সোনার শিরোপা ছুঁয়ে দেখার আরো একধাপ এগিয়ে যাওয়ার মঞ্চ। লড়াইটা হোক সেয়ানে সেয়ানে, তাতে লাভ টা ফুটবলেরই।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।