ভিলেনের যুগ গেছে, ভয় যায়নি!

একটা সময় ছিল, যখন একজন সুপার ভিলেন কিংবা খলনায়ক ছাড়া বলিউডের সিনেমাগুলো ছিল অসম্পূর্ণ। সেই ষাটের দশক থেকে শুরু করে ২০০০ সাল অবধি খ্যাতনামা সব ভিলেনরা পর্দা কাঁপিয়েছেন। হাল আমলে নায়করা, কিংবা চরিত্রাভিনেতারাই অ্যান্টি হিরোর রোল করলে ভিলেনদের বাজারদরে একটু ভাঁটা পড়ে। চলুন একালে বসে সেকালের ভিলেনদের স্মৃতিচারণা করা যাক।

  • প্রাণ

পুরো নাম প্রাণ কিষাণ সিকান্দ। তিনি হলেন বলিউডের ভিলেনদের রাজা। দারুণ অভিনয় দক্ষতা ও নিজস্ব আলাদা স্টাইল দিয়ে তিনি কাঁপিয়েছেন বলিউড। তাঁর বিখ্যাত সিনেমার মধ্যে মধুমতি, জাঞ্জির, ডন আমার আকবর অ্যান্থনী, জিস দেশ মেয় গাঙ্গা র‌্যাহতা হ্যায় অন্যতম।

  • অমরেশ পুরি

দর্শকদের মনে ত্রাস সৃষ্টি করার জন্য অমরেশ পুরির কণ্ঠস্বরই ছিল যথেষ্ট। তিনি ভিলেন হিসেবে কিংবদন্তিতুল্য সব চরিত্র করেছেন। মিস্টার ইন্ডিয়া’র মোগাম্বো, দামিনি’র চাড্ডা, ঘায়েল-এ বালওয়ান্ত রায়, মেরি জাঙ সিনেমায় জিডি ঠাকরাল ও রাম লাখান-এ বিশ্বম্বর নাথ চরিত্রগুলো তাঁকে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ভিলেনের আসন এনে দিয়েছে।

  • আমজাদ খান

আমজাদ খানের নেতিবাচক চরিত্র ছিল শোলে’র গাব্বার সিং। আর এটআই তাঁকে নিয়ে গেছে ইতিহাসের পাতায়। আর কোনো ভিলেনই শোলের সেই গাব্বারকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি। ভিলেন হয়ে শোলে ছাড়াও সুহাগ, মিস্টার নটওরলাল ও হিম্মতওয়ালা সিনেমাগুলো করেছেন তিনি। যদিও, শারীরিক নানা জটিলতায় ক্যারিয়ারটা লম্বা হয়নি তাঁর।

  • প্রেম চোপড়া

‘প্রেম নাম হ্যায় মেরা’ – ভিলেনের চরিত্রে এই ডায়লোগটা গোটা উপমহাদেশ জুড়েই বেশ বিখ্যাত। প্রেম চোপড়া নামটাই যেন বাজে লোকের প্রতিশব্দ। ৬০ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে তিনি ৩৮০ টি সিনেমা করেছেন। এর অধিকাংশতেই তিনি ছিলেন ভিলেন।

  • ড্যানি ডেনজোঙপা

শোলে’র জন্য প্রথমে তাঁকেই ভেবেছিলেন রমেশ সিপ্পি। ঘটনাচক্রে সেবার ব্যাটে বলে হয়নি। তিনি আন্দার বাহার-এর শেরা, ভগবান দাদা’র গাঙওয়া, অগ্নিপথ-এর কাঁচা চিনা, হাম-এ বখতিয়ার, ঘাতক-এর কাটিয়া কিংবা ক্রান্তিবীর সিনেমার চতুর সিং চরিত্রগুলোর জন্য বিখ্যাত। এই যুগেও তিনি ব্যাঙ ব্যাঙ কিংবা জ্যায় হো’র মত সিনেমায় ভিলেন ছিলেন।

  • পরেশ রাওয়াল

এখন লোকে পরেশ রাওয়ালকে কমেডি অভিনেতা হিসেবে চেনে। যদিও, তিনি হলেন নব্বই দশকের সফল ভিলেনদের একজন। ভিলিন হিসেবে তিনি রাম লাখান, স্বর্গ, দামিনি, দিলওয়ালে কিংবা আন্দাজ আপনা আপনা’র মত সিনেমা করেছেন।

  • শক্তি কাপুর

ভিলেন হিসেবে শক্তি কাপুরকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কিছু নেই। বলিউডের সবচেয়ে সব্যসাচী অভিনেতা সবচেয়ে বেশি সফল হয়েছেন ভিলেন রুপেই। ভিলেন হিসেবে তাঁর সেরা সিনেমাগুলোর মধ্যে চালবাজ, আঁখে, ম্যায় খিলাড়ি তু আনাড়ি ও গুন্ডা বিখ্যাত।

  • গুলশান গ্রোভার

তাঁর অভিনয়ে দেখলে মনে হয়, জন্মটাই তাঁর হয়েছে ভিলেন হওয়ার জন্য। তিনি বিখ্যাত তাঁর অভিনয়ের নিজস্ব ধরণের জন্য।  তিনি রাম লাখান, মোহরা, হেরা ফেরি, ১৬ ডিসেম্বর, ক্রিমিন্যাল ও খিলাড়িও কা খিলাড়ি সিনেমাগুলোর জন্য বিখ্যাত।

  • অনুপম খের

ভিলেন হিসেবে অনুপম খের সবচেয়ে বেশি বিখ্যাত ‘সারাংশ’ সিনেমার জন্য। এই ধরণের চরিত্র আরো বহু সিনেমায় করেছেন অনুপম খের।  তাঁর ভিলেন হিসেবে উল্লেখযোগ কাজ হল কার্মা, রুপ কি রানি চোরো কা রাজা ও কাহো না প্যায়ার হ্যায়।

  • অজিত

তাঁর আসল নাম হল হামিদ আলি খান। পর্দায় তিনি অজিত নামে পরিচিত ছিলেন। কালিচরণ সিনেমার ‘লইন’ চরিত্রটির জন্য তিনি বিখ্যাত।

  • নাসিরুদ্দিন শাহ

খ্যাতিমান অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহও ভিলেন হিসেবে কম পরিচিত ছিলেন না। কিংবা এখনো তিনি এমন কিছু কাজ করে থাকেন। সারফারোশ, মোহরা, দ্য ডার্টি পিকচার সিনেমাগুলোতে ভিলেন হিসেবে দুর্দান্ত কাজ করেছেন নাসিরুদ্দিন শাহ।

– ফিল্মিকিডে.কম অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।