নায়িকার চেয়ে নায়ক কমবয়সী? ব্যাপার না!

প্রায়ই বলিউডে অভিনেতাদের দেখা যায় নিজেদের হাঁটুর বয়সী অভিনেত্রীদের সাথে নর্তন-কুর্দন করতে। আর এই ব্যাপারটা দেখতে দেখতে আমাদের চোখে অনেকটাই সয়ে গেছে। তবে, খুব কম সময়ই অভিনেত্রীরা তাঁদের চেয়ে কম বয়সী নায়কদের সাথে পর্দায় জুটি বাঁধেন। তেমনই কয়েকটা জুটি নিয়ে আমাদের এবারের আয়োজন।

  • রণবীর কাপুর ও ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন

অ্যাশের চেয়ে রণবীর ১১ বছরের ছোট। ২০১৬ সালে দু’জন পরস্পরের বিপরীতে ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবিটি করেন। করণ জোহরের নির্মানে পর্দায় দু’জনের রোম্যান্স বেশ আলোচিত হয়।

  • বিবেক ওবেরয় ও ঐশ্বরিয়া রাই

শুধু সিনেমাই না, ঐশ্বরিয়ার সাবেক প্রেমিকদের একজন ছিলেন বিবেক। অ্যাশের চেয়ে বিবেক তিন বছরের ছোট। ২০০২ সালে এই দু’জন জু’টি ‘কিউ হো গ্যায়া না’ ছবিটি করেন।

  • সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও ক্যাটরিনা কাইফ

এই দু’জনের বয়সের পার্থক্য অবশ্য বিশেষ কিছু নয়। সিদ্ধার্থ ক্যাটরিনার চেয়ে এক বছরের ছোট। ২০১৬ সালে তাঁরা বার বার দেখো ছবিতে জুটিবদ্ধ হয়েছিলেন।

  • আদিত্য রায় কাপুর ও ক্যাটরিনা কাইফ

২০১৬ সালের ছবির ‘ফিতুর’। ছবিতে ক্যাটরিনার বিপরীতে অভিনয় করা আদিত্য বাস্তবজীবনে তাঁর চেয়ে বছর দুয়েকের ছোট।

  • বরুণ ধাওয়ান ও নার্গিস ফাকরি

২০১৪ সালে মুক্তি পায় বরুণ ধাওয়ানের ব্যবসাসফল ছবি ‘ম্যায় তেরা হিরো’। ছবিতে এলিনা ডি ক্রুজের সাথে বরুনের বিপরীতে আরো ছিলেন নার্গিস ফাকরি। নার্গিস হলেন বরুনের চেয়ে বয়সে আট বছরের বড়। যদিও সিনেমায় দেখে একদমই চোখে লাগেনি।

  • বরুণ ধাওয়ান ও জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

জ্যাকুলিন বরুণের চেয়ে দুই বছরের বড়। ২০১৭ সালে দু’জনে ‘জুড়ুয়া ২’ ছবিতে জুটি বাঁধেন। সিনেমাটি দারুণ ব্যবসা সাফল্য পায়।

  • টাইগার শ্রফ ও জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ

টাইগারের বিপক্ষে কেন্দ্রীয় চরিত্রে ২০১৬ সালে ‘আ ফ্লাইং জাট’ ছবিটি করেন জ্যাকুলিন। অথচ, টাইগারের চেয়ে পাঁচ বছরের বড় তিনি।

  • রণবীর কাপুর ও নার্গিস ফাকরি

২০১১ সালে নার্গিস ফাকরির অভিষেক হয় ইমতিয়াজ আলীর ছবি ‘রকস্টার’-এ। সিনেমায় তাঁর বিপরীতে ছিলেন স্বয়ং রণবীর কাপুর। যদিও, তখন দেখে বোঝার কোনো উপায় ছিল না যে দু’জনের মধ্যে নার্গিস বয়সে তিন বছরের বড়।

  • অর্জুন কাপুর ও কারিনা কাপুর

২০১৬ সালে অর্জুন ও কারিনা ‘কি অ্যান্ড কা’ ছবিটি করেন। বাস্তবে দু’জনের মধ্যে কারিনাই বড়। দু’জনের বয়সের পার্থক্য পাঁচ বছরের।

  • ইমরান খান ও কারিনা কাপুর

এর আগেও কম বয়সী নায়কদের সাথে কাজ করেছেন কারিনা। তিনি দু’টি ছবি করেন ইমরান খানের সাথে। ইমরান তাঁর চেয়ে বয়সে তিন বছরের ছোট। ২০১২ সালে ‘এক ম্যায় হু অওর এক তু’ ও ২০১৩ সালে ‘গোরি তেরে প্যায়ার মে’ এই দু’টি ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন এই দু’জন। মজার ব্যাপার হল এই কারিনাই আবার ইমরানের মামা আমির খানের সাথে জুটি বেঁধে ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর মত ব্লকবাস্টার ছবি উপহার দিয়েছেন।

  • আলী ফজল ও বিদ্যা বালান

অভিনেত্রী বিদ্যার চেয়ে আলী ফজল প্রায় আট বছরের ছোট। ২০১৪ সালে তাঁরা ‘ববি জাসুস’ ছবিতে জুটি বাঁধেন। সমালোচকরা ছবিটির বেশ প্রশংসা করেন।

  • ইমরান হাশমী ও বিদ্যা বালান

ইমরানের চেয়ে বিদ্যা এক বছরের বড়। দু’জন জুটি বেঁধে দু’টি ছবি করেন। প্রথমটি ২০১২ সালের ‘ডার্টি পিকচার’। অপরটি হল ২০১৫ সালের ‘হামারি আধুরি কাহানি’।

  • শহীদ কাপুর ও বিদ্যা বালান

২০০৮ সালের ছবি ‘কিসমত কানেকশন’। জুটি বাঁধেন শহীদ কাপুর ও বিদ্যা বালান। বিদ্যা বাস্তব জীবনে শহীদের চেয়ে তিন বছরের বড়।

  • শহীদ কাপুর ও রাণী মুখার্জী

‘দিল বোলে হাড়িপ্পা’ ছবিটি ২০০৯ সালে মুক্তি পায়। এখানে জুটি বাঁধেন শহীদ কাপুর ও রাণী মুখার্জী। রাণীই এই জুটিতে সিনিয়র। তিনি শহীদের চেয়ে তিন বছরের বড়।

  • রণবীর সিং, অর্জুন কাপুর ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

২০১৪ সালের ছবি ‘গুন্ডে’-তে রণবীর সিং ও অর্জুন কাপুর – দু’জনের বিপরীতেই ছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মজার ব্যাপার হল দু’জনের চেয়েই সাবেক এই বিশ্ব সুন্দরী তিন বছরের বড়। পরে তিনি রনবীর সিংয়ের বিপরীতে আবারো কাজ করেন। ২০১৫ সালে ‘বাজিরাও মাস্তানি’-তে তিনি রণবীর মানে বাজিরাওয়ের স্ত্রী  কাশিবাইয়ের চরিত্র করেন।

  • নিল নিতিন মুকেশ ও বিপাশা বসু

২০০৯ সালের ছবি ‘আ দেখে জারা’। ছবিতে আবেদনময়ী বিপাশার বিপরীতে ছিরেন নিল নিতিন মুকেশ। এই মুকেশের চেয়ে বিপাশা বয়সে তিন বছরের বড়।

  • রণবীর কাপুর ও বিপাশা বসু

‘বাচনা অ্যায় হাসিনো’ ছবিতে রণবীর ও বিপাশার রসায়ন বেশ আলোচিত হয়েছিল। অথচ, রনবীরের চেয়ে বিপাশা পাক্কা আট বছরের বড়। ছবিটা ২০০৮ সালে মুক্তি পায়।

  • রণবীর কাপুর ও কঙ্কনা সেন শর্মা

‘ওয়েক আপ সিড’ ছবিটির খুব প্রশংসা করেছিলেন সমালোচক ও দর্শকরা। ২০০৯ সালের ছবিটিতে রণবীরের বিপরীতে ছিলেন কঙ্কনা। কঙ্কনা রণবীরের চেয়ে বয়সে তিন বছরের বড়। দু’জনের জুটি সেবার বেশ আলোচিত হয়।

এই তালিকায় ঐশ্বরিয়ার সাথে অভিষেক বচ্চন কিংবা বিপাশা বসুর সাথে করণ সিং গ্রোভারের জুটির কথাও আসতে পারতো। কিন্তু, বাস্তব জীবনেই তারা বিবাহের বন্ধনে আবদ্ধ। সেখানে সিনেমায় জুটি বাঁধা তো তুচ্ছ ব্যাপার।

মিড ডেইন্ডিয়া টুডে অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।