‘বেটার দ্যান বেস্ট’ হবেন শাহরুখ?

নি:সন্দেহে অমিতাভ বচ্চন, ধর্মেন্দ্র কিংবা বাকি দুই খানের সাথে ইন্ডিয়ান ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে বড় সুপারস্টার হলেন শাহরুখ খান। ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা’ সিনেমা দিয়ে অভিষিক্ত শাহরুখ খান ভারতের সবচেয়ে ধারাবাহিক সাফল্য পাওয়া অভিনেতাদের একজন।

২০০০ থেকে ২০১০ সাল অবধি সময়টা ছিল শাহরুখ খানের ক্যারিয়ারের স্বর্ণযুগ। তবে, এর পর থেকেও কিং খানের সাফল্যের পরিমান নেহায়েৎ কম নয়। যদিও, সংখ্যার খেলায় এই যুগে বাকি দুই খানের চেয়ে কিছুটা পিছিয়ে থাকবেন শাহরুখ।

‘রা ওয়ান’, ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’, ‘হ্যাপি নিউ ইয়া, ‘দিলওয়ালে’ কিংবা ‘রাঈস’ – সবগুলো সিনেমায় মুক্তির প্রথম দিনে বাজিমাৎ করেছে বলিউডে। পারেনি কেবল ‘জাব হ্যারি মিট স্যাজাল’। শাহরুখ খান কতটা জনপ্রিয় সেটা দেখতে প্রতি বছর দুই নভেম্বর তাঁর বাড়ির বাইরে গিয়ে দাঁড়ালেই হয়। প্রিয় তারকার জন্মদিন উপলক্ষ্যে সেদিন বাড়ির সামনে সদর দরজার বাইরে গিয়ে হাজির হন হাজার হাজার ভক্ত।

গেল আট বছর সময়ে মুক্তি পেয়েছে শাহরুখ খান অভিনীত ১০ টি সিনেমা। বলিউড বক্স অফিসে ১০ টি সিনেমার মোট আয় ১২৯৫.৭৫ কোটির রুপি। মানে সিনেমা প্রতি কালেকশন হল ১২৯.৫৭ কোটি রুপি। আয়ের এই হিসেবে তিনি সালমান খান বা আমির খানের চেয়ে খুব বেশি একটা পিছিয়ে নেই।

‘রা ওয়ান’, ‘ডন ২’, ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’-এর মত সিনেমাগুলো উৎসবের সময় মুক্তি পেয়ে বাজার গরম করেছিল। তবে, শাহরুখের ‘জাব তাক হ্যায় জান’, ‘দিলওয়ালে’ ও ‘রাঈস’কে মুক্তির সময় কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীতার মুখোমুখি হতে হয়, যাতে করে বানিজ্যিক সাফল্যে কিছুটা প্রভাব পড়ে। বক্স অফিস বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যদি অন্য কোনো সিনেমার সাথে প্রতিযোগীতা না হত, তাহলে হয়তো বক্স অফিস থেকে আয়ের পরিমান কমপক্ষে ২০ শতাংশ বাড়তো।

সাম্প্রতিক সময়ে স্ক্রিপ্ট নির্বাচন নিয়ে একটু ঝক্কি পোহাতে হচ্ছে শাহরুখ খানকে। ফলাফল, সর্বশেষ কয়েকটা ছবি আশানুরূপ ব্যবসা করতে পারেনি। তবে, ধারণা করা হচ্ছে, আগামী বড়দিনে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘জিরো’ দিয়ে তিনি ফের নিজের হারানো আসন ফিরে পাবেন।

এই সিনেমাটি যদি ২০৫ কোটি রুপি আয় করতে পারে তাহলেই শাহরুখ খান পৌঁছে যাবেন ১৫০০ কোটি রুপির সম্মানজনক ক্লাবে। আর কনটেন্ট যদি, ভাল হয় তাহলে নি:সন্দেহে শাহরুখ নিজের স্টারডমকে কাজে লাগিয়ে হেসে খেলেই সেটা করে ফেলতে পারবেন। একই সাথে ভবিষ্যতের দিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে বলিউড বাদশাহকে। বুঝতে হবে, স্টারডমের সাথে জরুরী ভাল স্ক্রিপ্টও। তাহলেই তিনি হবেন ‘বেটার দ্যান দ্য বেস্ট’!

শেষ আট বছরে শাহরুখের সিনেমার আয়

  • মাই নেম ইজ খান: ৭২.৭৫ কোটি রুপি
  • রা ওয়ান: ১২৫ কোটি রুপি
  • ডন ২: ১১২ কোটি রুপি
  • জাব তাক হ্যায় জান: ১২১ কোটি রুপি
  • চেন্নাই এক্সপ্রেস: ২২৭ কোটি রুপি
  • হ্যাপি নিউ ইয়ার: ২০৪ কোটি রুপি
  • দিলওয়ালে: ১৪৯ কোটি রুপি
  • ফ্যান: ৮৫ কোটি রুপি
  • রাঈস: ১৩৭.৫০ কোটি রুপি
  • জাব হ্যারি মেট স্যাজাল: ৬২.৫০ কোটি রুপি
  • মোট: ১২৯৫.৭৫ কোটি রুপি
  • গড়ে প্রতি সিনেমায়: ১২৯.৫৭ কোটি রুপি

– কইমই অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।