অবশেষে পাপ্পু পাশ করলেন!

কাচাপাঁকা দাড়ি। হঠাৎ করে দেখলে খেলোয়াড় নয়, বরং কোচ বলেই মনে হয়। অথচ, তিনি এখনো নবীন এক ক্রিকেটার। হ্যা, মাত্র ১৮ টি লিস্ট ‘এ’ খেলা ঘরোয়া লিগের ক্রিকেটারকে তো নবীনই বলতে হয়।

অথচ, যখন শুনবেন সেই ক্রিকেটারটির বয়স প্রায় ৩৮ তখন আপনার চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। আর যখন যাবেন সদ্যই তিনি লিস্ট স্বীকৃত ক্রিকেটে নিজের প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন, তাহলে সত্যিকার অর্থেই আপনি নড়ে চড়ে বসতে বাধ্য।

তিনি হলেন সালাউদ্দিন পাপ্পু। এই বয়সেও কি একটা দানবীয় ইনিংস খেললেন। লিজেন্ড অব রুপগঞ্জের হয়ে বিকেএসপিতে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের বিপক্ষে তাঁর ব্যাট থেকে আসলো ১২৫ রান। ওপেনিং পজিশনে ব্যাট করতে নেমে ৯৫ বল ক্রিজে থেকে তিনি হাঁকিয়েছেন ১২ টি চার ও আটটি ছক্কা।

ঢাকার ঘরোয়া ক্রিকেটে পাপ্পু কোনো অপরিচিত নাম নয়। ১৮ বছর ধরে যিনি এই অঙ্গনে আছেন, তিনি কি করে অপরিচিত হন। ১৮ বছরে তিনি খেলেছেন ১০ টি ভিন্ন ভিন্ন ক্লাবে। তবে লিস্ট এ অভিষেক হতে তাঁকে অপেক্ষা করতে হয়েছে প্রায় দেড়যুগ।

গত মৌসুমে গিয়ে তার অভিষেক হয়েছে প্রিমিয়ার লিগে। খেলেছেন খেলাঘর সমাজ কল্যান সংস্থার হয়ে। খুব বলার মত কোনো কিছু করতে পারেননি। একটা ইনিংসেই কেবল ৫১ বলে পাঁচটি চার ও পাঁচটি ছক্কার সুবাদে করতে পেরেছিলেন ৬০ রান।

এই আসরে খেলছেন রুপগঞ্জের হয়ে। উইকেটরক্ষক বলেই একাদশে থাকাটা তাঁর জন্য এবার সহজ হয়েছে। বিগ হিটার হিসেবে যার এত নাম, তিনি এতদিনে একটা সত্যিকারের তাণ্ডব দেখালেন।

একটা ছোট তথ্য এখানে উল্লেখ করা দরকার যে, এই পাপ্পু হলেন ঘরোয়া ক্রিকেটের আরেক ক্রিকেটার আলাউদ্দিন বাবুর আপন বড় ভাই। বাবু ২০১০ সাল থেকে নিয়মিত শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেট খেলছেন। কখনো জাতীয় দলে না খেললেও প্রাথমিক স্কোয়াডে ডাক পেয়েছেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের এই পেসার।

দুই ভাই বাবু ও পাপ্পু

বরাবরই, বিগ হিটার হিসেবে পাপ্পুর বেশ নাম ডাক আছে। যদিও, কখনোই তাঁকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্লেয়ার ড্রাফটে রাখা হয়নি। যদিও, তিনি মনে করেন, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের জন্য তিনি প্রস্তুত। একবার বলেছিলেন, ‘আমি সব সময় এভাবেই খেলি। যতগুলো ক্লাবে খেলেছি, সব জায়গাতেই আমি এরকম ধুমধারাক্কা ব্যাট চালিয়েছি। আমার মনে হয়, বিপিএলে সুযোগ পেলেও সেখানেই এটা করতে পারবো। যদিও, আমাকে কখনো ড্রাফট বা নিলামের তালিকাতেই রাখা হয়নি। নজরে আসার জন্য আমাকে আরেকটু ভাল খেলতে হবে।’

অবশেষে নজরে আসতে পারলেন পাপ্পু। বিপিএলের কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি কি আছে, যারা এই ‘বুড়ো’র ওপর ভরসা রাখবে?

– ইএসপিএন ক্রিকইনফো অবলম্বনে

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।