উচ্চমাধ্যমিকের বইয়ে স্টিফেন হকিংয়ের ছবি-বিভ্রাট!

বিখ্যাত ব্রিটিশ তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংকে কে না চেনে? কিন্তু, বাংলাদেশের জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) তাকে চিনতে ভুল করলো, উচ্চমাধ্যমিকের পদার্থবিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্র বইয়ে স্টিফেন হকিংয়ের জায়গায় স্টিফেন হকিংয়ের বদলে ছাপা হল হলিউডের ব্রিটিশ অভিনেতা এডি রেডমাইনের ছবি।

একাদশ অধ্যায়ের জ্যোতির্বিদ্যা চ্যাপ্টারের ৬৩৪ নম্বর পৃষ্ঠায় ব্ল্যাক হোল ও ‘স্টিফেন বিকিরণ’ নিয়ে এক লেখায় এই এই ছবি ওলট-পালটের ঘটনা ঘটে। আর সে নিয়ে সম্প্রতি সরব হয়েছে স্যোশাল মিডিয়াও।

স্টিফেন হকিংয়ের জীবনী নিয়ে ২০১৪ সালে হলিউডে নির্মিত হয় বিখ্যাত সিনেমা ‘দ্য থিওরি অব এভ্রিথিং’। সেখান হকিংয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন রেডমাইন। সিনেমাটির জন্য অস্কারও জিতেন নামী এই অভিনেতা।

সিনেমাটি পরিচালনা করেন জেমস মার্শ। মূলত হকিংয়ের সাবেক স্ত্রী জেন হকিংয়ের ‘ট্রাভেলিং টু ইনফিনিটি: মাই লাইফ উইদ স্টিফেন’ বইটিকে অনুসরণ করে নির্মিত হয় সিনেমাটি।

এই সিনেমাটির কারণেই আসলে পদার্থবিজ্ঞানের বইয়ে ছবি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন। এনসিটিবি অনুমোদিত বইটি শাহজাহান তপন, মুহাম্মদ আজিজ হাসান এবং রানা চৌধুরী লিখেছেন। প্রয়াত ড. শাহজাহান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের শিক্ষক ছিলেন। বাকি দু’জন সরকারী ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক শিক্ষক।

জানা গেছে, চ্যাপ্টারের এই অংশটি যোগ হয়েছে চলতি বছরই। বইটি প্রকাশ করেছে হাসান বুক হাউজ। যদিও, তাদের পক্ষ থেকে এখনো আনুষ্ঠানিক ভাবে কিছু বলা হয়নি।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।