সেরা বাঙালির লিগ্যাসি

বিশ্বজুড়ে স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করে বাংলা অঞ্চলকে গৌরবান্বিত করেছেন, এমন বাংলা ভাষাভাষীদের কাজের স্বীকৃতি প্রদানের লক্ষ্যে ২০০৫ সাল থেকে প্রতিবছর কলকাতার এবিপি-আনন্দ গ্রুপ ‘সেরা বাঙালি’ পুরষ্কার প্রদান করে আসছে। ১৩ তম বারের মতো এবার কলকাতায় এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কয়েকজন গুণী বাঙালির হাতে ‘সেরা বাঙালি-২০১৭’ এর স্মারক তুলে দিয়েছে এবিপি-আনন্দ গ্রুপ, যেখানে এবার এপার বাংলা থেকে স্বীকৃতি পেয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং জয়া আহসান।

এবারই প্রথমবারের মতো একই বছরে দুজন বাংলাদেশি সেরা বাঙালির পুরষ্কার পেলেন। তবে, তাঁরাই প্রথম নন। তাঁদের আগে আরও চারজন বাংলাদেশি কলকাতার বিমানে চড়েছেন, ‘সেরা বাঙালি’ পুরষ্কারে পুরষ্কৃত হয়ে। তারা হলেন: হাবিবুল বাশার সুমন, মাহবুবুর রহমান, সাকিব আল হাসান এবং শাহীন আখতার। এবারের পুরষ্কারের স্মৃতি তাজা থাকতে থাকতেই দেখে আসা যাক, এ পর্যন্ত ‘সেরা বাঙালি’ স্বীকৃতি প্রাপ্ত বাংলাদেশিদের সম্পর্কে:

★ হাবিবুল বাশার সুমন

এক অর্থে, হাবিবুল বাশারকে অগ্রদূত বলা যেতে পারে। কেননা,তাঁর হাত ধরেই পুরষ্কার প্রবর্তনের ৩ বছর পরে প্রথম কোনো বাংলাদেশি সেরা বাঙালি পুরষ্কার পান। বাংলাদেশের ক্রিকেটে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০০৭ সালে তাঁর হাতে ওঠে এই পুরষ্কার।

★ মাহবুবুর রহমান

ক্ষণজন্মা এই চিত্রশিল্পী ‘সেরা বাঙালি’ পুরষ্কার পান ২০১১ সালে। এই চিত্রশিল্পী তাঁর ক্যানভাস হিসেবে হেন কোনো মাধ্যম নেই যা ব্যবহার করেননি, এমনকি বাদ যায়নি তাঁর নিজ শরীরও। শুধুমাত্র বাহ্যিক আনন্দ লাভের জন্য নয়, চিত্রকর্ম যেন বৃহত্তর সমাজের কথা বলে এই আপ্তবচন অন্তরে ধারণ করেই তিনি এখোণো এঁকে যাচ্ছেন। সেরা বাঙালি পুরষ্কার সেই কর্মেরই স্বীকৃতি।

★ সাকিব আল হাসান

আইপিএল খেলতে তিনি তখন কলকাতায়। তখনই তাঁর ডাক পড়লো, ‘সেরা বাঙালি-২০১২’ পুরষ্কার গ্রহণ করার জন্য। আইসিসি র‍্যাংকিং-য়ে নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার হয়ে বাঙালি জাতিকে গর্বিত করেছেন তিনি, পুরষ্কার প্রদানের পূর্বে এমনই বলছিলেন সঞ্চালক। সেবার তার সাথে ক্রীড়াক্ষেত্রে পুরষ্কার পেয়েছিলেন আরেক বাঙালি ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি।

★ শাহীন আখতার

লেখিকা শাহীন আখতার ‘সেরা বাঙালি’ পুরষ্কার পেয়েছিলেন ২০১৪ সালে। এখন পর্যন্ত তিনটি উপন্যাস রচনা করেছেন তিনি, যার মধ্যে একটি উপন্যাস ইংরেজিতে অনূদিত হয়েছে। বাংলা সাহিত্যে নারীদের অবদান ও সৃজনশীলতা নিয়ে লেখা বই ‘সতি ও স্বতন্ত্ররা: বাংলা সাহিত্যে নারী’ এর সম্পাদনাও হয়েছে তাঁর হাত ধরেই।

★ জয়া আহসান

সিনেমাজগতে এপার কিংবা ওপার বাংলায় সমান জনপ্রিয় এই বাংলাদেশী অভিনেত্রীর হাতে সেরা বাঙালির স্মারক উঠেছে এবারই। ২৯ জুলাই রাতে এ গুণী অভিনেত্রী তাঁর কাজের স্বীকৃতি পান, যা তুলে দেন আরেক গুণী অভিনেতা প্রসেনজিৎ। পুরষ্কার পেয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত এই শিল্পী তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন, অভিনয়ের অ আ ক খ শেখার সময়ে এমন স্বীকৃতি তাঁর দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দিলো।

★ মাশরাফি বিন মুর্তজা

খেলার প্রতি তাঁর ভালোবাসা যেকোনো অমর প্রেম কাহিনীকেও হার মানাতে বাধ্য। বারেবারে চোটাঘাতে জর্জরিত শরীর নিয়ে এখনও তিনি খেলে যাচ্ছেন, দেশের পতাকা বহন করে নিয়ে যাচ্ছেন। শুধু খেলে যাচ্ছেন বললে ভুল হবে, তাঁর অনুপ্রেরণাদায়ী নেতৃত্বেই বাংলাদেশ অতিক্রম করছে বিশ্ব ক্রিকেটের একের পর এক হার্ডল। তাই, ক্রীড়াক্ষেত্রে ২০১৭ সালের ‘সেরা বাঙালি’ হিসেবে জুরি বোর্ড বেছে নিয়েছেন মাশরাফিকেই।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।