সালোয়ারের ওপর গেঞ্জি মানেই অশালীন!

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলের পাশে ২০১২ সালের যাত্রা শুরু করে কবি সুফিয়া কামাল হল। যার নামে এই হল, তিনি নারীর ক্ষমতায়ন ও সমাজে নারীর সম-অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন আজীবন।

অথচ, সেই হল কর্তৃপক্ষের এক নোটিশই সম্প্রতি আলোচনার ঝড় তুলেছে। সেখানে সালোয়ারের ওপর গেঞ্জিকে অশালীন পোশাক বলে উল্লেখ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, হলের ভেতরে এমন পোশাক নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

নোটিশটিতে বলা হয়েছে, হলের ভেতর দিন বা রাত – কখনোই ছাত্রীরা অশালীন পোশাক (সালোয়ারের ওপর গেঞ্জি) পরতে পারবেন না। এ পোশাকে হলের অফিস রুমে কোনো কাজের জন্য ঢোকা যাবে না। কেউ যদি তা করেন, তবে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে হল কর্তৃপক্ষ বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেবে।

জানিয়ে রাখা ভাল, হলের আবাসিক ছাত্রীদের সংখ্যা দুই হাজার। এছাড়া অনাবাসিক ছাত্রী আছেন তিন হাজার ৩০০ জন। চার বছর আগে থেকে হলটিতে ছাত্রীরা থাকা শুরু করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই নোটিশের ছবিটি ভাইরাল হওয়ার পর বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

যদিও, ‍সুফিয়া কামাল হল কর্তৃপক্ষ দাবী করে এমন কোনো নোটিশ তারা দেয়নি। এই ঘটনাকে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে দাবী করে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।