যে দোকানে কোনো দোকানদারই নেই!

দোকান ও দোকানদার – শব্দ দু’টো একে অন্যের পরিপূরক। একজনকে ছাড়া অন্যজনের অস্তিত্ব কল্পনাই করা যায় না। যদিও, এই ধারণাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দিল চীন।

তারা এমন একটা মুদির দোকান আবিস্কার করেছে, যাতে কোনো দোকানদারের প্রয়োজন নেই। নাম দিয়েছে – সেলফ সার্ভিস সুপারমার্কেট। আর উত্তর চীনেই হেবেই প্রদেশে এই সুপারমার্কেট খুব জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

প্রথমে কিউআর কোড দিয়ে ক্রেতাকে স্ক্যান করার পর দোকানটির দরজা আপনা-আপনিই খুলে যায়। এরপর তিনি পন্য দেখে পছন্দ করেন।

ক্রেতার কেনাকাটা শেষ করে পন্যগুলোকে স্ক্যান মেশিনে দিয়ে স্ক্যান করিয়ে তিনি বের হয়ে আসতে পারেন। পর্দায় পন্যের হদিস জানানো হয়। সেখানে নাম ও সংখ্যা নির্বাচন করার উপায় আছে।

অর্থকড়ির লেনদেন হয় অনলাইনে। চীনের টাকা দেওয়ার অনলাই সেবা যেমন আলি-পে বা উইচ্যাট ওয়ালেটের মাধ্যমে কেনাকাটার বিল পরিশোধ করা যায়। বিল পরিশোষ হওয়ার পর ‘পারচেজ সিগনাল’ পৌঁছে যাবে সুপারমার্কেটের সিস্টেমে। ফলে, আবারো নিজে থেকে দোকানের দরজা খুলে যাবে।

নতুন নতুন প্রযুক্তি আবিস্কারের জন্য চীন বরাবরই বিখ্যাত। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হয়ে গেল নতুন একটা নাম – সেলফ সার্ভিস সুপারমার্কেট। হয়তো শিগগিরই চায়না থেকে এই প্রযুক্তি ছড়িয়ে পড়বে বাইরের বিশ্বে।

চায়নানিউজ অবলম্বনে

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।