যেদিন আর ফিরবে না

এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউড। যাত্রা শুরু হয় সেই ১৯১৩ সালে। দেখতে দেখতে কাটিয়ে ফেলেছে ১০৪ টি বছর, চারা গাছ থেকে হয়ে উঠেছে মহীরূহ। চলুন, কিছু ফটোগ্রাফে পুরনো দিনগুলোর স্মৃতি রোমন্থন করা যাক।

দুই বন্ধু – নাসিরউদ্দিন শাহ ও ওম পুরি
আর্থ সিনেমার একটি দৃশ্য। স্মিতা পাতিল, শাবানা আজমি ও কুলভূষণ খারবান্দা। সিনেমাটি নিজের জীবন অবলম্বনে নির্মান করেছিলেন মহেশ ভাট।
অ্যাংরি ইয়ং ম্যান ধর্মেন্দ্রর সাথে দুই ভাই সালমান খান ও সোহেল খান।
মহেশ ভাটের সাথে কিংবদন্তি অভিনেতা বিনোদ খান্না
দিলওয়ালিয়া দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে সিনেমার সেটে শাহরুখ খান, করন জোহর ও সবার নিচে উদয় চোপড়া
মহেশ ভাটের ‘সারাংশ’ ছবির দৃশ্যে অনুপম খের, রোহিনী হাত্তানগাদি ও সোনি রাজদান। সোনি রাজদান হলেন মহেশ ভাটের স্ত্রী ও আলিয়া ভাটের মা।
তরুণ বয়সে গোঁফহীন অনিল কাপুর
অক্ষয়-টুইংকল। ১৯৯৬ সালের ছবি।
নব্বইয়ের দশক। এক সাথে আমির খান, গুলশান গ্রোভার ও শাহরুখ খান।

 

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।