বলিউডে সময়ের সেরা পাঁচ

বলিউডে চলছে পালাবদল। বুড়িয়ে যাওয়া তারকাদের সাথে পাল্লা দিয়ে লড়ছে আগামী দিনের সম্ভাবনারা। তবে, ২০১৭ সালের বক্স অফিস রিপোর্ট বলছে এখন অবধি এগিয়ে আছেন অভিজ্ঞরাই। তবে, সামনের সারিতে চলে আসার অপেক্ষায় আছেন বেশ কয়েকজন সম্ভাবনাময় তরুণ।

সালমান খান

সময়ের সবচেয়ে বড় তারকা সালমান খান-এর ২০১৭ সালে দু’টো বিগ বাজেটের ছবি মুক্তি পেয়েছে। ঈদের ছবি ‘টিউবলাইট’ আশানুরূপ ব্যবসা করতে না পারলেও বড় দিনের ছবি টাইগার জিন্দা হ্যায় বড় রকম সাফল্য পেয়েছে। ইতিমধ্যে ছবিটি ৩০০ কোটির ঘরে প্রবেশ করেছে এবং এ নিয়ে পর পর ৩ বছর সাল্লু ভাইয়ের তিনটি ছবি ৩০০ কোটি রুপির মাইলফলক স্পর্শ করেছে। সুতরাং বলাই বাহুল্য ‘টিউবলাইট’-এর ব্যর্থতা ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ খুব ভাল ভাবেই পুষিয়ে দিয়েছে এবং সালমান এ বছর আবার হয়েছে বলিউড বক্স অফিসের রাজা।

বরুণ ধাওয়ান

এই সময়ে  যে তরুণ অভিনেতার সাফল্য নিয়ে সবচেয়ে বেশী চর্চা হয়েছে সে আর কেউ না বরং নেক্সট সুপারস্টার টাইটেল-এর দাবিদার বরুণ ধাওয়ান। এ বছর দুটো ছবি মুক্তি পেয়েছে হালের ক্রেজ বরুণের এবং দুটোই ১০০ কোটির ঘরে প্রবেশ করে সুপার হিট তকমা পেয়েছে। বক্স অফিসে শত ভাগ সাফল্য বরুন পেয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে ট্রল হয়েছে সারা বছরই। কারণ তাঁর লাগাতার বক্স অফিস সাফল্য সহ্য করতে পারছে না নিন্দুকেরা। এটাকেও এক ধরণের সাফল্যই বলা যায়। যখন কোন তারকা বড় রকম সাফল্য পায় তখন তাঁর ভক্ত এবং নিন্দুক দু’টোই বেড়ে যায়।

অক্ষয় কুমার

বরুণের মত অক্ষয়েরও দুটো ছবি মুক্তি পেয়েছে এবং দুটোই বক্স অফিসে সাফল্য পেয়েছে। ইন ফ্যাক্ট বরুণ এবং অক্ষয়ের মুভির গড় কালেকশন প্রায় সমান। কিন্তু, যেহেতু অক্ষয় অনেক দিন ধরেই বড় স্টার সেহেতু তার কাছ থেকে সবাই খানদের লেভেলের সাফল্য আশা করে। তবে অক্ষয়ের ছবিগুলো সমাজ সচেতনতামূলক ও একই সঙ্গে বানিজ্যিক হওয়ায় ২০১৭ সালে তিনি ছিলেন দারুণ রকম প্রশংসিত।

অজয় দেবগন

অজয়ের ২০১৭ সালে দুটো ছবি মুক্তি পেয়েছে। ‘বাদশাহো’ ছবিটি ফ্লপ করলেও মাল্টি-স্টারার ‘গোলমাল এগেইন’-এর ব্যাপক সাফল্য অজয়কে এ বছরের সেরা পাঁচ অভিনেতার তালিকায় নিয়ে এসেছে।

শাহরুখ খান

শাহরুখ খান এর ক্যারেয়ারের অন্যতম ব্যর্থ বছর ছিলো ২০১৭। ভারতের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অন্যতম সফল এই অভিনেতা ২০১৭ সালে দুইটি ছবি উপহার দেন। ‘রাইস’ মোটামুটি সাফল্য পেলেও ইমতিয়াজ আলীর রোমকমটি চরম রকম ব্যর্থ হয়। তারপরও রাঈসের মোটামুটি রকম সাফল্য দিয়েই এসআরকে সেরা পাঁচ অভিনেতার তালিয়ে পাঁচে আসতে সক্ষম হয়েছেন।

এই পাঁচ জন ছাড়াও ভিন্ন ধারার অভিনেতা ইরফান খান, রাজ কুমার রাও এবং আয়ুষ্মান খোরানা তাদের ছোট বাজেটের ছবি গুলো দিয়ে প্রশংসা, আলোচনা, বক্স অফিস সাফল্য সবই পেয়েছে।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।