প্রিয় শুভাশিষ, আমরা সবাই সরি

বিপিএলে উত্তেজনায় ঠাঁসা ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ১১ রানে জিতেছে চিটাগং ভাইকিংস। তবে, এই ম্যাচে চট্টগ্রামের প্রথম জয় ছাপিয়ে আলোচনায় মাশরাফি-শুভাশিষ বাদানুবাদ!

১৭ তম ওভারে বল করছিলেন শুভাশিষ। প্রথম বলে সিঙ্গেলস নিয়ে মাশরাফিকে স্ট্রাইক দেন সোহাগ গাজী। এক বল ঠেকিয়ে তৃতীয় বলে বাউন্ডারি মারেন মাশরাফি। চতুর্থ বলটি রক্ষণাত্বকভাবে খেলার পর ফলোথ্রুতে শুভাশীষ নিজেই বলটা ধরে মাশরাফির দিকে ছুঁড়ে মারার ইঙ্গিত করেন!

এদিকে মাশরাফিও ক্রিজ ছেড়ে এগিয়ে আসেন, হাত দিয়ে কিছু একটা ইশারা করেন।। উইকেটের মাঝখানে দু’জনের মধ্যে বেশ কথা কাটাকাটি হয় কিছুক্ষণ। ক্রিকেট মাঠে এই ঘটনা সব সময়ই কম বেশি ঘটে।

শুভাশীষকে খুবই আক্রমনাত্বক মেজাজে মাশরাফির মুখের ওপর কিছু বলতে দেখা যায়। পরে দু’দলের খেলোয়াড়দের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি শান্ত হয়। এগিয়ে আসেন তানভির হায়দার, সিকান্দার রাজারা।

টিভি পর্দায় যা দেখা গেছে, তাতে দোষটা শুভাশিষের বলেই মনে হয়েছে সবার। কিন্তু, তরুণ একজন খেলোয়াড় হয়ে তিনি যেভাবে মাশরাফির দিকে তেড়ে গেছেন। ‘পার্ট অব দ্য’ গেম হওয়ার পরও বিস্ময়ের কারণ হয়তো মানুষটা মাশরাফি বলেই।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ‘বস’ নামে পরিচিত মাশরাফি খেলোয়াড়দের কাছে অনুকরণীয় এক চরিত্র। মাঠ ও মাঠের বাইরে তিনি সতীর্থদের আগলে রাখেন সবসময়ই। অথচ, সেই মাশরাফির সামনেই মেজাজটা হারিয়ে বসলেন শুভাশিষ, হ্যা ‘সিনিয়র’ হয়ে মাশরাফি নিজেও অবশ্য মেজাজ হারিয়েছিলেন।

ম্যাচ শেষে মাশরাফি বলেছেন, তার আরেকটু সংযত হওয়া উচিত ছিল। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি আমার তাকে সরি বলা উচিত। আর যেটা বললাম ম্যাচের মধ্যে এটা হয়ে যায়। অবশ্যই ওর জায়গা থেকে আমি মনে করি ঠিক আছে কারণ সেও জিততে চাইবে আমিও চাইব।ও আমার ছোট তাই ওই সময় আমার মাথা ঠাণ্ডা রাখলে ভালো হত। কিন্তু এমন সিরিয়াস কিছু হয়নি। আমি জানিনা ওর কি করা উচিত ছিল। কিন্তু সিনিয়র হিসেবে আমারও মাথা ঠাণ্ডা রাখলে ভাল হত।’

বাহ! একেই বলে অধিনায়ক! একেই বলে নেতা! নিজের কোনো দোষ থাকুক আর নাই থাকুক নিয়ে অবলীলায় স্যরি বলতে পারেন! তাই, আমরাও নাহয় মাশরাফির সঙ্গে গলা মিলিয়ে সমস্বরে বলি- ‘স্যরি, শুভাশিষ!’ যা হয়েছে, সেটা খেলার মাঠেই শেষ হয়ে যাক।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।