আপনিও ‘সুলভ’ মূল্যে কিনে নিতে পারেন নেইমারকে!

ব্রাজিলিয়ান ফুটবলের পোস্টার বয় নেইমার জুনিয়রকে দলে ভেড়ালো ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। তবে এর আগে ক্লাবটিকে ভাঙতে হয়েছে আগের সব ট্রান্সফার রেকর্ড। ঢালতে হয়েছে ২২২ মিলিয়ন ইউরো। নেইমারের বাজারদর ১৯৮ মিলিয়ন পাউন্ড অথবা ২৬২ মিলিয়ন ডলার।

সমপরিমাণ অর্থে কেনা স্প্যাগেটি, পুরো বার্সেলোনা শহরটাকে ঢেকে ফেলার জন্য যথেষ্ট।

মানব ক্লোনের খরচ মোটামুটিভাবে ১.২৯ মিলিয়ন পাউন্ড। নেইমারের ট্রান্সফার ফি দিয়ে ১৫৩ টা নেইমার লুক এলাইক বানানো সম্ভব।

২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে আপনি কিনতে পারেন ৭৯২০০০০০০টি ফ্রেডো চকলেট বার।

এছাড়াও নেইমারের ট্রান্সফার ফির সমপরিমাণ অর্থ দিয়ে আপনি যা যা পারেন…

একটা প্লেন (কিংবা তিন-তিনটি!)

একটা বোয়িং ৭৩৭-৭০০ প্যাসেঞ্জার প্লেনের দাম ৮২ মিলিয়ন ডলার। নেইমারের ট্রান্সফার ফির সমপরিমাণ অর্থে আপনি এই ধরনের বিমান কিনতে পারবেন তিনটি।

যদি আরেকটু উন্নতমানের স্ন্যাজিয়ার ৭৩৭-৮০০ কিনতে চান তাহলে কিনতে পারবেন দুটো, তারপরও ৬৫ মিলিয়ন ডলার আপনার অ্যাকাউন্টে চকচক করতে থাকবে।

ফাইটার জেট

ফাইটার জেটের মার্কেটে আছেন?

একটা এফ৩৫ লাইটনিংয়ের বাজারদর ৯৪ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

এফ২২ র‍্যাপ্টর যখন বাজারজাত করা বন্ধ করে দেয়া হয় তখন এর বাজারমূল্য ছিলো ১৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার। যদি আপনি বেশ হিসেবি হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য রয়েছে রাশান এস ইউ ২৪ এস। একজন নেইমারের বদলে আপনি পেতে পারেন দশ দশটি এসইউ ২৪ এস।

বেসবল দল

নেইমারের ট্রান্সফার ফির সমপরিমাণ অর্থ দিয়ে নিউইয়র্ক য়াংকির মূল দলের সকল খেলোয়াড়ের বাৎসরিক বেতন মিটিয়ে দেয়া সম্ভব। খেলোয়াড়দের বেতনভাতা মেটাতে প্রতি বছর ১৫৫ মিলিয়ন ডলার খরচ পরে দলটির। যদি মাইনর দলকেও এ খরচে অন্তর্ভূক্ত করা হয় তাহলে এ অঙ্ক দাঁড়ায় ২২৩ মিলিয়ন ডলারে।

সুপারবোল চ্যাম্পিয়ন নিউ ইংল্যান্ড প্যাট্রিয়টস দলের খেলোয়াড়দের মোট বেতন ভাতার অঙ্ক আরো কম। ‘মাত্র’ ১৭২ মিলিয়ন ডলার। নেইমারের ট্রানফার ফি দিয়ে যা আরামসে মিটিয়ে দেয়া যায়।

আপনার যদি নেইমারকে কেনার সামর্থ্য থাকে, তাহলে আপনার কাছে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ৫ দেশের একটার জিডিপি সমান অর্থ আছে।

ইউএন পরিসংখ্যান অনুযায়ী, নাউরু, টুভাল্যু, পালাউ, কিরিবাতি, মার্শাল আইল্যান্ডস, মন্টসেরাট এদের জিডিপি ৩৩ মিলিয়ন থেকে ২৫৮ মিলিয়নে ঘোরাফেরা করে।

আপনি যদি দাতা হাতেম তায়ী হয়ে থাকেন আর ২২২ মিলিয়ন ইউরো যদি আপনার পকেটে থাকে তাহলে আপনি ক্ষুদ্রতম দেশগুলোর যেমন টোঙ্গা (২৮.৪ মিলিয়ন), ফিজি (৭২.৪ মিলিয়ন), ভানুয়াটু (৮২ মিলিয়ন) হাইতি ২৩৪ মিলিয়ন) এদের কোনো একটার বাৎসরিক ঋণ মিটিয়ে দিতে পারবেন।

‘নাহ! আমি নেইমারকেই কিনবো!’ – আচ্ছা ঠিকাছে! যদি আজকে থেকে প্রতিদিন আপনি লকারে ১০০০ ডলার করে জমাতে শুরু করেন তাহলে অচিরেই নেইমারকে কিনতে পারবেন। সময়টা খুব বেশি নয়, মাত্র ৭১৮ বছর। অভিনন্দন আপনাকে!

– বিবিসি অবলম্বনে

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।