ঢাকায় বার্গারবিলাসের পাঁচ ঠিকানা

ঢাকা শহরের অলিতে গলিতে দেশি-বিদেশি নানা ধরণের খাবার আজকাল সবার হাতের নাগালেই। তবে এত সব ‘অপশন’-এর ভীড়ে কোনটা ছেড়ে কোনটা খাবেন এই ভেবে অনেকে বিড়ম্বনায় ভোগেন। কেউ ফেসবুক রিভিউ, কেউ বন্ধু-বান্ধবদের দ্বারস্ত হন। কখনো খাবারের মান-সার্ভিস আপনাদের মন মত হয়, আবার কখনো হয়না।

তাই ভোজনবিলাসীদের দুর্দশা লাঘব করতে চলে এসেছি আমরা। ঢাকার রেস্তোরাঁগুলোর খাবারের একটা স্বচ্ছ ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করতেই আমাদের নিয়মিত আয়োজন ‘না খেলেই নয়’। প্রথমেই থাকছে বার্গারের খোঁজ-খবর।

এখানে প্রকাশিত সকল মতামত লেখকের একান্তই ব্যক্তিগত। এটা কোন জনমত জরিপের ফলাফল নয়।

ম্যাডশেফ

ঢাকা শহরের জনপ্রিয় বার্গার ব্র্যান্ড গুলোর একটি ধানমন্ডি’র ৯/এ-তে অবস্থিত ম্যাডশেফ। এর শাখা আছে উত্তরা, বনানী ও মিরপুরেও। বিভিন্ন স্বাদের বিভিন্ন ধরণের বার্গার রয়েছে এখানে। ম্যাডশেফ এর মেন্যু খুললেই বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অনেক ধরণের বার্গার দেখতে পাওয়া যায়। এর মধ্যে গোরমেন্ট ক্যাটাগরির ‘মাইটি স্পাইসি চিক’ বার্গারটি সবচাইতে সুস্বাদু বলে মনে হয়েছে। এই বার্গারের মাঝে রয়েছে দু’টি বারবিকিউ চিকেন প্যাটি, রয়েছে বিফ বেকন এর একটি লেয়ার, সাথে যথেষ্ট পরিমাণ চিজ আর নাগা সসের সম্মিলন। তাই এই বার্গারে একইসাথে বারবিকিউ চিকেন বার্গার, নাগা বার্গার এবং বিফ বেকন বার্গারের স্বাদ পাওয়া যায়। এই বার্গারটি আপনার পেট ভরাবে ঠিকই তবে একটি বার্গারে আপনার মন নাও ভরতে পারে। এই মজার বার্গারটি খেতে আপনার গুনতে হবে ৩৬০ টাকা তবে মান ও স্বাদ বিচারে তা ন্যায্য বলেই মনে হয়।

শেফ’স কুইজিন

ম্যাডশেফ এর চিকেন বার্গারগুলো আমার অনেক পছন্দের হলেও বিফ প্যাটির বার্গার গুলো আমার তেমন ভাললাগেনি কখনোই। তবে বিফ প্যাটির বার্গারের অন্যতম স্বাদ পেয়েছিলাম শ্যামলী স্কয়ারের শেফ’স কুইজিনে। বারবিকিউ বিফ এন্ড বেকন নামের এই বার্গারটিতে আছে ১৮০গ্রাম বিফ প্যাটি, যথেষ্ট পরিমাণ বিফ বেকন আর প্রচুর পরিমাণ চিজ। অন্যান্য জায়গার বার্গারের তুলনায় সাইজে ছোট হলেও বার্গারটির স্বাদ অন্য যেকোন বার্গারের তুলনায় অনেক মজাদার। খেতে অনেক সুস্বাদু হলেও বার্গারের আকৃতি অনুযায়ী দাম সামান্য বেশিই মনে হয়েছে। এই বার্গারটির জন্য আপনাকে গুনতে হবে ৩২০ টাকা। তবে কথায় আছে না ‘জিনিস যেটা ভালো, দাম তার একটু বেশিই।’

টেকআউট

দাম, স্বাদ এবং পরিবেশের বিচারে টেকআউট আমার অন্যতম পছন্দের একটি জায়গা। মাত্র ১৪৫ টাকা থেকে এখানে ৩৭০ টাকা পর্যন্ত বিভিন্ন দামে বিভিন্ন ধরণের বার্গার পাওয়া যায়। টেক আউটের মাশরুম ক্যারামেল বার্গারের মিষ্টি স্বাদ ব্যতীত অন্য সবগুলো বার্গারই অত্যন্ত সুস্বাদু। কোন বার্গার খেয়েই আপনার অনুশোচনা বোধ হবে না। আমার এখানকার সবচেয়ে পছন্দের বার্গারটি হল চিকেন চিজ ডিলাইট। ডাবল প্যাটির চিকেন আর প্রচুর পরিমাণের চেডার চিজ এর সম্মেলনে খুবই মজাদার এবং একজন মানুষের ক্ষুধা মেটানোর মতন একটি বার্গার মাত্র ২৪০ টাকায় পাবেন এখানে। ধানমন্ডি, বনানী, উত্তরা – সবজায়গাতেই পৌঁছে গেছে টেকআউট

ডেলিসিয়াস ফুড এন্ড এক্সপ্রেস

অপেক্ষাকৃত কম জনপ্রিয় এই দোকানটির খোঁজ আমি পাই সময়ের অভাবে ইউনিভার্সিটির আশেপাশের ভালো দোকান খুঁজতে গিয়ে। ধানমন্ডিতে এর শাখা থাকলেও প্রথম এর খোঁজ পাই লালবাগে। ভার্সিটি এর কাছে কম সময়ে যাওয়া আসার মতন এমন একটি বার্গারের দোকান পেয়ে খুশিই হয়েছিলাম সাথে স্বাদ কেমন হবে তা নিয়েও শঙ্কিত ছিলাম। তবে এখানকার ‘ডেলিসিয়ার স্পেশাল চিকেন’ বার্গারটি খেয়ে অবাক হয়েছিলাম এই ভেবে যে এত ভালো বার্গারের কথা আগে শুনিনি। ডাবল চিকেন প্যাটি ,ডাবল চিজ, বিফ বেকন সবমিলিয়ে অত্যন্ত সুস্বাদু এই বার্গারটির দাম মাত্র ২৭০ টাকা। এই ধরণের বার্গার অন্য যেকোন দোকানে ৩০০-৩৫০ এর নিচে পাওয়া দুষ্কর হবে। আগে ট্রাই না করে থাকলে অতিশীঘ্রই করে করে ফেলুন।

আলিফ ফুড

এতক্ষন সব নামী দামী ব্র্যান্ডের বার্গারের কথা বললাম। এবার আপনাদের বলব একেবারেই ভিন্ন ধরণের একটি বার্গারের কথা। সিদ্ধেশ্বরীর ভিকারুন্নিসা থেকে সামান্য দূরে বই ঘরের পাশে ছোট্ট একটি দোকানের নাম আলিফ ফুড। যেই বার্গারের কথা বলব সেটির নাম আলিফ চিকেন বার্গার। মিডিয়াম সাইজের নরম বানের মধ্যে ছোট ছোট চিকেন ফ্রাই এর টুকরো, লেটুস পাতা, সামান্য পিঁয়াজ কুচি আর সাথে মেয়নিজ দিয়ে তৈরি করা হয় এই বার্গার।। এর প্রতিটি কামড়ে চিকেন আর মেয়নিজের অপূর্ব স্বাদ আপনাকে মুগ্ধ না করে পারবে না। যেকোন সাধারণ মানুষের ক্ষুধা মেটাতে দু’টি বার্গার যথেষ্ট হবে। এই অসাধারণ স্বাদের বার্গার টির মূল্য মাত্র ৪০ টাকা। অর্থাৎ মাত্র ৪০ টাকায় আপনি নাস্তা হিসেবে সুস্বাদু বার্গার পাচ্ছেন। লাঞ্চ হিসেবে চাইলেও মাত্র দুই বা তিনটি বার্গার অর্থাৎ মাত্র ১২০টাকায় অসাধারণ বার্গার লাঞ্চ হয়ে যাবে আপনার। দোকানটি যদিও একেবারেই ছোট তবে বাসায় নিয়ে এসে পরিবারের সকলে একসাথে উপভোগের জন্য এত স্বল্প মূল্যে মজাদার বার্গার সত্যিই অসাধারণ। দাম এবং স্বাদের বিচারে তাই অন্যান্য ব্র্যান্ডের বার্গারের পরিবর্তে এটিকে রেখেছি এই লিস্টের পাঁচ নম্বরে।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।