‘ডুব’-এ ডুবে তিশার ছক্কা

টিভি অভিনেত্রীদের মাঝে যে কয়েকজন চলচ্চিত্রে সমুজ্জ্বল,তাদের মধ্যে অন্যতম নুসরাত ইমরোজ তিশা। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী এখন পর্যন্ত মাত্র ৬ টি সিনেমায় অভিনয় করেছে। এই শুক্রবারেই মুক্তি পাচ্ছে গুণী এই অভিনেত্রীর ষষ্ঠ চলচ্চিত্র। ছক্কা হাঁকানোর অপেক্ষায় আছেন তিনি। চলুন, তার চলচ্চিত্র যাত্রাটা এক ঝলক দেখে নেওয়া যাক।

থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার (২০০৯)

এই সিনেমার গল্প হচ্ছে রুবার একা পথ চলার গল্প নিগৃহীত নারীর গল্প, বন্ধু ও ভালোবাসার গল্প। এই রুবা চরিত্র দিয়েই তিশার চলচ্চিত্র পাড়ায় অভিষেক হয়েছিল। মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী পরিচালিত এই সিনেমায় তিশার বিপরীতে ছিল মোশাররফ করিম ও গায়ক তপু। বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ‘রুবা’ চরিত্রটি অন্যতম সেরা নারী চরিত্র। ছবিটি সেই সময় বেশ দর্শকপ্রিয়তা লাভ করার পাশাপাশি সেরা বিদেশি শাখার ছবি হিসেবে অস্কারের মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে।

মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার সমালোচক বিভাগে ছবিটি সেরা চলচ্চিত্র, পরিচালক ও অভিনেত্রী শাখায় পুরস্কার লাভ করে। সমালোচক বিভাগে পুরস্কার পাবার পাশাপাশি এই ছবির জন্য দর্শকজরিপেও মনোনয়ন পান তিশা। ফারুকীর জাতীয় পুরস্কারের প্রতি অনীহা থাকায় উনি কমিটিতে ছবি জমা দেন না। তবে ছবিটি নিয়ে দর্শকমহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

রানওয়ে (২০১০)

প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদের সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘রানওয়ে’-তে একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তিশাকে।এই সিনেমার প্রধান চরিত্র রুহুলের প্রেমিকা চরিত্রে অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছিলেন তিশা।

টেলিভিশন (২০১৩)

স্বামী মোস্তফা সরোয়ার ফারুকীর হাত ধরে আবার চলচ্চিত্রপাড়ায় আসেন তিশা। ফারুকীর পরিচালনায় ‘টেলিভিশন’ ছবিতে মোশাররফ করিম ও চঞ্চল চৌধুরীর বিপরীতে অভিনয় করেন। ধর্মীয় আবেগ, পারিবারিক বন্ধন, ভালোবাসা মিশ্রিত গল্পে আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত এই ছবিটি তখন বিরুপ পরিবেশেও ব্যবসায়িকভাবে সফল হয়। সিনেমাটি আর্ন্তজাতিকভাবেও বেশ কয়েকটি পুরস্কার লাভ করে। মেরিল প্রথম আলো পুরস্কারে দর্শক জরিপে সেরা অভিনেত্রী হিসেবে মনোনয়ন পান।

অস্তিত্ব (২০১৬)

অনন্য মামুনের পরিচালনায় ‘অস্তিত্ব’ সিনেমায় এক অটিস্টিক শিশু পরীর চরিত্রে অভিনয় করেন তিশা। ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফল না হলেও তিশার অনবদ্য অভিনয় দর্শক- সমালোচকদের নজর কেড়েছে। ২০১৬ সালের সেরা অভিনেত্রী তিশাই, এই সিনেমার গুণে পেয়েও যেতে পারেন জাতীয় পুরস্কার। এই সিনেমায় তিশার বিপরীতে ছিলেন আরেফিন শুভ।

রানা পাগলা – দ্য মেন্টাল (২০১৬)

বর্তমান বাংলা চলচ্চিত্রের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের বিপরীতে টিভি নাটকের শীর্ষ অভিনেত্রী তিশার প্রথম অভিনয়। সবমিলিয়ে ছবিটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। কিন্তু পরিচালক শামিম আহমেদ রনি হতাশ করলেন, দূর্বল চিত্রনাট্যে ছবিটা প্রাণ হারিয়ে ফেলে, তার উপর ছিল নকলের অভিযোগ। আর তাই অনেকেই মনে করেন, এই ছবিটি ছিল তিশার একটা ভুল।

ডুব (মুক্তির অপেক্ষা)

হালের সবচেয়ে আলোচিত সিনেমা ‘ডুব’। দুই বাংলার যৌথ প্রযোজনায় সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী। বিশাল বাজেটের এই সিনেমায়সহ প্রযোজক হয়েছেন বলিউড অভিনেতা ইরফান খান, যিনি এই ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন। আর এই সিনেমায় ইরফান খানের মেয়ের চরিত্রে আছেন তিশা। এই ছবির গল্প মূলত বাবা ও মেয়ের সম্পর্কের টানাপোড়নের গল্প। তবে বেশ কয়েকমাস আগে ভারতীয় এক গনমাধ্যমে প্রকাশিত হয়, সিনেমাটির গল্প বাংলাদেশের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক প্রয়াত হুমায়ূন আহমেদের বাস্তব জীবনের কিছু ঘটনা থেকে অনুপ্রানিত। তবে এই কথাটি ফারুকী সরাসরি স্বীকার না করলেও নানাভাবে প্রমানিত হচ্ছে এটি হুমায়ূন সাহেবের জীবনী থেকে অনুপ্রাণিত।

আর তাই স্বাভাবিকভাবেই ক্ষেপেছেন লেখক পত্নী অভিনেত্রী শাওন। তিনি এই ছবির মুক্তির ব্যাপারে সেন্সরবোর্ডে আপত্তি জানিয়েছেন। এতেই দুপক্ষই বেশ আলোচনা ও সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন। অবশেষে, সকল বাধা পেরিয়ে আগামী ২৭ অক্টোবর মুক্তি পেতে যাচ্ছে বহুল অপেক্ষমান এই ছবিটি। ট্রেইলারে প্রত্যাশামাফিক সাড়া না পেলেও, এই ছবিতেও তিশা নিজের সেরাটা দেখানোর চেষ্টা করবেন, এই আস্থা রাখাই যায়।

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।