ক্যারিয়ারে কোনো অপ্রাপ্তি তো দেখি না: সাকিব

দেশ কিংবা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে তার অর্জনের কোনো শেষ নাই। বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেই সাকিব আল হাসান কাটিয়ে ফেলেছেন ১২ টি বছর। সাকিবের সমর্থকদের গ্রুপ, ‘১৬ কোটি মানুষের প্রাণ সাকিব আল হাসান’ বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারের ক্যারিয়ারের এক যুগ উপলক্ষ্যে এক সংবর্ধনার আয়োজন করে।

কত বছর সার্ভিস দিতে চান?

খুব বেশি প্ল্যান করিনি। খুব বেশি কিছু কখনোই প্ল্যান করিনা। দলের হয়ে পারফর্ম করার চেষ্টা করি। যতদিন পারফর্ম করব ততদিন খেলব। এছাড়া তেমন কোনো প্ল্যান আমার থাকে না। সিরিজ বাই সিরিজ চিন্তা করি। একজ্যাক্টলি বলতে পারব না কতদিন খেলতে চাই বা খেলব। আশা থাকবে এখনো ৮-১০ বছর ক্রিকেট খেলার।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজে বাংলাদেশের সম্ভাবনা কতটুকু?

সম্ভাবনা সবসময়ই থাকে। যখনই আমরা খেলি। এবারও আছে। ওরা ভালো দল। অস্ট্রেলিয়ার মতো দল সবসময় ডেঞ্জারাস। আমাদের জন্য কঠিন একটা সিরিজ অপেক্ষা করছে। এটাও বলব যে, যেহেতু আমরা প্রস্তুত এবং এখানে আমাদে লাস্ট পারফরম্যান্সও ভালো ওইদিক থেকে আমরাও কনফিডেন্ট। আশা করব ওদের সঙ্গে আমাদের খুবই প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক একটা সিরিজ হতে যাচ্ছে।

আলাদ্দিনের চেরাগ হাতে পেলে কি চাইবেন?

জানি না। চিন্তা করার বিষয়। বাট টাকা চাইব এটা শিওর। কারণ টাকা থাকলে সবকিছু করা সম্ভব। সিরিয়াসলি বললে বলব, দেশকে আরো কিভাবে সুন্দর করে সাজানো যায়। ক্রিকেটকে উন্নত করা যায়। আরেকটু চিন্তা করে বলতে হবে।

ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মাঝে মধ্যই সমালোচনা হয়। বিষয়টাকে কিভাবে দেখেন?

দেখি না।

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?

শুধু আমাকে না ওরা বাংলাদেশ দলকে অনুপ্রাণিত করে। ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে যতজন রিলেটেড আছেন সবাইকেই অনুপ্রাণিত করেন। আপনাদেরকেও (সাংবাদিক) অনুপ্রাণিত করেন। খুব বেশি দেশে এমন সমর্থক নেই। আমাদের অনেক সমস্যার মধ্যও যেভাবে ওরা সমর্থন দেয় তা অকল্পনীয়। খারাপ সময়ে সাপোর্ট অনেক কাজে আসে। আত্মবিশ্বাস কাজ করে।

মুমিনুলকে মিস করবেন কি টেস্টে?

অবশ্যই আমাদের দলের একজন সেরা খেলোয়াড়। এটা আমি মনে করি। ও না থাকাটা অবশ্যই দলকে মানসিক দিক থেকে একটু ব্যাকফুটে রাখবে। বাট এটা বাংলাদেশ দল গুরুত্বপূর্ণ। দলে কোচিং স্টাফ বা সিলেক্টরা যে টিম দিবেন সেটাই সেরা দল। আমাদের যে দলটা আছে সে দল নিয়েই খেলতে হবে। সবাই চাই বাংলাদেশ দল ভালো করুক। এগুলা নিয়ে পজিটিভ নেগেটিভ অনেক কথাই থাকবে। সবার মতোই আমিও আশা করব বাংলাদেশ দল ভালো করুক।

ক্যারিয়ারের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি…

অপ্রাপ্তি তো দেখি না। বাংলাদেশ দল যা করেছে সবই প্রাপ্তি আমাদের। দুটো ট্রফি পেলে ভালো হতো। যেহেতু আমরা দু’বার ফাইনালে গিয়েছি। সুযোগ এখনো শেষ হয়ে যায়নি। আমাদের উন্নতির ধারাটা উর্ধ্বমুখী। আশা করি ভবিষ্যতে ট্রফি জিতব।

১২ বছরের ক্যারিয়ারে কিছু প্রাপ্তি?

প্রাপ্তি বলতে আমার বউ বাচ্চা। আমার ক্যারিয়ার এত দূরে আসার পেছনে বউয়ের অনেক বড় অবদান আছে। বাচ্চা আসার পর থেকে তো পুরো লাইফটাই চেঞ্জ হয়ে গেছে।

Related Post

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।