উদরপূর্তির বিনিময়ে বেতন!

মিশেলিনে একবার ভাগ্যটা চেখে দেখবেন নাকি?

অনেকের মতে, ফুড ইন্ড্রাস্ট্রি কাজের অনেক সুযোগ। খাটনিও অনেক। তারপরও এমন কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানের চাকরি আছে, যেগুলোর কথা শুনলে জিভে জল তো আসেই, সেইসাথে চক্ষুও ছানাবড়া হবার দশা হয়। মিশেলিন তাদের মধ্যে অন্যতম। তাই আপনি যদি একজন একজন ভোজনরসিক এবং রান্না-বান্নার ব্যাপারে অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য মিশেলিনের দরজা একদম খোলা।

বিশ্বের অন্যতম সুপরিচিত কুকিং গাইডলাইন প্রস্তুতকারী এই প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি এমন কিছু পরিদর্শক নিয়োগের ঘোষনা দিয়েছে, যাদের কাজ হবে ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন রেস্তোরার খাবার খেয়ে সেগুলোর মূল্যায়ন করা। মজার, তাই না ?

তবে মিশেলিন তাদের বিজ্ঞপ্তিতে যে শর্তগুলো দিয়েছে, তা দেখে অনেকেরই চক্ষু চড়কগাছে উঠতে পারে।

মিশেলিনের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী রন্ধন গবেষণা, খাদ্য গবেষণা, হোটেল ব্যবস্থাপনা, বা সমমানের কোনো বিষয়ের ওপর স্নাতক ডিগ্রী; হোটেল, রেস্টুরেন্ট, বা অন্যান্য প্রাসঙ্গিক শিল্পে নূন্যতম দশ বছরের অভিজ্ঞতা; বিভিন্ন রন্ধন উপাদান সম্পর্কে ব্যাপক আন্তর্জাতিক জ্ঞান এবং বিভিন্ন রন্ধনসম্পর্কীয় কৌশল সম্পর্কে অভিজ্ঞতার মতো ১৩টি শর্ত পূরন করতে হবে প্রার্থীকে। মিশেলিনের নির্বাহী রেবেকা বোর সিএনএনকে বলেন, ‘আমরা প্রধানত রাধুনিদেরকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছি, তবে ম্যানেজার এবং ওয়াইন সম্পর্কে অভিজ্ঞ লোকেরাও আমাদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে।’ তাই বোঝাই যাচ্ছে, চাকরিটি পেতে শুধু ভোজনরসিক হলেই চলবে না, ঢের যোগ্যতাও থাকা চাই!

আপনি যদি উপরের শর্তগুলোতে উৎরে গিয়ে থাকেন, তবে এখনই আনন্দে আত্মহারা হবার প্রয়োজন নেই। মিশেলিন তাদের সর্বশেষ শর্তে বলে রেখেছে – ‘নো হোমবডিস অ্যালাউড’। অর্থাৎ, ঘরকুনোদের জন্য এ চাকরিতে আবেদন না করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। কেননা একজন মিশেলিন ইন্সপেক্টর হিসেবে আপনাকে প্রতি বছর ন্যূনতম ২৭৫টি রেস্টুরেন্ট আহার করতে হতে পারে, যার মানে আপনি প্রতি মাসে গড়ে তিন সপ্তাহ ভ্রমণ করতে হবে। হতে পারে তা দেশে বা দেশের বাইরে। শুধু তাই নয়, এখানে গোপনীয়তা রক্ষাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। যেহেতু পরিদর্শকদের ওপরই একটি রেস্টুরেন্টের গড়ে ওঠা কিংবা ধসে পড়া নির্ভর করে, তাই সত্যিকারের পরিচয় গোপন করার জন্য ছদ্মনাম ব্যবহার করা আবশ্যক।

অনেক রসনাবিলাসীই আফসোস করেন, তাদের এ গুনটি বোধহয় কর্মজীবনে আর কাজে লাগাতে পারলেন না। তাদের সে সুযোগ এনে দিয়েছে মিশেলিন। তাই দেরি না করে ঝটপট আবেদন করে ফেলুন! হতেও পারে, এই মিশেলিনিই হবে আপনার ভবিষ্যতের ঠিকানা?

– ইনসাইডার অবলম্বনে

অলিগলি.কমে প্রকাশিত সকল লেখার দায়ভার লেখকের। আমরা লেখকের চিন্তা ও মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত লেখার সঙ্গে মাধ্যমটির সম্পাদকীয় নীতির মিল তাই সব সময় নাও থাকতে পারে।